Aajkaal: the leading bengali daily newspaper from Kolkata
কলকাতা ১৬ ভাদ্র ১৪২১ মঙ্গলবার ২ সেপ্টেম্বর ২০১৪
 প্রথম পাতা   কলকাতা  বাংলা  ভারত  বিদেশ  সম্পাদকীয়  খেলা   পুরনো সংস্করন  বইঘর 
ব্যারেটোর স্বজনকে সারদার টাকা ।। স্কুলে গিয়ে বাঁশি বাজিয়ে শোনালেন ‘ছাত্র’ মোদি ।। ঐতিহাসিক মহামিছিলে ১৫ দলের আবেদন, চাই আরও ঐক্যবদ্ধ বাম ।। চৌরঙ্গিতে বি জে পি-কে কোনও জমি না ছাড়ার নির্দেশ মমতার ।। ধর্মঘটে অনড় ‌ট্যাক্সি, রাজ্য আরও কড়া ।। ভাড়া বাড়লেও বাস কম কম! ।। আজ পাহাড়ের বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রীর চোখ উন্নয়নেই ।। কয়লা ব্লকের বণ্টন নাকচ না করতে অনুরোধ কেন্দ্রের ।। উদ্বিগ্ন রাষ্ট্রপতি: বিশ্বভারতী ছাত্রী নিগ্রহের ঘটনার খোঁজ নিলেন ।। বি জে পি-র রাজ্য কমিটিতে বিশেষ আমন্ত্রিত সদস্য বিশিষ্টরা ।। শরিফকে সরতে বলল পাক ফৌজ ।। ‘আগ্রাসী’ চীনকে খোঁচা মোদির
বাংলা

ব্যারেটোর স্বজনকে সারদার টাকা

উত্তরবঙ্গের সঙ্গে সিঙ্গাপুরের বিমান যোগাযোগ

উদ্বিগ্ন রাষ্ট্রপতি: বিশ্বভারতী ছাত্রী নিগ্রহের ঘটনার খোঁজ নিলেন

ভাড়া বাড়লেও বাস কম কম!

বি জে পি-র রাজ্য কমিটিতে বিশেষ আমন্ত্রিত সদস্য বিশিষ্টরা

লিবিয়া-ফেরত অলিপ ইবোলায় আক্রাম্ত?

ধর্মঘটে অনড় ‌ট্যাক্সি, রাজ্য আরও কড়া

টোকাটুকি, ইস্তফা: নেত্রীর মম্তব্যে বিরক্ত শিক্ষামন্ত্রী

ইস্যু ভিত্তিক ‘কড়া আন্দোলন’ করবে সি পি এম

আফতাব-নীতুর যোগ! তদম্তের নির্দেশ মন্ত্রীর

রাজ্যের প্রশংসায় নির্মাণ সংস্হা

সালিশি সভার নিদেশ মতো জরিমানা দিতে না পারায় আদিবাসী যুবতীকে ধর্ষণের চেষ্টা

পুজোর আগে আলুর দাম কমতে পারে: অরূপ

মৌসুমি বায়ুর সক্রিয়তায় হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি

তাপস পাল মামলা আজ ফের কোর্টে

প্রাথমিকে প্রধান শিক্ষক নিয়োগ: ২০১০-এর আগে বিধিনিষেধ কার্যকর নয়

তালাভাঙা ‘বেজি’ নেহাত কিশোর, সঙ্গীরা ৭-১৪!

