Aajkaal: the leading bengali daily newspaper from Kolkata
কলকাতা ১৬ চৈত্র ১৪২১ মঙ্গলবার ৩১ মার্চ ২০১৫
 প্রথম পাতা   কলকাতা  বাংলা  ভারত  সম্পাদকীয়  উত্তর সম্পাদকীয়  খেলা  আজকাল-ত্রিপুরা   পুরনো সংস্করন  বইঘর 
দুই চিটফান্ডের জোড়া ধাক্কা হাইকোর্টে ।। দিন যাচ্ছে, তৃণমূলের লক্ষ্য এখন ১৩০ ।। সরকার ও পুরসভা একদলের হাতে থাকলে উন্নয়ন ভাল হবে বলে মনে করেন মুখ্যমন্ত্রী ।। ‘মালদার’ টুরিস্ট এসেছে!--খবর দিয়েছিল স্হানীয় যুবক ।। ছিল বাংলাদেশে অভ্যুত্থানের ছক! ।। দেড় দিনের বৃষ্টিতে বন্যা কাশ্মীরে ।। কলকাতার সব ওয়ার্ডে নারী বাহিনী বামেদের ।। ক্যাম্পাসে এ কী কাণ্ড! তদম্ত কমিটি যাদবপুরে ।। রাহুল ফিরছেন! ১৯ এপ্রিল দেখা যাবে কিসান সমাবেশে ।। বসিরহাট পুরসভা: লড়াই তৃণমূলের সঙ্গে সি পি এমের ।। কেজরিওয়াল: সব ঠিক আছে ।। অকেজো মন্ত্রী ছাঁটবেন মোদি
বাংলা

দুই চিটফান্ডের জোড়া ধাক্কা হাইকোর্টে

ছিল বাংলাদেশে অভ্যুত্থানের ছক!

তমলুকের পুরপ্রধানকে হারাতে একজোট ওঁরা

সরকার ও পুরসভা একদলের হাতে থাকলে উন্নয়ন ভাল হবে বলে মনে করেন মুখ্যমন্ত্রী

বসিরহাট পুরসভা: লড়াই তৃণমূলের সঙ্গে সি পি এমের

‘মালদার’ টুরিস্ট এসেছে!

কুলপিতে ব্যবসায়ীর বাড়িতে ডাকাতি

প্রথম কালবৈশাখী ঝড়ে বাজ পড়ে মৃত ৫ জন

হুগলি জেলা পরিষদের ৩ ফাইল উধাও?

কাশ্মীরে আটকে-পড়া পর্যটকদের পাশে রাজ্য

হুমকিতে ঘরছাড়া সি পি এম প্রার্থীর বাড়িতে লুটপাট

ভল্ট কেটে ব্যাঙ্ক থেকে লুট ২৪ লাখ

ঘাটাল কলেজের অধ্যক্ষ এবার তৃণমূল প্রার্থী!

ভোট পড়বে বেলা ৩টে পর্যম্তই

দুই চিটফান্ডের জোড়া ধাক্কা হাইকোর্টে

Google plus share Facebook share Twitter share LinkedIn share



শ্র এম পি এসের অফিস, রিসর্ট বন্ধ, ব্যাঙ্কে গচ্ছিত সম্পত্তি বাজেয়াপ্তের নির্দেশ৷‌

