Aajkaal: the leading bengali daily newspaper from Kolkata
কলকাতা ৫ বৈশাখ ১৪২১ শনিবার ১৯ এপ্রিল ২০১৪
Aajkaal 33
 প্রথম পাতা   বাংলা  ভারত  বিদেশ  সম্পাদকীয়  উত্তর সম্পাদকীয়  খেলা  সংস্কৃতি  ঘরোয়া  পর্দা  আজকাল-ত্রিপুরা   পুরনো সংস্করন  বইঘর 
রাতভর হোটেলে জেগে কাটালেন মমতা ।। আমাকে মেরে ফেলার চক্রাম্ত করা হয়েছিল: মমতা ।। মুখ্যমন্ত্রীর সভার কাছেই জিলেটিন স্টিক উদ্ধার হল! ।। বি জে পি-র অঙ্ক: পদ্ম ফুটবে বাংলা থেকে ।। সততার প্রতীক এখন সারদার প্রতীকে পরিণত হয়েছেন: বুদ্ধদেব ।। টাকা লেনদেনের দুই চিঠি পেল ই ডি, নজরে বহু ব্যবসায়ী ।। মোদি ঢেউ নেই যে যোশিকে কে জেতাবে!--দেবারুণ রায়, কানপুর ।। ক্ষমতায় এলে দুর্নীতিরোধেই জোর--নিজেও তদম্তের ঊধের্ব নই: মোদি ।। গার্সিয়া মার্কেস: অত্যাশ্চর্য জীবনের ইতি ।। এবার ইট-পাটকেল ধেয়ে এল কেজরিওয়ালের দিকে! ।। সারদার ১২৮০ কোটি টাকার খোঁজে ই ডি ।। সি বি আই চাইলেন বিমান
বাংলা

রাতভর হোটেলে জেগে কাটালেন মমতা

‘দেয়ালে নেই, খেয়ালে আছি’

অধীর: মালদা মানেই বরকত

সততার প্রতীক এখন সারদার প্রতীকে পরিণত হয়েছেন: বুদ্ধদেব

আমাকে মেরে ফেলার চক্রাম্ত করা হয়েছিল: মমতা

বি জে পি-র অঙ্ক: পদ্ম ফুটবে বাংলা থেকে

টাকা লেনদেনের দুই চিঠি পেল ই ডি, নজরে বহু ব্যবসায়ী

সি বি আই চাইলেন বিমান

দেবকে নিয়ে তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর টানাটানি

তৃণমূলকে হটাতে তৃতীয় বিকল্প গড়ার ডাক রেজ্জাকের

সারদার ১২৮০ কোটি টাকার খোঁজে ই ডি

সীতারামপুরের বাইজিদের দুঃখ

রাজ্যে প্রথম দফায় গড়ে ভোট পড়ল ৮২.৫২ শতাংশ

গৌতম: সারদা-কাণ্ডে তৃণমূলের নেতা-মন্ত্রী কেউ বাদ যাবেন না

উর্দি পরে কোনও দল নয়, মানুষের হয়ে কাজ করুন: বিমান বসু

মুখ্যমন্ত্রীর সভার কাছেই জিলেটিন স্টিক উদ্ধার হল!

সারদা-কাণ্ডে আমরা সরকারকে ছাড়ব না: সূর্য

তৃণমূল পচাদের টাকা নেয় না: মমতা

মেঘ আছে বৃষ্টি নেই

সুবলপুরে কিশোরীকে গণধর্ষণ, ১৩ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট

