Aajkaal: the leading bengali daily newspaper from Kolkata
কলকাতা ৬ আশ্বিন ১৪২১ মঙ্গলবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৪
 প্রথম পাতা   কলকাতা  বাংলা  ভারত  বিদেশ  সম্পাদকীয়  উত্তর সম্পাদকীয়  খেলা  আজকাল-ত্রিপুরা   পুরনো সংস্করন  বইঘর 
যাদবপুর: ছাত্র-ছাত্রীদের সঙ্গে আলোচনায় বসতে চাইছেন উপাচার্য ।। চিটফান্ড কেলেঙ্কারিতে গ্রেপ্তার ওড়িশার প্রাক্তন অ্যাডভোকেট জেনারেল ।। সারদা, যাদবপুর, ‌ট্যাক্সি নিয়ে ফ্রন্টের মহামিছিল ।। মুখ্যমন্ত্রীর আশ্বাসে খুশি নির্যাতিতার বাবা ।। বি জে পি-র সব আসনে লড়ার হুমকি শিবসেনাকে ।। বুধবার লাল গ্রহের কক্ষপথে পা রাখতে চলেছে মঙ্গলযান ।। পুজোর আগেই তাপস পাল, পাড়ুই ও কার্টুন-কাণ্ডের রায় ।। রাজ্যপালের ওপর আস্হা প্রকাশ করল তৃণমূল ছাত্র পরিষদ ।। ঘাটালে পুলিস-দুষ্কৃতী সঙঘর্ষে মৃত ১ পুলিসকর্মী, আহত ২ ।। আজ শুরু সি পি এম রাজ্য কমিটির ২ দিনের বৈঠক ।। আজ মহালয়া ।। ডানলপ খুলছে ২৫ সেপ্টেম্বর
কলকাতা

সারদা, যাদবপুর, ‌ট্যাক্সি নিয়ে ফ্রন্টের মহামিছিল

যাদবপুর: ছাত্র-ছাত্রীদের সঙ্গে আলোচনায় বসতে চাইছেন উপাচার্য

দেবতারে প্রিয় করি, প্রিয়রে দেবতা...

