Aajkaal: the leading bengali daily newspaper from Kolkata
কলকাতা ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২১ শনিবার ২২ নভেম্বর ২০১৪
 প্রথম পাতা   কলকাতা  বাংলা  ভারত  সম্পাদকীয়  উত্তর সম্পাদকীয়  খেলা  সংস্কৃতি  ঘরোয়া  পর্দা  আজকাল-ত্রিপুরা   পুরনো সংস্করন  বইঘর 
সি বি আই চোরেদের দালালি করছে: মমতা ।। সৃঞ্জয় গ্রেপ্তার ।। প্রয়োজনে ৩ ঘণ্টার ছুটি নিয়ে সি বি আই-তে যেতে রাজি মদন ।। সূর্যকাম্ত: ‘এবার ডানহাত, বাঁহাত, মাথাকে জেরা অম্তত করুক’ ।। ২৬শে গ্রামবাংলায় ধর্মঘটের ডাক বামপম্হী কৃষক-শ্রমিকের ।। মালদা-কাণ্ডের জের? বদলি পুকুরিয়ার ওসি ।। পরীক্ষায় বসতে দেওয়ার দাবিতে ঘেরাও প্রেসিডেন্সির উপাচার্য ।। শুভাপ্রসন্নর ২৬টি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট ‘ফ্রিজ’ করল ই ডি ।। অজয়-দামোদর সংযুক্তির প্রস্তাব রাজ্যের, আশ্বাস উমার ।। চিটফান্ড: সি বি আই সাংসদ, বিধায়ককে ডাকল ওড়িশায় ।। আর ব্ল্যাকবোর্ড নয় ।। চুপচাপ দলের কাজে বহিষ্কৃত আরাবুল!
বাংলা

সি বি আই চোরেদের দালালি করছে: মমতা

সূর্যকাম্ত: ‘এবার ডানহাত, বাঁহাত, মাথাকে জেরা অম্তত করুক’

আর ব্ল্যাকবোর্ড নয়

২৬শে গ্রামবাংলায় ধর্মঘটের ডাক বামপম্হী কৃষক-শ্রমিকের

উন্নতি চাইলে পরিবারবাদ থেকে ঝাড়খণ্ডকে মুক্ত করুন: মোদি

রাজ্যের, কেন্দ্রের দুই তদম্তকারী রিপোর্টেই সারদা গোষ্ঠীর ২৪৬০ কোটির হিসেব!

মালদা-কাণ্ডের জের? বদলি পুকুরিয়ার ওসি

মুলায়মের জন্মোৎসবে ধুমধাম

রাজ্যে বাংলাদেশের সাংসদ প্রতিনিধি দল

চুপচাপ দলের কাজে বহিষ্কৃত আরাবুল!

পারুই: শাম্তি বৈঠকে অভিযুক্ত তৃণমূল নেতা, বৈঠক বয়কট বি জে পি-র

আদর্শ গ্রাম প্রকল্পে রাজ্যের ভূমিকায় অসন্তুষ্ট আলুওয়ালিয়া

বাংলার পুলিস সারা দেশের সম্পদ: মমতা

এখনও বাকি ৩: রাহুল

ক্ষুদ্র, মাঝারি ও হস্তশিল্পীদের জন্য করা হবে ওয়েবপোর্টাল

রাস্তা তৈরি নিয়ে দুই গোষ্ঠীর বিবাদে আহত ৩, অবরোধ

রঘুনাথপুরে ডি ভি সি কিনতে টাটাদের ঢুকতে দেবে না সি পি এম

আমবাড়ির কাছে জম্মুগামী সেনা-বোঝাই ট্রেনে আগুন

বিচারকের সই-সিল নকল করে শ্রীঘরে আইনজীবী!

মাটি-বিরোধেই খুন জাহাঙ্গির?

পেট্রোকেমের পর হলদিয়ায় বড় লগ্নি গোয়েঙ্কাদের বিদ্যুৎ প্রকল্পে

সেলে মাওবাদীদের খাতা ঢুকিয়ে দিচ্ছে পুলিস: কুণাল

কাকদ্বীপে নতুন বকখালি!

