Aajkaal: the leading bengali daily newspaper from Kolkata
কলকাতা ৩০ ভাদ্র ১৪২১ মঙ্গলবার ১6 সেপ্টেম্বর ২০১৪
 প্রথম পাতা   কলকাতা  বাংলা  ভারত  বিদেশ  সম্পাদকীয়  উত্তর সম্পাদকীয়  খেলা  আজকাল-ত্রিপুরা   পুরনো সংস্করন  বইঘর 
চিটফান্ড নিয়ে রাস্তায় বামেরা, এরপর জবাব চাইতে নবান্নে? ।। ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের তিন কর্তাকে জেরা ।। সারদার জালিয়াতি: তদম্ত শেষ করল এস এফ আই ও ।। আজ দুই উপনির্বাচনের ফল দুপুরের মধ্যে ।। প্রয়াত বিনয় কোঙারকে চোখের জলে বিদায় দিলেন বর্ধমানবাসী ।। আজ মেমারিতে শেষকৃত্য সইফুদ্দিন চৌধুরির ।। কাঁচরাপাড়ায় বামপম্হীদের রেল অবরোধ--দফায় দফায় তৃণমূলি হামলা, বোমা, গুলি ।। ব্যবধান কমলেও জিতব: তৃণমূল --দীপঙ্কর নন্দী ।। রুষ্ট হবে চীন? প্রণবের সফরে ভিয়েতনামের সঙ্গে সমুদ্র চুক্তি ।। এবার শাসন ক্ষমতায় এলে ৫০ বছর থাকব: গৌতম ।। ভূস্বর্গে ত্রাতা ভাগলপুরের সৌরভ ।। হলদিয়া পেট্রোকেম: বিশেষ: দল পূর্ণেন্দুর
বাংলা

চিটফান্ড নিয়ে রাস্তায় বামেরা, এরপর জবাব চাইতে নবান্নে?

ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের তিন কর্তাকে জেরা

এবার শাসন ক্ষমতায় এলে ৫০ বছর থাকব: গৌতম

হলদিয়া পেট্রোকেম: বিশেষ: দল পূর্ণেন্দুর

ব্যবধান কমলেও জিতব: তৃণমূল

সি জি ও কমপ্লেক্স ছাড়া লাগোয়া দুটি রাস্তায় ১৪৪ ধারা জারি

সিকিম-কাণ্ডে উপাচার্যকে জিজ্ঞাসাবাদ

প্রয়াত বিনয় কোঙারকে চোখের জলে বিদায় দিলেন বর্ধমানবাসী

কাঁচরাপাড়ায় বামপম্হীদের রেল অবরোধ

আজ মেমারিতে শেষকৃত্য সইফুদ্দিন চৌধুরির

মামলা প্রত্যাহার, স্বীকৃতি ফিরছে ভক্তবালা বি এডের

ধূপগুড়ি ধর্ষণ-কাণ্ড: সি বি আই তদম্তের দাবিতে হাইকোর্টে মামলা বাবার

৫ বছর কাজ করতে চাই, উন্নয়ন করতে চাই, ভুল হলে বলবেন: দেব

আজ দুই উপনির্বাচনের ফল দুপুরের মধ্যে

প্রেমিক আত্মঘাতী প্রেমিকার বাড়িতে

টাওয়ারের সম্পত্তি মূল্যায়নের নির্দেশ

বিশ্বকর্মা পুজোয় অর্ধদিবস ছুটি

চিটফান্ড নিয়ে রাস্তায় বামেরা, এরপর জবাব চাইতে নবান্নে?