সুধীরকুমারের কাছে বাম প্রতিনিধিদল

রাতভর হোটেলে জেগে কাটালেন মমতা

Google plus share Facebook share Twitter share LinkedIn share

অভিজিৎ চৌধুরি: মালদা, ১৮ এপ্রিল– বৃহস্পতিবার মালদার হোটেলে নিজের ঘরে দুর্ঘটনার পর রাতভর আতঙ্কে হোটেলে জেগেই কাটালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি৷‌ মালদার হোটেলের ঘরে এসি মেশিনে আগুন লেগে যাওয়ায় বিষাক্ত ধোঁয়ায় অসুস্হ হয়ে পড়েছিলেন মমতা৷‌ রাতেই তাঁকে অন্য ঘরে নিয়ে যাওয়া হয়৷‌ শ্বাসকষ্ট হওয়ায় তাঁকে অক্সিজেন দিতে হয়৷‌ রাতভর তিনি চেয়ারে বসে জেগে কাটিয়ে দেন৷‌ ভোরবেলায় কিছুটা ঘুমিয়ে নেন৷‌ বেলার দিকে উঠে তৈরি হয়ে তিনি নলহাটির উদ্দেশ্যে রওনা হয়ে যান৷‌ ঘটনার দিন রাতেই ষড়যন্ত্রের অভিযোগ তুলে দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক মুকুল রায় নির্বাচন কমিশনকে চিঠি দেন৷‌ শুক্রবার কলকাতায় নির্বাচন আধিকারিক অমিতজ্যোতি ভট্টাচার্য বলেন, মুকুলবাবুর চিঠি আমরা পেয়েছি৷‌ চিঠির কপি দিল্লিতে নির্বাচন কমিশন দপ্তরে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে৷‌ নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, এ ব্যাপারে কমিশনের কোনও দায়িত্ব নেই৷‌ তার কারণ, কমিশন ওই হোটেল বুক করেনি৷‌ কমিশন সূত্রে জানা গেছে, মালদা জেলাশাসকের কাছ থেকে একটি রিপোর্ট চেয়ে পাঠিয়েছে কমিশন৷‌ এদিকে, মুখ্যমন্ত্রীর পাঁচতারা হোটেলের ঘরে এসি মেশিনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় পুরাতন মালদা থানায় অভিযোগ দায়ের করল দমকল বিভাগ৷‌ তদম্ত শুরু করেছেন ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরাও৷‌ বৃহস্পতিবার রাতেই এই ঘটনার পর দমকলের ওসি সাইদুল ইসলাম লিখিত অভিযোগে বলেছেন, হোটেলের বিদ্যুতিন রক্ষণাবেক্ষণ ঠিকমতো হয়নি৷‌ এর অভাবেই এই ঘটনাটি ঘটেছে৷‌ ফায়ার অ্যা’ ধারায় মামলা শুরু করকেছে পুরাতন মালদা থানার পুলিস৷‌ পূর্ত দপ্তর এবং বিদ্যুৎ বণ্টন কোম্পানি আলাদাভাবে তদম্ত করেছে৷‌ একনাগাড়ে মেশিন চালু ছিল৷‌ দীর্ঘদিন ধরে এ সি লাইন রক্ষণাবেক্ষণ না করার ফলে দুর্বল হয়ে যায়৷‌ সেই কারণে শর্টসার্কিট হয়ে তার জ্বলে যায়৷‌ এ সি মেশিনে বিপর্যয় ঘটে৷‌ তারের ধোঁয়া ঘরে ছড়িয়ে পড়ে৷‌ তবে গোটা বিষয়টি আরও খুঁটিনাটি জানার জন্য ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরা দেখছেন৷‌ এদিকে, এই ঘটনা নিয়ে সি বি আই তদম্তের দাবি তুলেছে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি ও রেল দপ্তরের রাষ্ট্রমন্ত্রী অধীর চৌধুরি৷‌ শুক্রবার মালদায় তিনি সাংবাদিকদের বলেছেন, মুখ্যমন্ত্রী নিজেই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী৷‌ এই ঘটনার পর তাঁর নিরাপত্তা দায়িত্বে থাকা পুলিস অফিসারদের কয়েকজনকে সাসপেন্ড করা উচিত ছিল৷‌ কিন্তু সেটা হয়নি৷‌ আমরা এই ঘটনার সি বি আই তদম্ত চাইছি৷‌ বৃহস্পতিবার রাতের ঘটনা নিয়ে মুখ খুলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি৷‌ বীরভূমে নলহাটিতে প্রচারে যাওয়ার আগে মালদা এয়ারপোর্টে মুখ্যমন্ত্রী এদিন বলেন, আমার শরীর ভাল নেই৷‌ বৃহস্পতিবার রাতে যে গ্যাস নাকে ঢুকেছিল তাতে সারা রাত কষ্ট পেয়েছি৷‌ ঘুমোতে পারিনি৷‌ আমি বাথরুমে ছিলাম৷‌ হঠাৎ জোর শব্দ৷‌ জয়দীপ চিৎকার করল, আমি বাথরুম থেকে বেরিয়ে পড়লাম৷‌ হোটেলের ঘরে এত গন্ধ, কালো ধোঁয়ায় ভরে গেছে গোটা ঘর৷‌ জয়দীপ একটা লেপ গায়ে দিয়ে আমাকে বের করে আনে৷‌ কালকে সারারাত অক্সিজেন নিয়েছি৷‌ স্যালাইন নিতে হয়েছে৷‌ ডাক্তার বলেছেন বিশ্রাম নিতে৷‌ বললেই কী হয়৷‌ এই সময় নির্বাচন৷‌ ঘরে থাকা যায় না৷‌ এ কথা বলে হেলিকপ্টারে উঠে পড়েন মুখ্যমন্ত্রী৷‌