৩.৬ সেকেন্ডে ১ মাইল

আদালতে জামিন পেলেন ৮ সি পি এম নেতা

লরির পিছনে অ্যাম্বুলেন্স, মৃত রোগী-সহ পঞ্চায়েত কর্তা

বর্ধমানে মহিলা থানার উদ্বোধন

সীমাম্ত নিয়ে বারাসতে ভারত-বাংলাদেশ বৈঠক

রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে পুলিসকে ব্যবহার, রাজ্যপালকে চিঠি দিল আর এস এস

বি পি এল তালিকায় নাম নথিভুক্তের কাজ শুরু

বাংলাদেশির কাছে জাল নোট

বহরমপুরের উত্তরপাড়ায় ১৪৪ ধারা তুলল প্রশাসন

শিল্পী সংসদ নির্বাচন

সি বি আই চোরেদের দালালি করছে: মমতা

Google plus share Facebook share Twitter share LinkedIn share



সুখেন্দু আচার্য: কল্যাণী, ২১ নভেম্বর– ফের সি বি আইয়ের সমালোচনায় মুখর হলেন তৃণমূল নেত্রী, মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি৷‌ শুক্রবার তাঁর দলের সাংসদ সৃঞ্জয় বসুকে গ্রেপ্তার করে সি বি আই৷‌ তার পরই এদিন কল্যাণীতে দলের কর্মী সম্মেলনে সি বি আইকে এক হাত নেন মুখ্যমন্ত্রী৷‌ বলেন, সি বি আই চোরেদের দালালি করছে৷‌ সাধারণ মানুষের টাকা ফেরানোয় ওদের কোনও মাথাব্যথা নেই৷‌ শুধু সারদার টাকা কে নিয়েছে৷‌ কে কোন মিটিংয়ে গেছে৷‌ তাদের পিছনেই দৌড়াচ্ছে৷‌ এটা ওদের এক্তিয়ারে নেই৷‌ সুপ্রিম কোর্ট শুধু সারদা নিয়ে বলেনি, সব চিটফান্ড নিয়েই তদম্তের কথা বলেছিল৷‌ কোথায় তদম্ত হচ্ছে? তৃণমূল নেত্রীর কটাক্ষ, সি বি আই, সেবি এতদিন কী করছিল৷‌ চিটফান্ড নিয়ে এতদিন তো তারা কোনও কথা বলেনি৷‌ চিটফান্ড আইন কেন্দ্রের, রাজ্যের নয়৷‌ অভিযোগ আসার পর আমরাই গ্রেপ্তার করেছি কয়েকজনকে, কিছু মানুষকে টাকা ফেরত দিয়েছি৷‌ আরও দিতাম৷‌ সি বি আই নিয়ে নিল৷‌ সারদার সম্পত্তি যারা ক্রোক করছে তারাই ক্ষতিপূরণ দেবে৷‌ সি বি আইয়ের পাশাপাশি এদিন বি জে পি-কেও কড়া আক্রমণ করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি৷‌ বলেন, দাঙ্গাগুরুদের জামানত জব্দ করে দেব৷‌ ভোটের কথা মাথায় রেখে মুখ্যমন্ত্রীর আরও কড়া মম্তব্য, দিল্লি রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র নগরী৷‌ সামনে ফুটবল ও ক্রিকেট খেলা রয়েছে, দেখব কে জেতে৷‌ এই ফুটবল ও ক্রিকেট খেলা বলতে মুখ্যমন্ত্রী যে আসন্ন কলকাতা পুরভোট ও আগামী বিধানসভা নির্বাচনকেই বুঝিয়েছেন তা বলাই বাহুল্য৷‌ কল্যাণী থানার সামনের মাঠে শুক্রবার ত্রিস্তর রাজনৈতিক কর্মী সম্মেলনে বক্তব্য পেশ করতে এসেছিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জি৷‌ সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য পেশ করেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, সুব্রত বক্সি, জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক, অশোক রুদ্র, চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য, মান্নান হোসেন, ব্রাত্য বসু, গৌরী দত্ত, সৌগত রায় প্রমুখ৷‌ ছাত্র-যুবদের উদ্দেশে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, তৃণমূল কংগ্রেস সবার৷‌ আপনারা দলের কাজে একটু সময় দেন৷‌ দেখবেন আমাদের কেউ হারাতে পারবে না৷‌ বাংলার মাটিতে এখন দাঙ্গাগুরুরা হিন্দু-মুসলিম ভাগ করতে চাইছে৷‌ মনে রাখবেন বাংলায় দাঙ্গাগুরুদের কোনও স্হান নেই৷‌ বাংলা দাঙ্গা চায় না– শাম্তি চায়৷‌ মৃত্যু নয়, বেঁচে থাকতে চায়৷‌ এটাই বাংলার স্লোগান৷‌ এর পর হুঁশিয়ারি দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, আমাকে দুর্বল ভাবার কোনও কারণ নেই৷‌ জোর করে আমার মাথা নত করা যায় না৷‌ মনে রাখবেন আমাকে কেউ আঘাত করলে তার রাজনৈতিক প্রত্যাঘাত করতে পারি৷‌ ওরা শুধু টিভি-তে আছে৷‌ মানুষের কাছে নেই৷‌ আমরা মানুষের সঙ্গে রয়েছি৷‌ তৃণমূল শুধু বাংলার দল নয়৷‌ সারা ভারতের দল৷‌ এর পর সভার উদ্দেশে বলেন, এখানে ৫০ হাজার মানুষ আছেন৷‌ বাংলার এমন কোনও জায়গা নেই যেখানে এক জায়গায় সব তৃণমূল কর্মীদের নিয়ে সভা করা যায়৷‌ এত মানুষ আছে বলেই আমরা গর্বিত৷‌ এর পর বি জে পি নেতৃত্বের উদ্দেশে বলেন, অনেকে ভাবেন একমাত্র তাঁরাই সোশ্যাল নেটওয়ার্ক খুলে কিছু বলতে পারেন৷‌ তা নয়, কয়েকদিনের মধ্যে আমরা একটা সোশ্যাল নেটওয়ার্ক খুলব৷‌ যাতে আমাদের অনেক বক্তব্য তার মাধ্যমে তুলে ধরতে পারি৷‌ এর পরই তৃণমূল নেত্রী ঘোষণা করেন, আশ্রয়হীন হিসেবে যারা পুরসভার জায়গায় বসবাস করছেন– পুরসভাগুলিতে তাদের আশ্রয় দেওয়া হবে৷‌ কলকাতা-সহ পুরসভার হকারদের পরিচয়পত্র দেওয়া হবে৷‌ যাতে যখন খুশি কেউ তাকে তুলে দিতে না পারে৷‌ আগামী ২ বছরের মধ্যে ১০ লক্ষ ছেলে-মেয়েদের বিশেষ ট্রেনিংয়ের ব্যবস্হা করা হবে৷‌ যাতে তাদের বেকারত্ব ঘোচানো যায়৷‌ পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, কেন্দ্রের বঞ্চনা সত্ত্বেও আমাদের রাজ্য মমতা বন্দ্যোপাধায়ের নেতৃত্বে শিক্ষা, স্বাস্হ্য, রাস্তাঘাট উন্নয়নে এগিয়ে চলছে৷‌ কংগ্রেস, বি জে পি, সি পি এম– ৩ দলই মিলে তৃণমূলের বিরুদ্ধে লাগাতার কুৎসা করে চলেছে৷‌ এ সবের বিরুদ্ধে আমাদের লাগাতার প্রচার চালাতে হবে৷‌ নদীয়া, উত্তর ২৪ পরগনা ও মুর্শিদাবাদ এই তিন জেলা নিয়ে ছিল এদিনের কর্মী সম্মেলন৷‌ সভা শুরু হওয়ার অনেক আগে থেকে মুর্শিদাবাদের হুমায়ুন কবীর সাংবাদিকদের সঙ্গে বসে ছিলেন৷‌ পরে অবশ্য ব্রাত্য বসু তাঁকে ডেকে নিয়ে সভাস্হলে যান৷‌

