Aajkaal: the leading bengali daily newspaper from Kolkata
কলকাতা ৫ কার্তিক ১৪২১ বৃহস্পতিবার ২৩ অক্টোবার ২০১৪
 প্রথম পাতা   কলকাতা  বাংলা  ভারত  সম্পাদকীয়  খেলা  আজকাল-ত্রিপুরা   পুরনো সংস্করন  বইঘর 
সারদা: সেন কমিশনের ইতি ।। সারদা-তদম্তে প্রথম চার্জশিট দিল সি বি আই ।। সারদার সম্পত্তির খোঁজে এবার রাজ্যের কাছে নথি চায় ই ডি ।। ভোট কোথায় পেলেন? বি জে পি-কে সি পি এম ।। সূর্যকাম্ত: মেহনতি মানুষ জাগছে বলেই বিভাজনের রাজনীতি বি জে পি, তৃণমূলের ।। অধীর: সাম্প্রদায়িক রাজনীতিকে হাতিয়ার করে বাংলা ভাগের চেষ্টা ।। উপাচার্যের মতে, প্রায় স্বাভাবিক যাদবপুর ।। বর্ধমান-কাণ্ডে দুই মহিলার জেল, হাসেমের পুলিস হেফাজত ।। নেই পুলিসের কড়াকড়ি, নুঙ্গিতে দেদার বিক্রি হচ্ছে শব্দবাজি ।। জোটসঙ্গী হতে বি জে পি-র দরবারে শিবসেনা নেতারা ।। রাত বাড়তেই ফাটল শব্দবাজি ।। দেশের নিরাপত্তার সমান দায় কেন্দ্র, রাজ্যের: প্রভাস
বাংলা

সূর্যকাম্ত: মেহনতি মানুষ জাগছে বলেই বিভাজনের রাজনীতি বি জে পি, তৃণমূলের

সারদা-তদম্তে প্রথম চার্জশিট দিল সি বি আই

কেশপুরে গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে গুলি, খুন তৃণমূল নেত্রী