এদিকে বৃহস্পতিবার রাতে হোটেলে আগুন এবং ধোঁয়া কাণ্ড নিয়ে আরও জোরদার করা হয়েছে মুখ্যমন্ত্রীর নিরাপত্তা ব্যবস্হা৷‌ শুক্রবার বিকেলে ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরা মালদায় এসে তদম্ত করে গেছেন৷‌ মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি যে ঘরে ছিলেন সেই ঘরের খুঁটিনাটি দেখে গেছেন তাঁরা৷‌ শুক্রবার সকাল থেকেই পুলিস কুকুর, দমকল, মুখ্যমন্ত্রীর দায়িত্বে থাকা নিরাপত্তা কর্মীরা ছিলেন তৎপর৷‌ তবে এই ঘটনার পরেও মুখ্যমন্ত্রী ওই হোটেলেই রয়েছেন৷‌ এই মুহূর্তে ওই হোটেল ছাড়ার কথা ভাবছে না তাঁর দল৷‌ মালদা দমকলের ও সি সাইদুল ইসলাম জানিয়েছেন, ঘটনা তদম্ত করে দেখা হচ্ছে, বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ নেওয়া হচ্ছে৷‌ ফায়ার অ্যাক্টে পুরাতন মালদা থানায় হোটেল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে৷‌ তাতে উল্লেখ করা হয়েছে রক্ষণাবেক্ষণের অভাবের কারণে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনাটি ঘটেছে৷‌ এই ঘটনা নিয়ে গোল্ডেন পার্ক হোটেলের মালিক দিলীপ আগরওয়ালকে রাত থেকে দফায় দফায় জেরা করেন দমকল, জেলা পুলিসের পদস্হ কর্তারা৷‌ দিলীপ আগরওয়াল জানিয়েছেন, ২০০৫ সালে তাঁর হোটেলটি নারায়ণপুর এলাকার ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের ধারে চালু হয়৷‌ এবার নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী পাঁচবার এই হোটেলে উঠেছেন৷‌ তিনি জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার দুপুরে হোটেলের সামনে ৬৩ কেভি ট্রান্সফর্মার সরিয়ে ১০০ কেভি ট্রান্সফর্মার বসিয়েছিলেন বিদ্যুৎ দপ্তরের কর্মীরা৷‌ এর পরই সমস্যা দেখা দেয়৷‌ ট্রান্সফর্মার চালু করার পর থেকেই শর্টসার্কিট হয়েছে৷‌ পরে রাত সাড়ে ৭টা নাগাদ ১০০ কেভি-র ট্রান্সফর্মার থেকে লাইন স্হানাম্তরিত করে বিদ্যুতের লাইন জুড়ে দিয়ে পরিস্হিতি স্বাভাবিক করা হয়৷‌ দিলীপবাবু বলেন, ট্রান্সফর্মার বদল না করলে হয়ত এই ধরনের ঘটনা ঘটত না৷‌ তাহলে কি ট্রান্সফর্মার সরানোর কথা বিদ্যুৎ দপ্তরকে বলেছিলেন হোটেল কর্তৃপক্ষ? দিলীপ আগরওয়াল বলেন, এ ব্যাপারে কোনও কথাই হয়নি বিদ্যুৎ দপ্তরের সঙ্গে৷‌ তবে তাঁর হোটেলে রক্ষণাবেক্ষণের যে অভিযোগ তোলা হচ্ছে তা ঠিকও নয়৷‌ বৃহস্পতিবার রাত থেকে মুখ্যমন্ত্রীর ঘরে আগুন, ধোঁয়ার ঘটনা ঘটে যাওয়ায় সারারাত তাঁর ঘুম হয়নি৷‌ পুলিস অফিসারদের ঘন ঘন জেরার মুখে পড়তে হয়েছে তাঁকে৷‌ এদিকে পুরাতন মালদা থানার নারায়ণপুর এলাকাটি শিল্পাঞ্চল এলাকা হিসেবেই গড়ে উঠেছে৷‌ ওই এলাকাতেই রয়েছে এই পাঁচতারা হোটেলটি৷‌ শিল্পতালুকের মালিকদের অভিযোগ, অনিয়মিত বিদ্যুৎ সরবরাহ, লো-ভোল্টেজ একটি বড় সমস্যা৷‌ এই খবর জানা ছিল বিদ্যুৎ দপ্তরের কর্তাদের৷‌ মুখ্যমন্ত্রী যে হোটেলে রয়েছেন, সেই হোটেলে যাতে বিদ্যুতের সমস্যা না হয় তার জন্য নিজেরাই উদ্যোগ নিয়ে হোটেলের বাইরে কমজোরি ট্রান্সফর্মারটি বদলে দিয়েছেন৷‌ আর এতেই হিতে বিপরীত হয়ে গেছে৷‌ এমনটাই মনে করছেন মালদা জেলা মার্চেন্ট চেম্বার অফ কমার্সের সভাপতি তথা নারায়ণপুর স্মল ইন্ডাস্ট্রিজ অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য জয়ম্ত কুণ্ডু৷‌ মালদা রেঞ্জের ডি আই জি সত্যজিৎ ব্যানার্জি জানিয়েছেন, কলকাতা থেকে ফরেনসিক বিশেষজ্ঞদের একটি দল এসেছিল৷‌ কী করে মুখ্যমন্ত্রীর ঘরে অগ্নি সংযোগ এবং ধোঁয়ার ঘটনা ঘটল তা তদম্ত করে দেখছেন তাঁরা৷‌ শুক্রবার দেখেছেন এবং শনিবারও দেখবেন৷‌ তবে ফরেনসিক দল এ ব্যাপারে কোনও মম্তব্য করতে চায়নি৷‌






bangla || bharat || bidesh || editorial || post editorial || khela || sangskriti ||
ghoroa || tv/cinema || Tripura || Error Report || archive || first page

B P-7, Sector-5, Bidhannagar, Kolkata - 700091, Phone: 30110800, Fax: 23675502/5503
Copyright © Aajkaal Publishers Limited

Designed, developed & maintained by   Remote Programmer Private Limited