Aajkaal: the leading bengali daily newspaper from Kolkata
কলকাতা ৫ পৌষ ১৪২১ রবিবার ২১ ডিসেম্বর ২০১৪
 প্রথম পাতা   কলকাতা  বাংলা  ভারত  বিদেশ  সম্পাদকীয়  উত্তর সম্পাদকীয়  নেপথ্য ভাষন  খেলা  রবিবাসর   আজকাল-ত্রিপুরা   পুরনো সংস্করন  বইঘর 
নেপথ্য ভাষন -অশোক দাশগুপ্ত--আছি, এটা বোঝানোই প্রথম ধাপ ।। ভারতীয়দের ‘মুখ’ রফিক--সুরজিৎ সেনগুপ্ত ।। দলকে মমতা: কলকাতা পুরভোটে বি জে পি-কে নিশ্চিহ্ন করতে হবে ।। কলকাতায় নয়, এবার ধর্না জেলায় ।। যাদবপুরের সমাবর্তন: বয়কট-স্ট্যাম্প মেরে দেওয়ার মম্তব্য প্রস্তাব ।। তৃণমূল, বি জে পি মিলে যাবে, সি পি এমও েতরি: গৌতম দেব ।। বুথ-ফেরত সমীক্ষায় ঝাড়খণ্ড বি জে পি-র, কাশ্মীর ত্রিশঙ্কু ।। সাগর দ্বীপের উন্নয়নে উচ্ছেদের আতঙ্কে আন্দোলনে মৎস্যজীবীরা ।। মিচেল জনসনের সুনামিতে ভারত ভেসে গেল--দেবাশিস দত্ত ।। সারদা সম্পত্তির তথ্য পেতে জেলে গিয়ে সুদীপ্তকে জেরা করবে ই ডি ।। মদন উডবার্ন ওয়ার্ডে ।। শপথ নিলেন মার্কিন দূত রিচার্ড রাহুল
বাংলা

তৃণমূল, বি জে পি মিলে যাবে, সি পি এমও েতরি: গৌতম দেব

কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের একমাত্র সংগঠন ওয়েবকুটাই: সৌগত

কেন্দ্রে রিপোর্ট পাঠাচ্ছে ই ডি, গুয়াহাটিতে মামলা

তৃণমূলের সৌজন্যে ৫০ বছরে এই প্রথম বাংলায় বিশ্ব হিন্দু পরিষদ সভা করছে: সেলিম

১২-২১ জানুয়ারি ফ ব-র জেল ভরো

কলকাতায় নয়, এবার ধর্না জেলায়

সাগর দ্বীপের উন্নয়নে উচ্ছেদের আতঙ্কে আন্দোলনে মৎস্যজীবীরা

সুপ্রিম কোর্টে হৃদয় ঘোষ

শীতল বড়দিন

প্রকাশিত হয়নি পার্ট ওয়ানের ফল

খাগড়াগড়-কাণ্ড: আসামে ধৃত শাহনুর-সহ ৩ জনকে কলকাতায় আনবে এন আই এ

খড়গপুরে দেড় বছরের ছেলের মুন্ডু কেটে নিয়ে পালাল বাবা!

পূর্ব মেদিনীপুর: সি পি এমের ১০ জোনাল কমিটি জুড়ে হল ৫

বাইক চুরির অপবাদে দেগঙ্গায় আত্মঘাতী যুবক

পাঠভবনের ছাত্রকে পিষে মারল লরি

বাংলাদেশ মুক্তি দিল ৬৫ ভারতীয় মৎস্যজীবীকে

দীঘায় চলবে টয় ট্রেন!