· প্রমথেশ মান্নাকে ১৪ দিন জেল হেফাজত৷‌

· রোজ ভ্যালির সমস্ত অ্যাকাউন্ট ৩ মাস খোলা যাবে না৷‌

আজকালের প্রতিবেদন: হাইকোর্টে জোড়া ধাক্কা খেল দুই চিটফান্ড সংস্হা এম পি এস এবং রোজ ভ্যালি৷‌ এম পি এসের রিসর্ট, অফিস ২৪ ঘণ্টার মধ্যে বন্ধ এবং ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট এবং ব্যাঙ্কে গচ্ছিত সম্পত্তিগুলি বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট৷‌ এদিকে সোমবারই বিধাননগর আদালত এম পি এস কর্তা প্রমথনাথ মান্নাকে ১৪ দিন জেল হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছে৷‌ অন্য দিকে রোজভ্যালির সমস্ত অ্যাকাউন্ট ৩ মাস খোলা যাবে না বলে হাইকোর্ট জানিয়ে দিয়েছে৷‌ এদিন হাইকোর্টে বিচারপতি জয়মাল্য বাগচীর এজলাসে রোজভ্যালির মামলাটি উঠলে রোজভ্যালি সংস্হার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার ওপর স্হগিতাদেশের আবেদন খারিজ করে দেন তিনি৷‌ এমনকী নতুন করে কোনও ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট খোলা কিংবা পুরনো কোনও অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে কাজ করার আবেদনও খারিজ হয়ে গেল৷‌ আগামী তিন মাসের মধ্যে ই ডি (এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট) যদি সুস্পষ্ট কোনও সিদ্ধাম্ত নিতে না পারে, ব্যবস্হা করতে না পারে, তখন হাইকোর্ট ব্যাপারটা ভেবে দেখবে৷‌ রোজভ্যালি সংস্হার সম্পত্তি আপাতত ১৫ হাজার কোটি টাকার৷‌ কর্ণধার গৌতম কুণ্ডু বিচারাধীন বন্দী৷‌ তাঁর সম্পত্তির বৈধতা, আমানতকারীদের সঙ্গে প্রতারণা ইত্যাদি বিষয়ে তদম্ত চালাচ্ছে ই ডি৷‌ হাইকোর্টে সংস্হাটি বিশেষ সুযোগের জন্য আবেদন করেছিল৷‌ আবেদনটি হল তদম্ত ও বিচার চলাকালীন রোজভ্যালি সংস্হার সম্পত্তি যেন ই ডি বাজেয়াপ্ত না করে৷‌ আর হাইকোর্ট নতুন করে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট খোলার নির্দেশ দিক বা পুরনো অ্যাকাউন্টের কয়েকটি চালু রাখার সুযোগ দিক৷‌ যাতে রোজভ্যালি সংস্হা তাদের কর্মীদের বেতন দিতে পারে ও কোম্পানির প্রশাসনিক কাজ চালিয়ে যেতে পারে৷‌ আর কোনও কোনও ক্ষেত্রে আমানতকারীদের অর্থ ফেরত দিতে পারে৷‌ ই ডি এই আবেদনের বিরোধিতা করেছিল৷‌ বলেছিল এতে তদম্তের কাজে বিঘ্ন ঘটবে৷‌ বিচারপতি জয়মাল্য বাগচী ই ডি যাতে সুষ্ঠুভাবে তদম্তের কাজ চালিয়ে যেতে পারে তার সুযোগ দিয়েছেন৷‌ পাশাপাশি তারা যাতে এই তদম্ত কাজ ফেলে না রাখে তার জন্য চাপ সৃষ্টি করেছেন৷‌ এদিকে এম পি এস সংস্হার যাবতীয় সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত ও সব ধরনের কাজকর্ম বন্ধ করার নির্দেশ দিলেন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি সৌমিত্র পাল৷‌ ইতিমধ্যে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে সারদা-সহ যে-সব চিটফান্ডের ব্যাপারে তদম্ত কাজ শুরু করেছে সি বি আই, সেবি, ই ডি-সহ বিভিন্ন কেন্দ্রীয় সংস্হা৷‌ তার তদম্ত কাজও অব্যাহত থাকবে৷‌ এম পি এসের ব্যাপারে তদম্ত কাজ কতটা