Aajkaal: the leading bengali daily newspaper from Kolkata
কলকাতা ১৩ ভাদ্র ১৪২১ শনিবার ৩০ আগস্ট ২০১৪
 প্রথম পাতা   কলকাতা  বাংলা  ভারত  সম্পাদকীয়  উত্তর সম্পাদকীয়  খেলা  সংস্কৃতি  ঘরোয়া  পর্দা  আজকাল-ত্রিপুরা   পুরনো সংস্করন  বইঘর 
বি জে পি-কে রুখতে দরকার বামেদের সঙ্গে জোট: মমতা ।। মুখ্যমন্ত্রী: বাংলার প্রকল্পই দিল্লি নাম বদলে চালাচ্ছে--রিনা ভট্টাচার্য ।। সুদীপ্তর সুদীপার খোঁজে সি বি আই--সব্যসাচী সরকার, অগ্নি পান্ডে ।। দরকারে হিমঘরের আলু বের করে বিক্রি ।। নগ্ন ছবি তুলে ব্ল্যাকমেল--নির্যাতিতা ছাত্রীকে নিয়ে বিশ্বভারতী ছাড়লেন বাবা ।। অর্থতত্ত্বের মালিককে কলকাতায় এনে সোনা-ব্যবসায়ীদের জেরা --বরেন্দ্রকৃষ্ণ ধল ।। চলছে চূড়াম্ত প্রস্তুতি, ১ সেপ্টেম্বরের মহামিছিলের অবয়ব আরও বাড়বে! ।। পুঁজির খোঁজে শিল্পপতিদের নিয়ে আজ শুরু মোদির জাপান সফর ।। ঋতব্রতর নেতৃত্বে সুনিয়ায় বাম ছাত্র-যুব প্রতিনিধিরা ।। বসিরহাট দক্ষিণে তৃণমূল হারলে পুরবোর্ড থেকে সরে যাবে: মুকুল ।। সাইনার বিদায়ের দিনে উজ্জ্বল সিন্ধু ।। হকার পুনর্বাসন রিপোর্ট জমা মহানাগরিককে
বাংলা

চলছে চূড়াম্ত প্রস্তুতি, ১ সেপ্টেম্বরের মহামিছিলের অবয়ব আরও বাড়বে!

বি জে পি-কে রুখতে দরকার বামেদের সঙ্গে জোট: মমতা

মুখ্যমন্ত্রী: বাংলার প্রকল্পই দিল্লি নাম বদলে চালাচ্ছে

সুদীপ্তর সুদীপার খোঁজে সি বি আই

ঋতব্রতর নেতৃত্বে সুনিয়ায় বাম ছাত্র-যুব প্রতিনিধিরা

দরকারে হিমঘরের আলু বের করে বিক্রি

সারদা-কাণ্ড থেকে বাঁচতে বি জে পি-র কাছে আসতে চাইছে তৃণমূল: অধীর

নগ্ন ছবি তুলে ব্ল্যাকমেল

তাপস পাল: তৃতীয় বিচারপতি নিশিতা মাত্রে

নতুন নীতিতে সিঙ্গুরে জমি ফেরানোর সুযোগ রয়েছে: মুখ্যমন্ত্রীকে মেধা

ক্ষতিপূরণের দাবিতে ডেপুটেশনে পুলিসি হেনস্তার মুখে ক্ষতিগ্রস্তরা

এন টি পি সি-র তাপবিদ্যুৎ: সবুজ সঙ্কেত

বসিরহাট দক্ষিণে তৃণমূল হারলে পুরবোর্ড থেকে সরে যাবে: মুকুল

গতি ভ্রম ঘটাতে মণ্ডপ

সড়ক, পর্যটন, মোনো রেলে বিনিয়োগে আগ্রহী মালয়েশিয়া

রেহাই মিলবে না, সি বি আই এবার পৌঁছবে হাসপাতালে: রাহুল সিনহা

আসানসোলের মানুষের জন্যই কাজ করছি: বাবুল

কল্যাণী বিশ্ববিদ্যালয়ে উচ্চশিক্ষা দপ্তরের তদম্তকারী দল

গণেশ চতুর্থী পালিত

চিটফান্ডের জন্য মানুষ সর্বস্বাম্ত, এবার এগিয়ে আসতে হবে সমবায়কে: শুভেন্দু

ওয়েবসাইটে তরুণীর নামে অশালীন বিজ্ঞাপন পোস্টের অভিযোগ

সরকার নাট্যকর্মীদের মর্যাদা দিয়েছে: ব্রাত্য

জয়নগরে আক্রাম্ত সরকারি অফিসার

কম জলে ধান, সবজি চাষ দেখে অভিভূত কৃষিমন্ত্রী

রেলকে শঙ্কুর হুঁশিয়ারি

লরি আটকে আলু লুট

ওঁদের প্রতিক্রিয়া

বিশেষ ট্রেন

রিকশা চালক খুন

ছাড়া পেলেন মদন

চলছে চূড়াম্ত প্রস্তুতি, ১ সেপ্টেম্বরের মহামিছিলের অবয়ব আরও বাড়বে!