সারদা সম্পত্তির তথ্য পেতে জেলে গিয়ে সুদীপ্তকে জেরা করবে ই ডি

জয়ললিতার সঙ্গে কথা বলতে পার্থ চেন্নাই যাচ্ছেন

জাতীয় সড়ক সম্প্রসারণে জমি মাপা হল বাসিন্দাদের সহযোগিতায়

কাদম্বিনী বাঁচিয়া প্রমাণ করিল সে মরে নাই

সোনালি-কাণ্ড: তদম্তের জন্য কোর্টে আরও সময় চাইবে হাওড়া পুলিস

দেশবিরোধী কার্যকলাপে কড়া ব্যবস্হা নেবে এস এস বি

দেগঙ্গার শিকল বাঁধা কেতাবের পাশে শিক্ষকরা

বিশ্বভারতী: উপাচার্যের অফিসের সামনে ধর্না

তৃণমূল, বি জে পি মিলে যাবে, সি পি এমও েতরি: গৌতম দেব

Google plus share Facebook share Twitter share LinkedIn share

আজকালের প্রতিবেদন: ভবিষ্যতে তৃণমূল কংগ্রেস এবং বি জে পি একসঙ্গে লড়বে৷‌ এই যৌথ শক্তির বিরুদ্ধে লড়তে হবে বুঝেই আমরা কাজ করছি, এগোচ্ছি, প্রস্তুতি নিচ্ছি৷‌ শনিবার একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে বিশেষ সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেছেন সি পি এম কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য গৌতম দেব৷‌ পাশাপাশি রাজ্য নেতৃত্বের বদলের প্রশ্নে তিনি স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন, বুদ্ধদা অর্থাৎ বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য আমাদের নেতৃত্ব দিচ্ছেন৷‌ তাঁর শরীর-স্বাস্হ্য সম্পর্কে আমরা সচেতন৷‌ তাঁকে সুস্হ রেখে তাঁর নেতৃত্বেই আমরা লড়ব৷‌ সরাসরি না হলেও আকারে ইঙ্গিতে তিনি জানিয়ে দেন, বিমান বসুর তিনবারের মেয়াদ শেষ হয়নি৷‌ ফলে তিনি রাজ্য সম্পাদক থাকতেই পারেন৷‌ দীর্ঘ দিন পর গৌতম দেব এভাবে খোলামেলা কথা বললেন৷‌ সম্প্রতি বড়সড় অস্ত্রোপচারের পর এখন তিনি অনেকটাই সুস্হ৷‌ পার্টির কাজও শুরু করেছেন৷‌ তবে তা করছেন চিকিৎসকদের বিধিনিষেধ মেনেই৷‌ এদিন শুরুতেই রাজ্য নেতৃত্বে বদলের প্রশ্নে তিনি বলেন, বিমান বসু এখনও রাজ্য সম্পাদক আছেন৷‌ তিন মাস পর রাজ্য সম্মেলন৷‌ এখন জেলায় জেলায় সম্মেলন চলছে৷‌ গৌতম দেব কি পরবর্তী রাজ্য সম্পাদক হবেন? সরাসরি এ প্রশ্নের উত্তর না দিয়ে তিনি বলেন, কেন গৌতম দেব ছাড়া রাজ্য সম্পাদক করার লোক নেই নাকি পার্টিতে? তা হলে কি সূর্যকাম্ত মিশ্র আসবেন নেতৃত্বে? গৌতম দেব বলেন, ২০১৬ সালে আমরা ভোটে লড়ব অবশ্যই ক্ষমতায় আসার জন্য৷‌ কত আসন জিতব সে পরের কথা৷‌ কিন্তু লক্ষ্য অবশ্যই ক্ষমতায় ফেরার৷‌ ক্ষমতায় ফিরলে মুখ্যমন্ত্রী কে হবেন? সূর্যকাম্ত মিশ্র? গৌতম বলেন, হতেই পারেন৷‌ অভি: মন্ত্রী ছিলেন৷‌ বিরোধী দলনেতা হিসেবে অত্যম্ত সফল৷‌ কিন্তু জানবেন, এ সব নিয়ে গসিপ করা আমাদের দলের কালচার নয়৷‌ বি জে পি-র উত্থান নিয়ে যাঁরা মাতামাতি করছেন, গৌতম তাঁদের দলে নন৷‌ বলেন, এখানে তৃণমূল, কংগ্রেস, বি জে পি, বামপম্হীরা– মূলত ৪টি দল রয়েছে৷‌ এর মধ্যে উত্থানের লেখচিত্র যদি কারও ঊধর্বমুখী হয়, সেটা বামপম্হীদের৷‌ একটি, দুটি, তিনটি হলেও বামপম্হীদের সংখ্যাই বাড়ছে৷‌ বি জে পি এ রাজ্যে ভোট বাড়িয়েছে এ কথা ঠিক, তা বলে ক্ষমতায় আসবে ভাবার কোনও কারণ নেই৷‌ আমরা চাই এবং চেষ্টা করব, যাতে বি জে পি ক্ষমতায় না