সোনারপুরে সারদা এজেন্টের বাড়ি ভাঙচুর

ব্যারেটোর স্বজনকে সারদার টাকা

Google plus share Facebook share Twitter share LinkedIn share

সব্যসাচী সরকার




প্রখ্যাত বিদেশি ফুটবলার ব্যারেটোর এক আত্মীয়ের অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠানোর খোঁজ পেল ই ডি৷‌ দু’বছর আগে ওই টাকা পাঠানো হয়৷‌ সেই সময়ে ওই ফুটবলার কলকাতাতেই ছিলেন৷‌ মোহনবাগান ক্লাবের হয়েও খেলেছেন৷‌ ই ডি সারদা-কাণ্ডে টাকা সরানোর তদম্ত করতে গিয়ে যতগুলি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের সন্ধান পেয়েছে, সেই অ্যাকাউন্টগুলির মালিকদের খোঁজ করতে গিয়েই দেখা গেছে এই কাণ্ড! আপাতত একটি অ্যাকাউন্টের সন্ধান মিলেছে৷‌ কলকাতার অন্যান্য ব্যাঙ্কে ফুটবলারের কন্যার নামে অ্যাকাউন্ট ছিল কিনা দেখা হচ্ছে৷‌ যে অ্যাকাউন্টে টাকা এসেছে, তা ২০১২ সালের ৩১ জানুয়ারি৷‌ সারদা ট্যুরস অ্যান্ড ট্রাভেলস থেকে বেশ কয়েক হাজার টাকা পাঠানো হয়েছিল ওই আত্মীয়ের অ্যাকাউন্টে৷‌ পানাজির ব্যাঙ্ক থেকে টাকা এসেছিল৷‌ ট্রানজাকশন আই ডি নম্বর ১০৯...৷‌ এই সূত্র ধরেই গোয়াতে ই ডি আরেক দফা সেখানকার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টগুলি পরীক্ষা করছে৷‌ কেন পাঠানো হয়েছিল তা দেখা হচ্ছে৷‌ সোমবার রাতে এ ব্যাপারে ব্যারেটোর মতামত জানতে চেয়ে ফোন করা হলে তিনি ফোন ধরেননি৷‌ এদিকে কয়েকজনকে জেরা ও দু’জনকে গ্রেপ্তারের পর সি বি আই এবার জেরা করবে সেবি-র ৩ কর্তাকে৷‌ সেই সঙ্গে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের ৪ মহিলা কর্মীকে৷‌ যাঁরা সারদা-কাণ্ডে জড়িত ছিলেন বলে জানতে পেরেছে সি বি আই৷‌ ওই ৪ মহিলা কর্মী রিজার্ভ ব্যাঙ্কের পদস্হ কর্তাদের সঙ্গে সারদার যোগসাজশে প্রত্যক্ষ ভূমিকা নিয়েছিলেন৷‌ নেপথ্যে ছিলেন এক প্রভাবশালী৷‌ এ যাবৎ তদম্তে নানা তথ্য প্রমাণে সেবি-র ৩ কর্তার টাকা লেনদেনের প্রমাণ হাতে এসেছে সি বি আই কর্তাদের যে, সারদা-কাণ্ডে যোগসাজশ ছিলই, তার অভিযোগ অনেক দিন থেকেই উঠছিল৷‌ কিন্তু সম্প্রতি কয়েকজনকে জেরায় বিষয়টি স্পষ্ট হয়েছে৷‌ আপাতত, প্রভাবশালীদের জেরা না করে সেবি-কর্তাদেরই ডাকবে সি বি আই বলে সোমবার দিল্লিতে জরুরি বৈঠকে সিদ্ধাম্ত নেওয়া হয়েছে৷‌ যাঁদের নাম, কাজ সরাসরি ‘অপরাধমূলক ষড়যন্ত্রে’ জড়িত বলে মনে করছে সি বি আই৷‌ রিজার্ভ ব্যাঙ্কের কয়েকজন কর্তার ভূমিকা ই ডি আগেই জানতে পেরেছিল, কিন্তু সে অর্থে কাদের মাধ্যমে সারদার ব্যবসায়িক সুবিধের কাজ চলছিল– সে বিষয়ে নিশ্চিত হয়েছে সম্প্রতি৷‌ রিজার্ভ ব্যাঙ্কের নিয়ম কিছু ক্ষেত্রে ভেঙে ব্যবসা চালাতে গিয়ে সারদার অসুবিধে হয়নি বলেই জানতে পেরেছে ই ডি৷‌ কেন দিনের পর দিন সারদার বিষয় নিয়ে অভিযোগ জমা পড়লেও, তা নিয়ে সে অর্থে কার্যকরী পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি, তার সূত্র সন্ধান করতে গিয়ে এক প্রভাবশালীর নাম উঠে এসেছে৷‌ তিনিই ৪ জন মহিলা অফিসারকে মোটা টাকার বিনিময়ে ফাইল চেপে রাখতে বলেছিলেন৷‌ রিজার্ভ ব্যাঙ্কের পদস্হ কর্তারাও তা নিয়ে কোনও ‘রহস্যময়’ কারণে উদ্যোগ নেননি৷‌ সোমবার সন্ধির আগরওয়ালকে আলিপুর আদালতে তোলা হয়৷‌ সন্ধিরের আইনজীবী জামিনের আবেদন জানালে সি বি আই-এর আইনজীবী জানান, ল্যাপটপ, হার্ডডিস্ক উদ্ধার হয়েছে৷‌ পাওয়া গেছে বহু গুরুত্বপূর্ণ ও প্রভাবশালী ব্যক্তির নাম৷‌ সে ব্যাপারেই সন্ধিরকে আরও জেরা করা প্রয়োজন৷‌ বিচারক ১০ সেপ্টেম্বর পর্যম্ত সন্ধিরকে জেল হেপাজতে রাখার নির্দেশ দেন৷‌ এদিনই বাংলা টিভি চ্যানেলের কর্তা রতিকাম্ত বসুকে জেরা করে ই ডি৷‌ কয়েক ঘণ্টা জেরার পর ছেড়ে দেওয়া হয়৷‌ কিন্তু আবার তাঁকে জেরা করা হবে৷‌ ওই টিভি চ্যানেল সারদা গোষ্ঠী ১৮ কোটি টাকায় কিনেছিল৷‌ টিভি চ্যানেল কীভাবে চলত, সে ব্যাপারে তাঁর কাছ থেকে জানতে ই ডি-র স্পেশাল ডিরেক্টর যোগেশ গুপ্তা ডেকে পাঠান৷‌ জানা গেছে, রতিকাম্ত বসু বলেছেন, তিনি একজন শেয়ারহোল্ডার ছিলেন মাত্র৷‌ ২০১০ সালে মউ চুক্তি হয়েছিল৷‌ তাঁর ১২ শতাংশ শেয়ার ছিল৷‌ দেবব্রত সরকার (নীতু)-কে মায়ের সঙ্গে দেখা করার জন্য আদালত সময় নির্দিষ্ট করে প্যারোলে মুক্তি দিলেও নীতু সোমবার বাড়ি যাননি৷‌ এদিকে সারদা গোষ্ঠীর সঙ্গে যোগাযোগের ব্যাপারে আসামের তেজপুরের সাংসদের নামে অভিযোগ উঠেছে৷‌ তিনি আবার আইনজীবীও৷‌ সারদা-কাণ্ড নিয়ে সে রাজ্যের কৃষক মুক্তি সংগ্রাম সমিতি দাবি জানিয়েছে, প্রাক্তন মন্ত্রী, পুলিস কর্তাদের সঙ্গে এবার মুখ্যমন্ত্রীকেও জেরা করুক সি বি আই৷‌


kolkata || bangla || bharat || bidesh || editorial || khela || Error Report || archive || first page

B P-7, Sector-5, Bidhannagar, Kolkata - 700091, Phone: 30110800, Fax: 23675502/5503
Copyright © Aajkaal Publishers Limited

Designed, developed & maintained by   Remote Programmer Private Limited