চাকা, পয়সা, বোতামের মণ্ডপ

পুলিসের সঙ্গে পড়ুয়াদের শুধু ধস্তাধস্তি: পার্থ

নবমিলনে রঙের ছটায় জাপানি অরিগ্যামি

এস এফ আইয়ের সংহতি দিবস

রাজাবাজারে ৩ ঘণ্টা ক্লাস বন্ধ থাকবে

যাদবপুর: রাজ্যের তদম্ত কমিটিতে আস্হা নেই বি জে পি-র

কলকাতায় আম্তর্জাতিক বন্যপ্রাণ ফিল্ম উৎসব

যাদবপুর: প্রতিবাদে মেডেল ফেরালেন কৃতী

প্রতিবাদ ১০০ শহরে

সারদা, যাদবপুর, ‌ট্যাক্সি নিয়ে ফ্রন্টের মহামিছিল

Google plus share Facebook share Twitter share LinkedIn share

আজকালের প্রতিবেদন: আমাকে, রবীনকে যাকে খুশি ডাকুন৷‌ যা যা তথ্য জানি বলব৷‌ কিন্তু চুনো পুঁটি ধরবেন আর টিভিতে রোজ ‘সিরিয়াল’ চলবে, তাতে কী লাভ? রাঘববোয়ালদের ধরে যতদিন না আমানতকারীদের টাকা ফেরত হচ্ছে, ততদিন এই ‘সিরিয়াল’ বন্ধ হতে দেব না৷‌ সোমবার বামফ্রন্টের ডাকা মহামিছিলের পর এভাবেই সারদা-কাণ্ড এবং সি বি আই তদম্ত নিয়ে বললেন বিরোধী দলনেতা ডাঃ সূর্যকাম্ত মিশ্র৷‌ সারদা-সহ এদিনের মিছিলে যুক্ত করা হয়েছিল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে পুলিসের হাতে ছাত্র নিগ্রহের প্রতিবাদ ও লাগাতার ধর্মঘট চালিয়ে যাওয়া ‌ট্যাক্সিচালকদের দাবিদাওয়ার কথা৷‌ বিমান বসু বলেন, এই সরকারের কানে তুলো আর চোখে ঠুলি লাগানো রয়েছে৷‌ তাই কুম্ভকর্ণের ঘুম ভাঙে, এই সরকারের ঘুম ভাঙে না৷‌ যাদবপুরের ঘটনায় রাজ্যের ছাত্রছাত্রীরা পথ দেখিয়েছে৷‌ উত্তাল আন্দোলনে এই সরকারের ঘুম ভাঙাতেই হবে৷‌ বিমান বসু নিজেই এদিন মঞ্চ থেকে স্লোগান দেন, ‘অলিগলি মে শোর হ্যায়, তৃণমূল চোর হ্যায়’৷‌ এদিন সারদা ও অন্যান্য চিটফান্ড নিয়ে সূর্যকাম্ত মিশ্র আহ্বান জানান, জেলায় জেলায় অজস্র চিটফান্ড রয়েছে৷‌ সব নামও আমি বলতে পারব না৷‌ অজস্র মানুষ প্রতারিত৷‌ আর সমস্ত চিটফান্ডের কালো টাকার ভাগ পেয়েছে এই তৃণমূল৷‌ তাই জেলায় জেলায় যেখানে যত চিটফান্ড রয়েছে, সমস্ত প্রতারিতর পাশে দাঁড়ান৷‌ ঐক্যবদ্ধ করুন৷‌ প্রতারকদের ধরে প্রত্যেকের টাকা ফেরত দিতে হবে৷‌ প্রশ্ন তোলেন, রাঘববোয়ালদের অবগুন্ঠন কেন এখনও খুলছে না? সি বি আই অফিসারেরা অবগুন্ঠন তুলে মূল প্রতারকের মুখটা জনগণকে দেখান৷‌ সারদা-সহ অন্যান্য চিটফান্ডে প্রতারিত মানুষের টাকা ফেরাতে হবে, লুটেরাদের ধরতে হবে, তাদের সম্পত্তি বেচে আমানতকারীদের টাকা ফেরাতে হবে– মূলত এই দাবিকে সামনে রেখেই এদিন মহামিছিলের ডাক দিয়েছিল রাজ্য বামফ্রন্ট৷‌ মিছিল শুরু হয় বিকেল ৩টেয়, রামলীলা ময়দান থেকে৷‌ দুই ২৪ পরগনা থেকে বহু মানুষ এসেছিলেন পোস্টার, ফেস্টুন হাতে নিয়ে৷‌ ফলে রামলীলা ময়দান থেকে শুরু হওয়া মিছিলের পিছনে যোগ দেয় বড়সড় একটি মিছিল৷‌ শনিবারের বৃষ্টিভেজা ছাত্রমিছিলের ছোঁয়া লেগেছিল এদিনও৷‌ বহু গালে ‘ছিঃ’ লিখে, মাথায় ফেট্টি বেঁধে এসেছিল যৌবন৷‌ অনেকের হাতে ছিল