আসে৷‌ কারণ তা হলে এ রাজ্যের সর্বনাশ হয়ে যাবে৷‌ পাশাপাশি, মমতা ব্যানার্জিকে হারাতেই হবে৷‌ না হলে পশ্চিমবঙ্গের সর্বনাশ হয়ে যাবে৷‌ তিনি বলেন, মদন মিত্র চোর না জোচ্চোর, সে প্রশ্ন তুলছি না৷‌ তৃণমূলের একজন বড় নেতা তো৷‌ তাঁর মুক্তির ডাকে মঞ্চ ফাঁকা থাকছে কেন? কর্মীদের মধ্যে ওই মঞ্চ ভরানোর জোশটাই নেই৷‌ সমস্ত বর্ষীয়ান নেতাকে সরিয়ে যুব সম্প্রদায়ের ছেলেমেয়েদের নেতৃত্বে আনার কথা কেউ কেউ বলছেন৷‌ দার্শনিক কনফুসিয়াসকে উদ্ধৃত করে গৌতম দেব বলেন, যুব সম্প্রদায় সত্যিই গুরুত্বপূর্ণ৷‌ কিন্তু বয়স্ক, অর্ধবয়স্ক তাঁরাও অত্যম্ত জরুরি৷‌ এভাবে রাজনৈতিক দল চলে না৷‌ একসময়ে চিটফান্ড ও তৃণমূল সরকার নিয়ে একাধিক মম্তব্য করেছিলেন গৌতম দেব, যার অনেকটা আজ মিলে যাচ্ছে৷‌ এ প্রসঙ্গ তুললে গৌতম দেব বলেন, আমি কিছু সত্য গোপন করি এ কথা ঠিক, করতে হয়৷‌ কিন্তু কখনও মিথ্যা বলি না৷‌ মুকুল তো মামলা করেছিলেন, ১৯ বার আদালতে হাজিরা দেননি, কেন? কোথায়, কবে কোন জেলায় কে কাকে কুপন দিয়েছে, টাকা দিয়েছে, তার লিখিত বয়ান আমার কাছে আছে৷‌ এর পর কিছু কাগজপত্র হাতে পেয়ে তবে সাংবাদিকদের বলব৷‌ মমতা ব্যানার্জির সততা নিয়ে কোনও প্রশ্ন নেই, এ কথা বলতেই গৌতম দেব আপত্তি তোলেন৷‌ বলেন, ‘মমতা ব্যক্তিগতভাবে সৎ’– এখন আর এ কথা জোরের সঙ্গে কেউ বলতে পারছেন না৷‌ যাঁরা বলতেন সাদাসিধে, লড়াকু, তাঁরাও এখন জোর গলায় বলতে পারছেন না৷‌ কেন? গৌতম বলেন, আমি ২২টি কাগজ পেশ করেছি৷‌ তাতে দেখিয়েছি ভাই, ভাইয়ের বউ, ভাইপো, আত্মীয়রা কালীঘাট এলাকায় ২২ থেকে ২৫ কোটি টাকার সম্পত্তি কিনেছে এই দু’বছরে৷‌ ভাইপো ৫ কোটির সম্পত্তি কিনছে মমতা ব্যানার্জিকে না জানিয়ে, এ কথা বিশ্বাসযোগ্য? তাই ‘নিজে সৎ’– এ তথ্য আর দাঁড়াচ্ছে না৷‌ সি বি আইকে মোদি রাজনৈতিকভাবে ব্যবহার করতে পারেন? গৌতম বলেন, নিশ্চয় পারেন৷‌ এই মুহূর্তে ব্যবহার করছেন না বলে ভবিষ্যতে করবেন না, এমন বোগাস কথা আমি বলব না৷‌ মমতা আর বি জে পি-র হাত মেলানো নতুন কিছু নয়৷‌ বড় বড় মালপোয়া যেমন খেয়েছেন, বড় বড় লাড্ডু তেমন খাবেন না, বিশ্বাস করি না৷‌ দিল্লিতে যে গেলেন, উদ্দেশ্য ছিল কথা শুরু করা৷‌ জেনে রাখুন, বি জে পি-তৃণমূল একসঙ্গে লড়বে বলেই আমরা বিশ্বাস করি৷‌ এবং সে কথা মাথায় রেখেই আমরা আমাদের সংগঠন তৈরি করছি৷‌ কাজ শুরু করেছি৷‌ এবং এভাবেই এগোব৷‌ তিনি বলেন, একটা জেলায় বাড়ি-বাড়ি ঘুরে ২ কোটি টাকা সংগ্রহ করেছি৷‌ একটা জেলা থেকে দেড়-দু’লক্ষ লোক শহিদ মিনারে নিয়ে গেছি৷‌ এটা ফেলনা কথা নয়৷‌ সামনে পুরসভা এবং বনগাঁ লোকসভার ভোট৷‌ তার পর বিধানসভা৷‌ সেই মতোই আমরা এগোচ্ছি৷‌





kolkata || bangla || bharat || bidesh || editorial || post editorial || nepathya bhasan ||
khela || sunday || Tripura || Error Report || archive || first page

B P-7, Sector-5, Bidhannagar, Kolkata - 700091, Phone: 30110800, Fax: 23675502/5503
Copyright © Aajkaal Publishers Limited

Designed, developed & maintained by   Remote Programmer Private Limited