হল তা হাইকোর্টকে জানাতে হবে৷‌ এম পি এসের সব ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট সিল করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে এমনকী তদম্ত কাজ চলাকালীন নতুন করে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট খুলে কী করে আমানত সংগ্রহ করছিল তাও খতিয়ে দেখতে বলল পুলিসকে৷‌ এই ব্যাপারে রাজ্য পুলিসের ডি জি ও বিধাননগরের কমিশনারকে আদালতের নির্দেশ হাতে পাওয়ার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ব্যবস্হা নিতে বলল৷‌ এই নির্দেশ আবেদনকারীও ই ডি-কে জানাতে পারবে৷‌ এম পি এসের এই মামলাটি আমানতকারীদের একটি নথিভুক্ত সংস্হা করেছে৷‌ প্রায় ১০ হাজার আমানতকারী সদস্য আছে এই সংস্হায়৷‌ নাম এম পি এস ইনভেস্টরস অ্যাসোসিয়েশন৷‌ এর আগে তারা শ্যামল সেন কমিশনেও অভিযোগ জানিয়েছিল৷‌ সেই কমিশনে এম পি এসের বিরুদ্ধে তথ্য প্রমাণ-সহ আবেদনের ভিত্তিতে সংস্হার কর্ণধার প্রমথনাথ মান্না গ্রেপ্তার হন৷‌ বিচারপতি সৌমিত্র পালের এজলাসে তাদের আইনজীবী শুভাশিস চক্রবর্তী একটি নথি দেখিয়ে বলেন এই মার্চ মাসেও এম পি এস আমানত নিয়ে শংসাপত্র দিয়েছে৷‌ বিচারপতি সৌমিত্র পাল মম্তব্য করেন কী করে এই সংস্হা এখনও আমানত সংগ্রহ করছে৷‌ আর কারাই বা টাকা রাখছে৷‌ এম পি এসের পক্ষ থেকে আইনজীবী কিশোর দত্ত আদালতকে বলেন, কেন্দ্রীয় তদম্তকারী সংস্হা আমাদের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করেছে৷‌ ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট অকেজো করেছে৷‌ এই সব না করলে আমানতকারীদের অনেকের টাকা আমরা দিয়ে দিতে পারতাম৷‌ বিচারপতি সৌমিত্র পাল নির্দেশ দিয়েছেন ঝাড়গ্রাম, কলকাতা-সহ এম পি এসের যেখানে যত অফিস আছে সব বন্ধ করে দিতে হবে৷‌ এম পি এস ইনভেস্টরস অ্যাসোসিয়েশন গঠিত হয়েছে ২০১২ সালে৷‌ তখন থেকেই তারা হাইকোর্টে মামলা করছে৷‌ এম পি এস সংস্হার কাজের পদ্ধতি নিয়ে বিধানসভায় বিভিন্ন দলের বিধায়করা অনেকবার হইচই করেছেন৷‌ এদিকে বিধাননগর আদালতে এম পি এস কর্তা প্রমথনাথ মান্নাকে সি বি আই হেফাজত থেকে বিধাননগর এ সি জে এম আদালতে পেশ করা হয়৷‌ সি বি আই গত ১৭ মার্চ প্রথম নিজেদের হেফাজতে নিয়েছিল৷‌ প্রথম দফায় ১০ দিন ও দ্বিতীয় দফায় ৪ দিন নিজেদের হেফাজতে তাঁকে নিয়েছিল সি বি আই৷‌ সি বি আই আদালতে জানিয়েছে এম পি এস নিয়ে অনেক নতুন তথ্য আসছে৷‌ তদম্ত চলছে৷‌ অনেক নথিপত্র বাজেয়াপ্ত করা বাকি৷‌ প্রয়োজনে তাঁকে জেলে গিয়ে জেরা করতে হতে পারে৷‌ বিচারক বলেন, জেলে জিজ্ঞাসাবাদ করতে হলে সি বি আই-কে নতুন করে আবেদন করতে হবে৷‌





kolkata || bangla || bharat || editorial || post editorial || khela || Tripura ||
Error Report || archive || first page

B P-7, Sector-5, Bidhannagar, Kolkata - 700091, Phone: 30110800, Fax: 23675502/5503
Copyright © Aajkaal Publishers Limited

Designed, developed & maintained by   Remote Programmer Private Limited