পোস্টার, ‘লাঠির বদলা গিটারে সুর, দেখিয়ে দিল যাদবপুর’৷‌ মিছিলে অংশ নেন বেশ কিছু চিটফান্ডে প্রতারিত মানুষজন এবং ‌ট্যাক্সিচালকও৷‌ লম্বা মিছিল যখন এ জে সি বোস রোড দিয়ে মল্লিকবাজার পার্ক স্ট্রিট হয়ে পার্ক সার্কাস ময়দানে পৌঁছে গেছে, তখনও মিছিল এগোচ্ছে এন্টালি বাজার দিয়ে৷‌ সামনে বিমান বসু, সূর্যকাম্ত মিশ্র, মনোজ ভট্টাচার্য, মঞ্জুকুমার মজুমদার, হাফিজ আলম সাইরানি, দীপক দাশগুপ্ত, উমেশ চৌধুরি, নজরুল ইসলাম প্রমুখ বামপম্হী নেতৃত্ব৷‌ পার্ক সার্কাসের জমায়েতে বিমান বসু বলেন, সারদা নিয়ে ডাকা এই মিছিলে আমরা ঘোষণা করছি, যাদবপুরের ওই ছাত্রদের পাশে আছি৷‌ আমরাও ওই উপাচার্যের পদত্যাগ দাবি করছি৷‌ দাবি করছি, ওই মেয়েটির শ্লীলতাহানির নিরপেক্ষ ও স্বচ্ছ তদম্ত করতে হবে৷‌ একই সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে ঢুকে পুলিস কেন ছাত্রদের পেটাল, তারও তদম্ত হোক৷‌ সারদা-কাণ্ডপ্রসঙ্গে তিনি বলেন, রাজ্য কোষাগার থেকে ১১ কোটি টাকা খরচ করেছে এই সরকার সি বি আই তদম্ত আটকানোর জন্য৷‌ এই সময়ে সিট যে তদম্ত করল তা তো পুরোপুরি অপরাধ ও অপরাধীদের আড়াল করার প্রক্রিয়া মাত্র৷‌ এ প্রসঙ্গে এদিন সূর্যকাম্ত মিশ্র বলেছেন, ওটা সিট নয় চিট৷‌ চিটারদের আড়াল করার জন্য তথ্য নষ্ট করার কাজ করেছে এরা৷‌ বিমান বসুর কথায়, এই তথ্য নষ্ট না করলে যে নবান্নের মন্ত্রীদের আজ জেলে থাকতে হত৷‌ তাই বলছি, এখানেই আন্দোলন শেষ নয়৷‌ যে যার নিজের এলাকায় গিয়ে চিটফান্ডে প্রতারিতদের পাশে দাঁড়ান, ওঁদের ঐক্যবদ্ধ করুন৷‌ সামনে শারদোৎসবে কিছুটা ভাটা আসতে পারে৷‌ তার পর রাস্তাই হোক আমাদের রাস্তা৷‌ হাফিজ আলম সাইরানির কথায়, গোটা তৃণমূল চিটফান্ডের লুম্পেন অর্থনীতিতে ডুবে রয়েছে৷‌ আমরা তো জোর গলায় বলতে পারছি, বামপম্হী কেউ দোষী হলে শাস্তি পাবেন৷‌ তা তৃণমূল নেত্রী কেন এটা বলতে পারছেন না? কেন আইনমন্ত্রীকে ধর্নায় বসিয়ে সি বি আই তদম্তকে প্রভাবিত করতে চাইছেন? মনোজ ভট্টাচার্য এদিন বলেন, শুধু লুম্পেনগিরি নয়৷‌ চিটফান্ডের টাকা বাংলাদেশে পাঠানো হয়েছে৷‌ জামাতের একজন নেতাকে সংসদে পাঠিয়েছেন নেত্রী৷‌ এ তো দেশদ্রোহিতা! তিনি বলেন, শনিবারের ছাত্রমিছিল রাজ্যের গৌরব বৃদ্ধি করেছে৷‌ প্রমাণ করে দিয়েছে, এ রাজ্য এখনও অন্যায়ের প্রতিবাদ করতে জানে৷‌ আর এ থেকে শিক্ষা না নিয়ে শাসক দল পাল্টা মিছিল করছে৷‌ এ তো ভয় দেখানোর মিছিল৷‌ লাভ হবে না৷‌ সি পি আই রাজ্য সম্পাদক মঞ্জুকুমার মজুমদার বলেন, সারদায় এই সরকার ৮২ জনকে আত্মহত্যা করতে বাধ্য করেছে৷‌ আমরা বলছি আত্মহত্যা নয়, আমাদের সঙ্গে লড়াইতে আসুন৷‌ যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংসদের সহ-সভাপতি তন্ময় সাহা এদিন এই প্রতিবাদ মঞ্চে যাদবপুরের ঘটনা নিয়ে বিস্তারিত জানান৷‌ তাঁদের ভবিষ্যৎ যৌথ আন্দোলন