Aajkaal: the leading bengali daily newspaper from Kolkata
কলকাতা ৩১ ভাদ্র ১৪২১ বুধবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৪
 প্রথম পাতা   কলকাতা  বাংলা  ভারত  সম্পাদকীয়  উত্তর সম্পাদকীয়  খেলা  আজকাল-ত্রিপুরা   পুরনো সংস্করন  বইঘর 
বসিরহাট দক্ষিণে বি জে পি, চৌরঙ্গিতে তৃণমূল ।। বসিরহাটে বি জে পি-র জয়কে গুরুত্ব দিচ্ছে না তৃণমূল ।। কালিয়াচকে পুড়ল ৫ দোকান, জাতীয় সড়কে বোমাবাজি, অবরোধ ।। সূর্যকাম্ত: চিটফান্ডের মাধ্যমে লুট করা সব টাকাই আদায় করা হবে ।। রজত: মানসিক নির্যাতন করছে আমাকে--সি বি আই: উনি সহযোগিতা করছেন না ।। শহর জেতাল শমীককে--স্বদেশ ভট্টাচার্য ।। বাংলাদেশি ইলিশ আনতে কেন্দ্রকে আর্জি মৎস্যমন্ত্রীর ।। আজ আসছেন জিনপিং, অনেক আশায় মোদি ।। ক্যাম্পাসে যৌন হেনস্হার প্রতিবাদে যাদবপুরে উপাচার্য ঘেরাও ।। মেমারিতে বাবার কবরের পাশেই সমাহিত সৈফুদ্দিন--বিজয়প্রকাশ দাস ।। মোদি-হাওয়া উধাও ।। দাম কমবে ডিজেলের?
কলকাতা