Google plus share Facebook share Twitter share LinkedIn share

আজকালের প্রতিবেদন: স্লোগানে, পোস্টারে, ফেস্টুনে মূল লক্ষ্য অবশ্যই চলে আসবে আমেরিকা৷‌ কারণ বিশ্ব জুড়ে সাম্রাজ্যবাদী শক্তির মূল পান্ডা তো এরাই৷‌ পাশাপাশি সাম্রাজ্যবাদের হাত ধরে এ দেশের জনজীবনে প্রবলভাবে জাঁকিয়ে বসার চেষ্টা করছে যে এফ ডি আই, নয়া উদারনীতি, বেসরকারীকরণ, জল-জমি-জঙ্গলের কর্পোরেট লুট– সবই হয়ে উঠবে শাম্তি মিছিলের হাতিয়ার৷‌ গাজায় মার্কিন মদতপুষ্ট ইজরায়েলের আক্রমণের প্রতিবাদ তো থাকবেই, পাশাপাশি অবশ্যই উঠে আসবে জাতীয় লজ্জার কথা, এ দেশের সরকার এই মানবতা-বিরোধী যুদ্ধের নিন্দা পর্যম্ত করেনি৷‌ সংসদে একটা নিন্দা প্রস্তাব নিতেও তাদের আপত্তি! এই মনোভাব নিয়েই রাজ্য জুড়ে এখন প্রস্তুতি চলছে ১ সেপ্টেম্বর সাম্রাজ্যবাদ-বিরোধী মহামিছিলের৷‌ যুদ্ধের বিরুদ্ধে শাম্তি মিছিলের৷‌ এবারের মিছিল প্রকৃত অর্থেই মহামিছিল হয়ে উঠবে কলকাতায়৷‌ কারণ, এবারই রাজনীতির অন্যান্য বিরোধ সরিয়ে রেখে রাজ্যের ১৫টি বামপম্হী দল একত্রিত হয়েছে শাম্তি মিছিলের জন্য৷‌ প্রত্যেকেই নিজেদের মতো করে পোস্টার, ফেস্টুন, ট্যাবলো নিয়ে যোগ দেবে সেদিনের মহামিছিলে৷‌ রাজ্যে যাঁরা সাম্রাজ্যবাদের বিরোধিতা করে আন্দোলন করেন এরকম মঞ্চ, সামাজিক সংগঠন এবং বিশিষ্ট বুদ্ধিজীবী, শিক্ষক, সাহিত্যিক– সবাইকেই খোলা মনে আহ্বান জানিয়েছে বামফ্রন্ট-সহ ১৫ বামপম্হী দল৷‌ ফলে তাঁরা এলে এই মহামিছিলের অবয়ব ও ঐক্য যে আরও বাড়বে, সন্দেহ নেই৷‌ উল্লেখ্য, ১৯৩৯ সালের ১ সেপ্টেম্বর ফ্যাসিবাদী জার্মানি পোল্যান্ড আক্রমণ করেছিল৷‌ শুরু হয়েছিল দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ৷‌ যুদ্ধ শেষের পর থেকে এই দিনটি গোটা দুনিয়ায় বামপম্হীরা যুদ্ধবিরোধী দিবস হিসেবে পালন করে৷‌ ভারতবর্ষে, বিশেষত পশিমবঙ্গে যুদ্ধবিরোধী প্রচার ও শাম্তি মিছিলের মধ্য দিয়ে দিনটি পালিত হয়৷‌ রাজ্য বামফ্রন্ট প্রথম থেকেই দিনটিকে সাম্রাজ্যবাদ-বিরোধী মিছিলের মধ্য দিয়ে যুদ্ধের নিন্দা জানায়, শাম্তির দাবিতে মানুষকে সচেতন করার প্রয়াস করে৷‌ রাজ্যে বামফ্রন্টের সঙ্গে জোটে নেই এমন অনেক বামপম্হী দলও তাদের নিজেদের মতো করে দিনটি পালন করে আসছে অনেক দিন ধরে৷‌ বিশেষ করে নকশালপম্হী গণতান্ত্রিক দলগুলি৷‌ বামফ্রন্ট ইতিমধ্যেই রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় প্রচার সংগঠিত করেছে মহামিছিলের প্রস্তুতি হিসেবে৷‌ বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান জানিয়েছেন, মার্কিন মদতপুষ্ট ইজরায়েলের সেনাবাহিনী যেভাবে প্যালেস্টাইন আক্রমণ করেছে, তার নিন্দা না করাটাই অপরাধ৷‌ নিরীহ জনগণের ওপর হামলা চালাচ্ছে৷‌ নারকীয়ভাবে নিরীহ শিশু, মহিলাদের ওপর হত্যালীলা চালাচ্ছে৷‌ এই ঘটনা একবিংশ শতাব্দীতে যে-কোনও শুভবুদ্ধিসম্পন্ন মানুষকেই উদ্বিগ্ন করেছে৷‌ এ জন্যই বিশেষ উদ্যোগ নিয়ে এবার কলকাতার মহামিছিলে ঐক্যবদ্ধ হয়েছে ১৫টি বামপম্হী