Aajkaal: the leading bengali daily newspaper from Kolkata
কলকাতা ৩ আশ্বিন ১৪২১ শনিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৪
 প্রথম পাতা   কলকাতা  বাংলা  ভারত  বিদেশ  সম্পাদকীয়  উত্তর সম্পাদকীয়  খেলা  সংস্কৃতি  ঘরোয়া  পর্দা  আজকাল-ত্রিপুরা   পুরনো সংস্করন  বইঘর 
যাদবপুর অচল--গৌতম চক্রবর্তী ।। ‌ট্যাক্সি উধাও, বাস-মিনিবাসও কম--আজ চালকদের ‘লালবাজার চলো’ ।। মধ্যমগ্রাম গণধর্ষণ--৫ অভিযুক্তের ২০ বছরের কারাদণ্ড ।। শ্রমিক-অসম্তোষ, বন্ধই হয়ে গেল গ্লস্টার জুট মিল--প্রিয়দর্শী বন্দ্যোপাধ্যায় ।। আগামী বছরের মধ্যে সব কাজ শেষ করতে নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর ।। আগামী দিনে কংগ্রেসের ভাল দিন দেখছেন নেতারা ।। ভারত-চীন যৌথ বিবৃতিতে গুরুত্ব পেল সীমাম্ত-শাম্তি ।। ওড়িশা, বাংলায় ডবল এজেন্টের হদিস ।। তৃণমূলের আশঙ্কা, ভবিষ্যতে কংগ্রেসি ভোট যাবে বি জে পি-তে ।। বামফ্রন্টের ২২শের মিছিলে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘটনাও ‘ইস্যু’ হবে ।। স্বাধীনতা নয়! রায় স্কটল্যান্ডের ।। শুভেন্দু আর রবীন এক নয়: সূর্য
বাংলা

‌ট্যাক্সি উধাও, বাস-মিনিবাসও কম

আগামী বছরের মধ্যে সব কাজ শেষ করতে নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর

তৃণমূলের আশঙ্কা, ভবিষ্যতে কংগ্রেসি ভোট যাবে বি জে পি-তে

আগামী দিনে কংগ্রেসের ভাল দিন দেখছেন নেতারা

বামফ্রন্টের ২২শের মিছিলে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘটনাও ‘ইস্যু’ হবে

শ্রমিক-অসম্তোষ, বন্ধই হয়ে গেল গ্লস্টার জুট মিল

মধ্যমগ্রাম গণধর্ষণ

সারদা-কাণ্ডে পথে নামলেন মুকুল, শুভেন্দু

সি পি এম চিটফান্ডের জন্মদাতা, পালন করছে তৃণমূল: রাহুল সিনহা

লাভপুরে গণধর্ষণ-কাণ্ড

যাদবপুরের ঘটনায় শাম্তিনিকেতনে পাল্টা মিছিল তৃণমূল ছাত্র পরিষদের

যাত্রী-নিরাপত্তা, মাওবাদী সমস্যা: বৈঠকে ৩ রাজ্যের রেল পুলিস

আলিপুরদুয়ার পুরসভার দখল নিতে চলেছে তৃণমূল

নগরপালকে তলব করলেন রাজ্যপাল

পুলিসি হস্তক্ষেপে নয়, আলোচনায় ঘেরাও উঠল লিলুয়ার ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে

পালা গাইতে উঠে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু পঞ্চায়েত প্রধানের

শুভেন্দু আর রবীন এক নয়: সূর্য

যাদবপুর-কাণ্ড: মমতার নির্দেশে তৃণমূলের মিছিল

বি এ, বি এসসি, বি কম পার্ট থ্রি-র ফল সোমবার

সৌরভ খুন: চার্জ গঠন

এবার ৩ ঘণ্টা ঘেরাও পশ্চিমবঙ্গ রাষ্ট্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য!

‌ট্যাক্সি উধাও, বাস-মিনিবাসও কম

আজ চালকদের ‘লালবাজার চলো’