সারদা: সেন কমিশনের ইতি

সারদার সম্পত্তির খোঁজে এবার রাজ্যের কাছে নথি চায় ই ডি

দাম মগডালে! গৃহস্হের হাত পুড়েছে চেনা ফলমূলে

রাত বাড়তেই ফাটল শব্দবাজি

জেলাস্তরে সব হাসপাতালে চিকিৎসা নিখরচায়

বলিনি, সব মাদ্রাসায় জঙ্গি কাজ হয়: রাহুল

নেই পুলিসের কড়াকড়ি, নুঙ্গিতে দেদার বিক্রি হচ্ছে শব্দবাজি

বর্ধমান-কাণ্ডে দুই মহিলার জেল, হাসেমের পুলিস হেফাজত

ভাতারে ইউসুফ বোরহানের কেনা জমির মালিককে ডাকল এন আই এ

অধীর: সাম্প্রদায়িক রাজনীতিকে হাতিয়ার করে বাংলা ভাগের চেষ্টা

মেলা, খেলা, দানধ্যান চিটফান্ডের টাকাতেই: মাওবাদীদের প্রচারপত্র

দেশের নিরাপত্তার সমান দায় কেন্দ্র, রাজ্যের: প্রভাস

ঘিসিংয়ের নামে তোলাবাজি

হরিপ্রসাদ খুন: মূল অভিযুক্তের জেল

শুক্রবার এন আই এ-র ডি জি রাজ্যে আসছেন

সূর্যকাম্ত: মেহনতি মানুষ জাগছে বলেই বিভাজনের রাজনীতি বি জে পি, তৃণমূলের

Google plus share Facebook share Twitter share LinkedIn share

আজকালের প্রতিবেদন: নিজেরা ক্রমশ ক্ষয়িষুž হচ্ছে৷‌ বুঝতে পারছে, মেহনতি মানুষের আন্দোলন তীব্র হতে পারে৷‌ তাই কেন্দ্রের বি জে পি সরকার আর রাজ্যে তৃণমূল সরকার, উভয়েই বিভাজনের রাজনীতি শুরু করেছে৷‌ যাতে কৃষকের আত্মহত্যা, বেকারত্ব, নারী-নির্যাতন, চিটফান্ড, বিনিয়ন্ত্রণ, বেসরকারীকরণ, এমনকি খিদে ভুলেও মেহনতি মানুষ ধর্মের ভিত্তিতে দু’ভাগ হয়ে থাকে৷‌ কৃষক নেতা বিনয় কোঙারের স্মরণসভায় বিরোধী দলনেতা সূর্যকাম্ত মিশ্র থেকে শুরু করে বিভিন্ন কৃষক সংগঠনের নেতাদের মুখে উঠে এল এ-কথা৷‌ সূর্যকাম্ত মিশ্রের ভাষায়: স্বাধীন পশ্চিমবঙ্গে এই বিপদ আগে দেখা যায়নি৷‌ বললেন, এমন সমস্যার মোকাবিলায় বিনয় কোঙার বলতেন, শ্রেণীসংগ্রাম আর গণসংগ্রামের মাধ্যমে মেহনতি মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করাই একমাত্র পথ৷‌ দরকারে ঝান্ডা সরিয়ে রেখে দেশের জন্য, রাজ্যের জন্য ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধে যেতে হবে৷‌ বৃহস্পতিবার মৌলালি যুবকেন্দ্রে স্মরণসভার আয়োজন করেছিল পশ্চিমবঙ্গ প্রাদেশিক কৃষক সভা৷‌ এসেছিলেন ঝাড়খণ্ড, ওড়িশা কৃষক সভার প্রতিনিধিরাও৷‌ বামফ্রন্টের শরিক দলের কৃষক সংগঠনের নেতারাও উপস্হিত ছিলেন৷‌ এদিন শুরুতে কৃষক সভার রাজ্য সভাপতি মদন ঘোষ, সম্পাদক নৃপেন চক্রবর্তী বিনয় কোঙারের স্মৃতিচারণ করেন৷‌ প্রবোধ পান্ডা বলেন, বিনয়দা রাজ্যের কৃষক আন্দোলনের শীর্ষস্হানীয় নেতা ছিলেন৷‌ বলতেন, কৃষকদের মধ্যে সংগ্রামী পরিবেশ গড়ে তুলে তাঁদের শ্রেণীসংগ্রামে নিয়ে আসতে হবে৷‌ গণতন্ত্র রক্ষা ও ধর্মনিরপেক্ষতাকে বাঁচানোর এটাই পথ৷‌ সারা ভারত অগ্রগামী কৃষক সভার পক্ষে হাফিজ আলম সাইরানি বলেন, রাজনৈতিক দর্শনে আস্হা অটুট রেখে কৃষকের যে-কোনও সমস্যা সমাধানের পথ বাতলে দিতে পারতেন বিনয়দা৷‌ তিনি বলেন, মনে রাখতে হবে এক দিকে সমস্ত বিভেদকামী শক্তি প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষে জাতপাত, ধর্মের ভিত্তিতে ঐক্য নষ্ট করতে চাইছে৷‌ অন্য দিকে ঐক্যই যাদের রাজনীতি, সেই বামেরা৷‌ বামেদের সমস্ত শক্তিকে আজ তাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে লড়াই করতে হবে মেহনতি মানুষকে নিয়ে৷‌ সংযুক্ত কিসান সভার সুভাষ নস্কর বলেন, কৃষকের স্বার্থে, শ্রমিকের স্বার্থে আজ সকলেই যে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের কথা বলছেন, দরকারে ঝান্ডা সরিয়ে কৃষকের স্বার্থে আন্দোলনের কথা বলছেন, তার সঙ্গে আমি সহমত৷‌ বিনয় কোঙারকে যেটুকু দেখেছি তাতে তিনিও এই পথের কথাই বলতেন৷‌ বিরোধী দলনেতা সূর্যকাম্ত মিশ্র এদিন বলেন, স্বাধীনতার পর থেকে যে কৃষক আন্দোলন হয়েছে তা নব্বইয়ের দশক থেকে অনেকটাই বদলে গেছে৷‌ উদার অর্থনীতির চাপে কৃষকের সমস্যাও অনেক বদলেছে৷‌ সারের দাম, কীটনাশকের দাম, সেচের জলের দাম, বিদ্যুতের দাম ইত্যাদি নিয়ে নতুন করে সমস্যায় পড়তে হয়েছে কৃষককে৷‌ দেশের সরকারও তাদের কৃষিনীতি বদলেছে উদারনীতির স্বার্থে৷‌ দেশের সর্বত্র এখন কৃষিমজুরের সংখ্যা কমছে, বাড়ছে ভূমিহীন৷‌ কৃষি শ্রমিক অকৃষি শ্রমিকে বদলে যাচ্ছেন৷‌ বিনয়দা বলতেন, এই শ্রমিক শ্রেণীকে সংগঠিত করতে হবে৷‌ না হলে কৃষিও বাঁচবে না, শ্রমিকও বাঁচবে না৷‌ সম্প্রতি রাজ্য জুড়ে কৃষক জাঠার সাফল্যের কথা তুলে ধরে সূর্যকাম্ত মিশ্র বলেন, বামফ্রন্টের শরিক দলগুলি শুধু নয়, ফ্রন্টের বাইরে থাকা সমস্ত বামপম্হীকে এবং প্রকৃত গণতান্ত্রিক ধর্মনিরপেক্ষ শক্তিকে সঙ্গে নিয়ে এমন আন্দোলন করতে হবে৷‌ কেননা বাংলা আজ যে-চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি তা আগে কখনও হয়নি৷‌ এই প্রথম, দেশে এবং কিছু রাজ্যে আর এস এসের মতো হিন্দুত্ববাদী সংগঠন আগে কখনও একক ক্ষমতায় আসেনি৷‌ দ্বিতীয়ত, এরা ক্ষমতায় এসে দক্ষিণপম্হী অর্থনীতিকে আরও দ্রুততার সঙ্গে লাগু করছে৷‌ ফলে রাতারাতি রেলভাড়া বাড়ছে, ব্যাঙ্ক, বিমা থেকে শুরু করে দেশের প্রতিরক্ষাও সরাসরি বিদেশি পুঁজির হাতে তুলে দিচ্ছে৷‌ ২২ মাসে লিটারপিছু ১১ টাকা বাড়ানোর পর হালে পেট্রল, ডিজেলের দাম ৩ টাকা কমিয়ে খুব প্রচার চালাচ্ছে৷‌ সূর্যকাম্ত বলেন, এটা আসলে ফের ৬ টাকা বাড়ানোর ক্ষেত্র প্রস্তুত করছে৷‌ এটাই বাজারের নীতি৷‌ বিনিয়ন্ত্রণের ফল৷‌ তিনি বলেন, এ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী যখন সিঙ্গাপুরে, প্রধানমন্ত্রী যখন জাপানে, তখন রাজ্যে ও দেশে একের পর এক কারখানায় তালা ঝুলছে৷‌ গ্রামে বেকারত্ব তীব্র হচ্ছে৷‌ দুই সরকারই প্রত্যক্ষ কর কমিয়ে পরোক্ষ কর বাড়াচ্ছে৷‌ যাতে সাধারণ মানুষের হাত থেকে বেশি টাকা তুলে নেওয়া যায়৷‌ ফলে অল্প কিছু মানুষের অর্থ বেড়েই চলেছে৷‌ তিনি বলেন, সাধারণ মেহনতি মানুষের পিঠ দেওয়ালে ঠেকে গেছে৷‌ তারা আন্দোলন তীব্র করতে চলেছে বুঝেই ওরা এখন বিভাজনের রাজনীতি করতে শুরু করেছে৷‌ বর্ধমান বিস্ফোরণ নিয়ে রাজ্য সরকারের অবস্হান কী? প্রমাণ ধামাচাপা দেওয়া? আসলে নরম সাম্প্রদায়িক তাস খেলছেন৷‌ অন্য দিকে এন আই এ এসে একের পর এক গ্রেপ্তারের পর বি জে পি এখন প্রচার শুরু করে দিয়েছে মাদ্রাসা আর মুসলমানদের বিরুদ্ধে৷‌ সামনেই আর এস এস প্রধান আসছেন কলকাতায় জনসভা করবেন৷‌ অনুপ্রবেশ, শরণার্থী, রামমন্দির, গো-হত্যা ইত্যাদি নিয়ে বলবেন নিশ্চয়ই৷‌ এভাবে দুটি দলই আসলে মেহনতি মানুষের নজর ঘোরাতে বিভাজনের রাজনীতি করছে৷‌ লক্ষ্য ওদের মেরুকরণ৷‌ তাতে এই দুটি দলেরই লাভ৷‌ ক্ষতি বাংলার৷‌





kolkata || bangla || bharat || editorial || khela || Tripura || Error Report || archive || first page

B P-7, Sector-5, Bidhannagar, Kolkata - 700091, Phone: 30110800, Fax: 23675502/5503
Copyright © Aajkaal Publishers Limited

Designed, developed & maintained by   Remote Programmer Private Limited