Google plus share Facebook share Twitter share LinkedIn share

আজকালের প্রতিবেদন: আক্রমণাত্মক মেজাজে শাসক দলের মন্ত্রী, বিধায়ক, সাংসদদের গ্রেপ্তারের দাবিতে পথে নামল সি পি এমের ৪ গণসংগঠন৷‌ সঙ্গে ছিলেন সারদা-সহ চিটফান্ডে প্রতারিত আমানতকারীরাও৷‌ সুবোধ মল্লিক স্কোয়্যারে এদিন জমায়েতের ডাক দিয়েছিল ভারতের ছাত্র ফেডারেশন, গণতান্ত্রিক যুব ফেডারেশন, সিটু এবং সারা ভারত গণতান্ত্রিক মহিলা সমিতি৷‌ দুপুর দুটোয় মিছিল শুরুর কথা থাকলেও তখন সামনের রাস্তা বেনজির যানজটে জেরবার৷‌ চারদিক দিয়ে তখন মিছিল আসতে শুরু করেছে৷‌ গোড়ায় পুলিসসের হেলদোল না থাকলেও পরে তৎপর হয় পুলিস৷‌ সারদা নিয়ে এদিন যেন একটু বেশি আক্রমণাত্মক ছিলেন বামেরা৷‌ মদন, মুকুল, রজতের পাশাপাশি এদিন সরাসরি মমতা ব্যানার্জির নামে স্লোগান শুরু করে দেয় ‘অলিগলি মে শোর হ্যায়’ বলে৷‌ মমতা ব্যানার্জিকে জেরা করতে হবে বলেও দাবি ওঠে৷‌ বড়সড় মিছিল যায় ওয়েলিংটন হয়ে এস এন ব্যানার্জি রোড ধরে রানী রাসমনি অ্যাভিনিউতে৷‌ সি পি এম নেতা সুজন চক্রবর্তী সরাসরি বলেই দিলেন, আরও কিছুদিন দেখব৷‌ রাস্তাতেই আছি৷‌ এর পর থানায় থানায় মিছিল যাবে৷‌ তারপর সমস্ত বিডিও অফিসে৷‌ তারপর জেলাশাসকদের অফিসে৷‌ রাজ্য উত্তাল করে তুলব৷‌ জেলা থেকে প্রতারিত আমানতকারীরা, ভাইয়েরা, বোনেরা, শিশু কোলে নিয়ে মায়েরা গঙ্গা পার হয়ে নবান্নে চলে যাবে৷‌ মমতা ব্যানার্জির কাছে জবাব চাইবে৷‌ আমরা আন্দোলনকে সেদিকেই নিয়ে যাব৷‌ গণতান্ত্রিক যুব ফেডারেশনের রাজ্য সম্পাদক জামির মোল্লা সরকারকে সরাসরি চোর বলেন৷‌ বলেন, সারদা ১৮ লক্ষ মানুষের টাকা নয়ছয় করেছে৷‌ আর এই পরিবর্তনের সরকার তাতে সাহায্য করেছে, ভাগ নিয়েছে৷‌ সরকারকেই এই টাকা ফেরতের দায় নিতে হবে৷‌ ১০৪ জন এজেন্ট ও আমানতকারী আত্মহত্যা করেছেন৷‌ এর মূল্য কড়ায়গন্ডায় মেটাতে হবে রাজ্য সরকার ও শাসক দলকে৷‌ সারা ভারত গণতান্ত্রিক মহিলা সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য রেখা গোস্বামী বলেন, সুদীপ্ত সেন যেদিন পালায় তার পর দিন হাজার হাজার মা- বোন কেন তৃণমূল ভবন আর কালীঘাটে গিয়ে টাকা ফেরত চাইছিলেন? অসহায় হাজার হাজার মা-বোনেরা সেদিন জানিয়ে ছিলেন, আমরা তো দিদির ছবি দেখে আর মুকুল রায়, মদন মিত্রের ছবি দেখেই সারদার এজেন্টদের বিশ্বাস করে টাকা রেখেছিলাম৷‌ অথচ মমতা বলছেন, সেই ১ বৈশাখের আগে তিনি নাকি সুদীপ্তকে বা সারদার কথা জানতেনই না৷‌ আজ সি বি আই তদম্ত যত এগোচ্ছে, ততই সারদা, মমতা আর চিটফান্ডের সম্পর্ক মানুষের কাছে স্পষ্ট হয়ে উঠছে৷‌ এদিন শুরু থেকেই মিছিলে সরব ছিলেন সিটুর রাজ্য সভাপতি শ্যামল চক্রবর্তী৷‌ তিনি বলেন, সারদা নিয়ে মমতা ব্যানার্জির একটি নবরত্ন সভা ছিল৷‌ রত্নরা হলেন, মুকুল, মদন, শতাব্দী, কুণাল, ইমরান, সৃঞ্জয়, আসিফ খান, রজত মজুমদার, শ্যামাপদ মুখোপাধ্যায়৷‌ এই নবরত্নের সভায় তা-ও ‘চন্দননগরের মাল’কে রাখলাম না৷‌ তাহলে তো বারো ভুঁইয়া যাবে৷‌ শ্যামল চক্রবর্তী এদিন বলেন, যুদ্ধে হেরে গেলে যেমন সেনাপতি বদলানো হয় মমতা ব্যানার্জি, তেমনি মদন, মুকুল-কে সরিয়ে পার্থ চ্যাটার্জিকে সেনাপতি করেছেন৷‌ এতে কি রেহাই পাবেন, তাই তো শুনছি ১৭টি কোম্পানি থেকে বিজ্ঞাপন নিয়েছেন৷‌ ইমরান প্রসঙ্গে সিটু সভাপতি এদিন বলেন, এমন একজনকে আপনি রাজ্যসভায় পাঠালেন? দেশকে তো বিপদের মুখে ঠেলে দিলেন৷‌ এর পর আপনাকে কি দেশদ্রোহী বলা ভুল হবে? প্রশ্ন শ্যামলের৷‌ সম্প্রতি মুকুল রায় একসভায় বলেছেন, তৃণমূলের সঙ্গে সারদার যোগ প্রমাণিত হলে রাজনীতি ছেড়ে দেবেন৷‌ সেই প্রসঙ্গ তুলে শ্যামলবাবু বলেন, মুকুলবাবু রাজনীতি ছাড়ার সুযোগই পাবেন না৷‌ কারণ তিনি সারদা মামলায় জেলে যাবেন৷‌ প্রথম থেকেই সাফারার্স ফোরামের সঙ্গে যৌথ আন্দোলনে সামিল সুজন চক্রবর্তী৷‌ তিনিও এদিন মিছিলে হাঁটেন৷‌ ধর্মতলার সভায় তিনি বলেন, চিটফান্ডে প্রতারিত, সর্বস্ব হারানো মানুষই এই আন্দোলনের মুখ৷‌ রাজ্য জুড়ে প্রতারিত মা-বোনেদের চোখের জল ঝরছে৷‌ একদিন এই প্রতারিত মানুষের স্রোত আর মায়েদের চোখের জল ভাসিয়ে নিয়ে যাবে শাসকদলের আড়ালে থাকা প্রতারকদের৷‌ তিনি বলেন আমরা বামপম্হীরা প্রথম থেকেই প্রতারিতদের পাশে আছি, তাঁদের টাকা ফেরতের দাবিতে সরব হয়েছি৷‌ আর যে মহিলারা রাজ্যে একের পর এক ধর্ষণের পর রাস্তায় নামেনি, তারা এখন আইনমন্ত্রীর নেতৃত্বে প্রতারকদের বাঁচাতে রাস্তায় নেমেছে, ধর্নায় বসেছেন৷‌ আমরাও রাস্তায় আছি৷‌ ততদিন রাস্তাতেই থাকব যতদিন অগুনতি চিটফান্ডের প্রতারিতরা তাঁদের অর্থ না ফেরত পাচ্ছে৷‌ তিনি বলেন, আমাদের চারটি দাবি৷‌ ১- সমস্ত চিটফান্ডে প্রতারিত মানুষের টাকা ফেরাতে হবে৷‌ ২- চিটফান্ডের মালিকদের ও তাদের সহায়তা করা শাসকদলের নেতা মন্ত্রীদের কাছ থেকে নয়ছয় হওয়া টাকা উদ্ধার করতে হবে৷‌ ৩- এই সব প্রতারক ও শাসকদলের নেতা, মন্ত্রী, সাংসদদের গ্রেপ্তার করে শাস্তির ব্যবস্হা করতে হবে৷‌ ৪- আমাদের ও সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে হবে৷‌ এদিন সুজন চক্রবর্তী বলেন, গোপনে মাঝরাতে ডেলো বাংলোয় কুণাল মুকুলকে দুপাশে নিয়ে বৈঠক করেছিলেন কি করেননি? সাফ জবাব চাই মুখ্যমন্ত্রীর৷‌ বলেন, আপনার সততার প্রতীক লেখা সাদা কাপড়ে কালি লেগেছে৷‌ মানুষের বিশ্বাস ভেঙে গেছে৷‌ অবিলম্বে সিবিআইয়ের সামনে জেরায় বসুন৷‌ না হলে বিশ্বাস ফিরবে না৷‌


kolkata || bangla || bharat || bidesh || editorial || post editorial || khela ||
Tripura || Error Report || archive || first page

B P-7, Sector-5, Bidhannagar, Kolkata - 700091, Phone: 30110800, Fax: 23675502/5503
Copyright © Aajkaal Publishers Limited

Designed, developed & maintained by   Remote Programmer Private Limited