কর্মসূচির কথাও বলেন৷‌ শেষে সূর্যকাম্ত মিশ্র বলেন, তৃণমূলের অনেক সদস্যও এখন সি বি আই তদম্তের দাবি করছেন বিভিন্ন কাণ্ডে৷‌ অর্থাৎ তাঁদেরই রাজ্যের তদম্তে সায় নেই৷‌ আর এই সরকার চিটফান্ডের মতো মারাত্মক প্রতারণায় সি বি আই তদম্ত আটকাতে ১১ কোটি টাকা খরচ করে ফেলল৷‌ কেন? সিট আসলে চিট৷‌ প্রতারকদের আড়াল করার অস্ত্র৷‌ আমরা আদালতের নজরদারিতে সি বি আই তদম্ত চেয়েছি৷‌ কারণ, সি বি আই কখনও কখনও রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে ব্যবহূত হয়৷‌ এখানে আদালত তো বলেই রেখেছে, দরজা খোলা রইল৷‌ ফলে কেউ প্রভাব খাটালেও রেহাই পাবে না৷‌ আমরা তাই আন্দোলন জারি রাখতে বলছি৷‌ সি বি আইয়ের উদ্দেশে তিনি বলেন, কানের কাছে সুড়সুড়ি দিলে হবে না৷‌ কানটা ধরে টানুন যাতে মাথাটা বেরিয়ে আসে৷‌ কিছু চুনোপুঁটি ধরছে আর টিভিতে সিরিয়াল দেখাচ্ছে৷‌ আমরা বলছি, আমাকে, রবীনকে যাকে খুশি ডাকুন৷‌ কিন্তু এখনও রাঘববোয়ালরা অধরা কেন? মমতা ব্যানার্জির নাম না করে বলেন, অবগুন্ঠন এখনও রয়েছে কেন? ওটা খুলে দিন, মুখটা মানুষ দেখুক৷‌ উনি মাঝরাতে ডেলো বাংলোয় বৈঠক করেছেন কি না, স্পষ্ট করে এখনও বলছেন না কেন? বুক ঠুকে বলুন, আমি ডেলোয় বৈঠক করিনি! আমরা তো বলছি, আমাদের কেউ এক পয়সাও নিয়ে থাকলে পাশে দাঁড়াব না৷‌ মমতা ব্যানার্জি এভাবে বলতে পারছেন না কেন? প্রমাণ হলে সি বি আই আমার বাড়ি বেচে দেবেন৷‌ কত আর পাবেন! কিন্তু যাদবপুরের বাড়ি, পুরীর হোটেল ইত্যাদি আরও কত সম্পত্তি রয়েছে৷‌ এ-সব বেচে আমানতকারীদের টাকা মেটাতে হবে৷‌ আমাদের করের টাকায় মেটালে হবে না৷‌ আর যত দিন তা না হচ্ছে, তত দিন এই সিরিয়াল থামতে দেব না৷‌ তিনি বলেন, যাদবপুরে আমাদের একটাই দাবি, উপাচার্যকে সরান৷‌ ওঁর উপাচার্য হওয়ার যোগ্যতা নেই৷‌ আচার্যকে বলেছি, এমন একজনকে উপাচার্য আনুন যিনি যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ঐতিহ্য জানেন৷‌ তিনি বলেন, সারাদিন খেটে ‌ট্যাক্সিচালক ৩৫০ টাকা রোজগার করতে পারেন না৷‌ আর এই সরকার মন্ত্রীদের দৈনিক ১ হাজার টাকা ভাতা দিচ্ছে৷‌ শ্রমিক-কৃষকরা কিছু চাইলেই এঁরা বীরত্ব দেখাতে শুরু করে দেন৷‌ যাদবপুরের ছাত্রদের বলা হয়েছে নেশাগ্রস্ত৷‌ সূর্যকাম্ত বলেন, আমি তো একজন মন্ত্রীকে চিনি, সন্ধের পর যাঁর সঙ্গে আর কথা বলা যায় না৷‌ আসলে যারা নেশাগ্রস্ত, তারা সবাইকে নেশার চোখে দেখে৷‌ এদের হাত থেকে ছাত্রদের বাঁচাতেই হবে৷‌


kolkata || bangla || bharat || bidesh || editorial || post editorial || khela ||
Tripura || Error Report || archive || first page

B P-7, Sector-5, Bidhannagar, Kolkata - 700091, Phone: 30110800, Fax: 23675502/5503
Copyright © Aajkaal Publishers Limited

Designed, developed & maintained by   Remote Programmer Private Limited