Google plus share Facebook share Twitter share LinkedIn share

আজকালের প্রতিবেদন: দ্বিতীয় দিনেও ‌ট্যাক্সি ধর্মঘট সর্বাত্মক৷‌ সঙ্গে পরিবহণ ধর্মঘটের ফলে গোদের ওপর বিষফোড়া অবস্হা নিত্যযাত্রীদের৷‌ কলকাতার রাস্তায় বাস, মিনিবাসের সংখ্যা কমে যাওয়ায় নিত্যযাত্রীদের এদিন ত্রাহি ত্রাহি অবস্হা৷‌ সরকারি, বেসরকারি বাসে বাদুড়ঝোলা ভিড়৷‌ পুজোর আগে সাধারণ মানুষের এই দুরবস্হার জন্য সরাসরি রাজ্য সরকারকে দায়ী করেছে ধর্মঘটি শ্রমিক সংগঠনগুলি৷‌ তাদের সাফ কথা, এই সরকার পরিবহণ শ্রমিকদের বিষয়েও ভাবে না, সাধারণ মানুষের কথাও ভাবে না৷‌ ভাবলে তাদের এই ধর্মঘটে যেতে হত না৷‌ প্রায় দেড় মাস ধরে লাগাতার আন্দোলন করা ‌ট্যাক্সিচালকদের দাবি, একবার আলোচনায় বসারও প্রয়োজন অনুভব করছে না সরকার৷‌ উল্টে পুলিস দিয়ে দমনপীড়ন করে আন্দোলন ভাঙতে চাইছে, যা অসম্ভব৷‌ আজ, শনিবারও ‌ট্যাক্সিচালকরা ধর্মঘটে অনড় থাকছেন৷‌ সেই সঙ্গে তাঁরা মিছিলের ডাক দিয়েছেন ‘লালবাজার চলো’ বলে৷‌ সিটু রাজ্য সভাপতি শ্যামল চক্রবর্তী এদিন সাংবাদিক সম্মেলন করে জানিয়েছেন, সরকার রাস্তা থেকে ‌ট্যাক্সি তুলে নিয়ে গিয়ে বিভিন্ন ট্রাম ডিপোয় ও মোটর ভেহিকেলসের সামনে নিয়ে গেছে৷‌ আজ, শনিবার তারই প্রতিবাদে সমস্ত শ্রমিক সংগঠনের সদস্যরা ‌ট্যাক্সিচালকদের নিয়ে দুপুর ২টোয় রাজা সুবোধ মল্লিক স্কোয়্যারে জমায়েত হবেন৷‌ সেখান থেকে লালবাজার পর্যম্ত মিছিল করবেন৷‌ সোমবার একইভাবে মিছিল হবে মোটর ভেহিকেলসের অফিসে৷‌ দেওয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে চালকদের৷‌ ধর্মঘট থেকে ফিরে আসার পথ নেই তাঁদের৷‌ একমাত্র সরকারই পারে ইগো ছেড়ে চালকদের দাবিদাওয়া নিয়ে আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করতে ও স্বাভাবিক অবস্হা ফিরিয়ে আনতে৷‌ এদিন লাগাতার ‌ট্যাক্সি ধর্মঘটের সমর্থনে পরিবহণ ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়েছিল তৃণমূল সমর্থিত ইউনিয়ন ছাড়া সমস্ত ট্রেড ইউনিয়নের পক্ষে৷‌ সাধারণ পরিবহণ কর্মীদের ধন্যবাদ জানিয়ে শ্যামল চক্রবর্তী এদিন জানিয়েছেন, রাজ্য জুড়ে ট্রাক, ম্যাটাডর এবং তেলের ট্যাঙ্কার সর্বাত্মকভাবে ধর্মঘটে অংশ নিয়েছে৷‌ বেসরকারি বাস ৭০ থেকে ৭৫ ভাগ অংশ নিয়েছে ধর্মঘটে৷‌ শিলিগুড়ি, উত্তর দিনাজপুর, মুর্শিদাবাদ, বীরভূম, পুরুলিয়া ও পশ্চিম মেদিনীপুর– ৬ জেলায় রীতিমতো সাড়া পড়েছে এই পরিবহণ ধর্মঘটে৷‌ কলকাতায় বিভিন্ন সরকারি বাস ডিপোয় পরিবহণ কর্মীরা ধর্মঘটে অংশ নিয়ে বিক্ষোভ সংগঠিত করেছেন৷‌ তবে বেশ কিছু সরকারি বাস চালিয়েছে সরকার৷‌ সরকারকে হুঁশিয়ারি দিয়ে তিনি বলেন, অত্যাচার ও দমনপীড়নের পথে যাবেন না৷‌ এমনিতেই সারদা আর যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে সরকার বিধ্বস্ত৷‌ নিজেদের বিপদ না বাড়িয়ে শ্রমিকদের দাবিদাওয়া নিয়ে আলোচনা শুরু করুন৷‌ সাধারণ মানুষেরও উপকার হবে৷‌ এদিন সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্হিত ছিলেন অনাদি সাহু, রণজিৎ গুহ, নওলকিশোর শ্রীবাস্তব এবং সুভাষ মুখার্জি৷‌ নওলকিশোর বলেন, লাইসেন্স ও পারমিট বাতিলের জন্য সরকার যে উদ্যোগ নিয়েছে, তার বিরুদ্ধে আমরা ইতিমধ্যেই আদালতে গেছি৷‌ সরকার এ কাজ করতে পারে না৷‌ দু’দিনে বিভিন্ন এলাকা থেকে ১০০টি ‌ট্যাক্সি পুলিস তুলে নিয়ে গেছে৷‌ সেগুলি বিভিন্ন ট্রাম ডিপোয় রাখা হয়েছে৷‌ এই সব ‌ট্যাক্সির যন্ত্রাংশ যদি চুরি হয়ে যায় বা কোনও ক্ষতি হয়, সরকারকে তার ক্ষতিপূরণ দিতে হবে৷‌ এ জন্য সোমবার আমরা মোটর ভেহিকেলস ডিরেক্টরের কাছে যাব মিছিল করে৷‌ এটা সরকার করতে পারে না৷‌ গায়ের জোরে আন্দোলন দমানোর চেষ্টা চালাচ্ছে৷‌ আমরা ভয় পাচ্ছি না৷‌ শুক্রবার পরিবহণ ধর্মঘটে বাস, মিনিবাস কমে যাবে তা জানাই ছিল, ফলে রাস্তা ছিল ফাঁকা ফাঁকা৷‌ লোকজনও ছিল কম৷‌ রাজ্য সরকারের দাবি, এদিনের পরিবহণ ধর্মঘট ব্যর্থ৷‌ তুলনায় কম হলেও রাস্তায় বাস ছিল৷‌ মিনিবাসও ছিল মোটামুটি স্বাভাবিক৷‌ জেলাতেও বাস নেমেছে৷‌ এই ধর্মঘট থেকে আগেই সরে গিয়েছিলেন বাসমালিকরা৷‌ তাই রাস্তায় বাস-মিনিবাস নেমেছিল৷‌ তবে ধর্মঘট চললেও ‌ট্যাক্সির ভাড়া বাড়ানো বা পুলিসি জুলুমের ব্যাপারে কোনও পদক্ষেপ করেনি সরকার৷‌ ফলে আজ, শনিবারও রাস্তায় নামবে না ‌ট্যাক্সি৷‌ ‌ট্যাক্সিচালকদের ওপর পুলিসি জুলুম হচ্ছে ও ভাড়া বাড়ানো হচ্ছে না, এই অভিযোগ তুলে বেসরকারি পরিবহণে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছিল সিটু, এ আই টি ইউ সি-সহ ৬টি সংগঠন৷‌ ‌ট্যাক্সি না পেয়ে ভোগাম্তির ছবিটা শুক্রবার আরও একবার স্পষ্ট হল৷‌ রাস্তায় ‌ট্যাক্সি বের করার জন্য বেকবাগান ও পার্ক সার্কাসে দুটি ‌ট্যাক্সিতে ভাঙচুর চালানো হয়৷‌ অভিযোগ, ধর্মঘটিরা ভাঙচুর চালিয়েছেন৷‌ যদিও শ্যামল চক্রবর্তীর অভিযোগ, তৃণমূল কংগ্রেসই ‌ট্যাক্সি ভাঙচুর করেছে৷‌ বেঙ্গল বাস সিন্ডিকেট ও জয়েন্ট কাউন্সিল অফ বাস সিন্ডিকেটের থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, এদিন শুধু কলকাতাতেই বেসরকারি বাস নেমেছিল প্রায় ১০ হাজার৷‌ মিনিবাসের সংখ্যা ছিল প্রায় ১২০০৷‌ অন্যদিন বেসরকারি বাস নামে ১২ হাজারের কাছাকাছি৷‌ আর মিনিবাস রাস্তায় চলে ১৩০০-র কিছু বেশি৷‌ ফলে সেভাবে বাস কমেনি৷‌ কিন্তু ‌ট্যাক্সি না থাকার পুরো সুযোগ তুলেছেন অটোচালকরা৷‌ পোয়াবারো শাটল গাড়ির চালকদেরও৷‌ অন্য দিন হাওড়া-শিয়ালদা চত্বরে শাটল গাড়ি দাঁড়াতে দেওয়া হয় না৷‌ কিন্তু এদিন পুলিসের সামনেই শাটল গাড়ি চলাচল করেছে৷‌ হাওড়া-শিয়ালদার সামনে প্রিপেড ‌ট্যাক্সি বুথ দেখে মনে হচ্ছিল, শুধু পরিবহণ নয়, সাধারণ ধর্মঘটই চলছে৷‌


kolkata || bangla || bharat || bidesh || editorial || post editorial || khela ||
sangskriti || ghoroa || tv/cinema || Tripura || Error Report || archive || first page

B P-7, Sector-5, Bidhannagar, Kolkata - 700091, Phone: 30110800, Fax: 23675502/5503
Copyright © Aajkaal Publishers Limited

Designed, developed & maintained by   Remote Programmer Private Limited