দল৷‌ যাতে সাম্রাজ্যবাদ-বিরোধী, শাম্তিকামী মানুষ সবাই আসেন এই মহামিছিলে৷‌ এবার অনেক আগে থেকেই রাজ্য বামফ্রন্টের সভায় সমস্ত শরিক দল এই মহামিছিলকে কেন্দ্র করে বৃহত্তর বাম ঐক্যের কথা বলেছিল৷‌ সেই মতো সমস্ত শরিক দল এ ব্যাপারে উদ্যোগ নেওয়ার জন্য দায়িত্ব দেন বামফ্রন্টের চেয়ারম্যান বিমান বসুকে৷‌ বিমান বসু সি পি আই (এম এল) লিবারেশন, এস ইউ সি-সহ একাধিক বামপম্হী দলের সঙ্গে যোগাযোগ করেন ও বামফ্রন্টের প্রস্তাব নিয়ে আলোচনা করেন৷‌ এবং সহমত হয়ে ১৫টি বামপম্হী দল যৌথভাবে এই মহামিছিলের ঘোষণা করে৷‌ এই ১৫টি দল হল: সি পি এম, সারা ভারত ফরওয়ার্ড ব্লক, সি পি আই, আর এস পি, ডি এস পি, আর সি পি আই, মার্কসবাদী ফরওয়ার্ড ব্লক, বি বি সি, ওয়ার্কার্স পার্টি, বলশেভিক পার্টি, সি পি আই (এম এল) লিবারেশন, সি পি আই এম এল (সম্তোষ রানা), সি আর এল আই, এস ইউ সি আই (কমিউনিস্ট) এবং কমিউনিস্ট পার্টি অফ ভারত৷‌ লিবারেশনের পক্ষ থেকে ওই দিন আগে থেকেই পৃথক কিছু দলীয় কর্মসূচি ডাকা ছিল৷‌ তবু তারা জানিয়ে দিয়েছে, মহামিছিলেও যতটা সম্ভব সমস্ত অংশের মানুষকে নিয়ে আসার চেষ্টা চালাচ্ছে৷‌ ওই দিন বিকেলে লিবারেশনের ডাকে সমস্ত জেলায় জেলাশাসকের দপ্তরের সামনে গণঅবস্হান রয়েছে৷‌ ১০০ দিনের কাজ বন্ধ করার চক্রাম্তের বিরুদ্ধে এই অভিযান৷‌ দাবি, ন্যূনতম সরকারি মজুরি ২০৬ টাকা চালু করা৷‌ বি পি এল কার্ডের দাবিও রয়েছে৷‌ এই কর্মসূচির ডাক দিয়েছে লিবারেশনের সারা ভারত কৃষি মজুরি সমিতি এবং পশ্চিমবঙ্গ কৃষক সমিতি৷‌ লিবারেশনের রাজ্য সম্পাদক পার্থ ঘোষ জানিয়েছেন, এই সমস্যাগুলিও এসেছে সাম্রাজ্যবাদী শক্তির হাত ধরেই৷‌ তাই ১ সেপ্টেম্বর এই আন্দোলনের ডাক দেওয়া হয়েছে৷‌ তবে যে বৃহত্তর বাম শক্তি শাম্তি মিছিলের ডাক দিয়েছে, সেখানেও আমরা অত্যম্ত গুরুত্বের সঙ্গে অংশ নেব৷‌ গাজায় গণহত্যা বন্ধ করার দাবি, জল-জমি-জঙ্গলের ওপর কর্পোরেট লুট বন্ধের দাবি, ভারতকে এফ ডি আইয়ের মৃগয়াক্ষেত্র বানানোর প্রতিবাদ নিয়ে আমরা স্লোগান, পোস্টার বানাচ্ছি৷‌ সুদৃশ্য ট্যাবলোতেও থাকবে প্রতিবাদ৷‌ তিনি বলেন, ১৫ বাম দলের বৈঠকে প্রতিষ্ঠিত রাজনৈতিক দলগুলিকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে৷‌ তবে এর বাইরে যে সমস্ত সাম্রাজ্যবাদ-বিরোধী মঞ্চ, সংগঠন বা স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন রয়েছে, তাদেরও আমরা খোলা মনে আমন্ত্রণ জানাচ্ছি৷‌ এমনকী ব্যক্তিগত ভাবেও মানুষ মহামিছিলে আসুন, যাঁরা এই অমানবিক ধ্বংসলীলার নিন্দা করেন৷‌


kolkata || bangla || bharat || editorial || post editorial || khela || sangskriti ||
ghoroa || tv/cinema || Tripura || Error Report || archive || first page

B P-7, Sector-5, Bidhannagar, Kolkata - 700091, Phone: 30110800, Fax: 23675502/5503
Copyright © Aajkaal Publishers Limited

Designed, developed & maintained by   Remote Programmer Private Limited