জেলায় জেলায় কোর কমিটি

কল্যাণীর কর্মী সম্মেলন থেকেই জেলায় জেলায় দলের কোর কমিটি গঠনের নির্দেশ দিলেন তৃণমূল নেত্রী৷‌ দলের নেতাদের উদ্দেশে তিনি বলেছেন, জেলা সভাপতির নেতৃত্বে গঠিত হবে ওই কোর কমিটি৷‌ কমিটিতে নতুন পুরনো উভয় নিয়ে গড়তে হবে৷‌ একই ভাবে ছাত্র যুব মহিলা সব বিভাগে এই কমিটি হবে৷‌ এই কমিটি ১৫ দিনের মধ্যে গড়ে ফেলতে হবে৷‌ তার তালিকা তৃণমূল নেত্রীর কাছে পাঠাতে হবে৷‌ ওই কমিটি জেলা নিয়ে প্রতিমাসে দু’বার বসে সব জানাতে হবে৷‌ মুর্শিদাবাদের ক্ষেত্রে ইন্দ্রনীল সেনের নেতৃত্বে হলেও মুকুল রায় মাঝেমধ্যে দেখবে৷‌ কিছু সমস্যা হলে তিনি নিজে বিষয়টি দেখবেন৷‌





kolkata || bangla || bharat || editorial || post editorial || khela || sangskriti ||
ghoroa || tv/cinema || Tripura || Error Report || archive || first page

B P-7, Sector-5, Bidhannagar, Kolkata - 700091, Phone: 30110800, Fax: 23675502/5503
Copyright © Aajkaal Publishers Limited

Designed, developed & maintained by   Remote Programmer Private Limited