ক্যাম্পাসে যৌন হেনস্হার প্রতিবাদে যাদবপুরে উপাচার্য ঘেরাও

নারী মুক্তির ডাক

গঙ্গা দূষণ থেকে পঞ্চতত্ত্ব, বিলুপ্তপ্রায় কলাইশিল্প কলকাতার উত্তরে

সাড়ে তিন ঘণ্টা তারাতলা রোড অবরোধ

ক্যাম্পাসে যৌন হেনস্হার প্রতিবাদে যাদবপুরে উপাচার্য ঘেরাও

পড়ুয়াদের ওপর বহিরাগতদের হামলার অভিযোগ, এল পুলিস

Google plus share Facebook share Twitter share LinkedIn share

গৌতম চক্রবর্তী




ক্যাম্পাসে যৌন হেনস্হার প্রতিবাদে এবং তদম্ত কমিটির দুই সদস্যকে অপসারণের দাবিতে উপাচার্য-সহ এগজিকিউটিভ কমিটির সদস্যদের ঘেরাও করলেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা৷‌ অভিযোগ, মঙ্গলবার সন্ধেয় ঘেরাও তোলার জন্য পড়ুয়াদের ওপর হামলা চালায় একদল বহিরাগত দুষ্কৃতী৷‌ জখম হন দুই পড়ুয়া৷‌ হামলার অভিযোগ তৃণমূল পরিচালিত কর্মী সংগঠনের বিরুদ্ধে৷‌ যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছে সংগঠনটি৷‌ পরিস্হিতি সামলাতে আসে পুলিসবাহিনী৷‌ গভীর রাত পর্যম্ত ঘেরাও চলে৷‌ পড়ুয়াদের বক্তব্য, দাবি না মানা পর্যম্ত ঘেরাও চলবে৷‌ ক্যাম্পাসে যৌন হেনস্হার ঘটনা বাড়ছে৷‌ এর প্রতিবাদে এবং প্রতিকারের দাবিতে গত বুধবার থেকে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল পড়ুয়া অবস্হান চালাচ্ছিলেন৷‌ যৌন হেনস্হার ঘটনায় তদম্ত কমিটি গঠিত হয়৷‌ পড়ুয়াদের অভিযোগ, তদম্ত কমিটির দু’জনকে সরাতে হবে৷‌ এদিন অরবিন্দ ভবনে বিশ্ববিদ্যালয়ের এগজিকিউটিভ কমিটির বৈঠক ছিল৷‌ সেখানে যৌন হেনস্হার বিষয়ে গঠিত তদম্ত কমিটির সদস্যরাও যোগ দেন৷‌ বৈঠক চলাকালীন পড়ুয়ারা উপাচার্য অভিজিৎ চক্রবর্তীর কাছে স্মারকলিপি দেন৷‌ উপাচার্য তাঁদের দাবির সঙ্গে সহমত হননি৷‌ এর পর পড়ুয়ারা বিকেলেই উপাচার্য, ই সি এবং তদম্ত কমিটির সদস্যদের ঘেরাও শুরু করেন৷‌ এঁদের মধ্যে কয়েকজন অধ্যাপিকা, মহিলা কর্মচারীও রয়েছেন৷‌ পড়ুয়াদের অনুরোধ করা হয় ঘেরাও তুলতে৷‌ পড়ুয়ারা পাল্টা জানান, দাবি না মানা পর্যম্ত ঘেরাও চলবে৷‌ সন্ধের পর উত্তেজনা বাড়তে থাকে৷‌ সন্ধে সাড়ে ৭টা নাগাদ অশিক্ষক কর্মীদের বাড়ি যাওয়ার ব্যবস্হা করতে থাকেন পড়ুয়ারা৷‌ অভিযোগ, সেই সময় একদল কর্মচারী বহিরাগতদের নিয়ে বিক্ষোভরত পড়ুয়াদের জোর করে সরাতে যায়৷‌ ধস্তাধস্তি হয়৷‌ কয়েকজন পড়ুয়া জখম হন৷‌ পরিস্হিতি সামলাতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ পুলিসকে বিষয়টি জানান, ঘেরাওমুক্ত করতে অনুরোধ করেন৷‌ বিশাল পুলিসবাহিনী আসে৷‌ রাত সাড়ে ৮টা নাগাদ পুলিস বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে ঢোকে৷‌ প্রথমে পড়ুয়া এবং পরে উপাচার্যের সঙ্গে কথা বলেন দুই পুলিস আধিকারিক৷‌ পড়ুয়ারা পুলিসকে জানান, দাবি না মেটা পর্যম্ত তাঁরা শাম্তিপূর্ণ অবস্হান চালিয়ে যাবেন৷‌ গভীর রাত পর্যম্ত ঘেরাও চলে৷‌ এ প্রসঙ্গে উপাচার্য অভিজিৎ চক্রবর্তী বলেন, পড়ুয়ারা আমাদের অন্যায়ভাবে ঘেরাও করে রেখেছে৷‌ ছাত্রদের জানিয়েছি, তাদের দাবি নিয়ে আলোচনা হয়েছে৷‌ প্রয়োজনে ফের আলোচনা করব৷‌ কিন্তু ওরা শোনেনি৷‌ অধ্যাপিকা, মহিলা ই সি সদস্যদের আটকে রেখেছে৷‌ বলেন, অনেকেই অসুস্হ হয়ে পড়ছেন৷‌ তাই ঘেরাওমুক্ত হতে আমিই পুলিস-প্রশাসনকে বিষয়টি জানিয়েছি৷‌ উল্লেখ্য, ২০০৫ সালের পর পর ফের যাদবপুর বিশ্বিদ্যালয়ে পুলিস ঢুকল৷‌ এ প্রসঙ্গে সি পি আই (এম এল) লিবারেশন রাজ্য সম্পাদক পার্থ ঘোষ জানান, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের দুষ্কৃতী, গুন্ডারা ঢুকে ক্যাম্পাসের মধ্যে অত্যাচার চালায়৷‌ ছাত্রছাত্রীদের গায়ে হাত দেয়৷‌ বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষকেই এর দায় নিতে হবে৷‌ অবিলম্বে তৃণমূলি গুন্ডা, দুষ্কৃতীদের গ্রেপ্তারের দাবি জানাচ্ছি৷‌


kolkata || bangla || bharat || editorial || post editorial || khela || Tripura ||
Error Report || archive || first page

B P-7, Sector-5, Bidhannagar, Kolkata - 700091, Phone: 30110800, Fax: 23675502/5503
Copyright © Aajkaal Publishers Limited

Designed, developed & maintained by   Remote Programmer Private Limited