Aajkaal: the leading bengali daily newspaper from Kolkata
কলকাতা ১৩ আশ্বিন ১৪২১ মঙ্গলবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৪
 প্রথম পাতা   কলকাতা  বাংলা  ভারত  বিদেশ  সম্পাদকীয়  উত্তর সম্পাদকীয়  খেলা  আজকাল-ত্রিপুরা   পুরনো সংস্করন  বইঘর 
আনন্দ শুরু, সন্ধে থেকেই বোধন ।। আড়াই হাজার কোটি পণ্যমাশুল ফাঁকি! ।। কুণালের জবানবন্দী নেওয়ার অনুমতি আদালতের--ই ডি দপ্তরে কথা বললেন সৃঞ্জয় ।। ভাঙন ঠেকাতে বিধায়কদের নিয়ে বৈঠক ডাকল কংগ্রেস ।। জামিনের আবেদন, আজ শুনানি--জেলে জয়া: আত্মহত্যা, হৃদরোগে মৃত ১৬ ।। বোলপুর: পুলিসকে নিগ্রহের ঘটনায় আগাম জামিন খারিজ তৃণমূল নেতার ।। মার্কিন শিল্পপতি থেকে ওবামার মন চাইলেন মোদি প্রাতরাশে, নৈশভোজে ।। মোদিভক্তদের রাজদীপ-নিগ্রহের খবর উল্টে দিতে চাইলেন স্বামী ।। পাড়ুই-কাণ্ড: সি বি আই তদম্তের ওপর স্হগিতাদেশের মেয়াদ বৃদ্ধি ।। পুজোয় কলকাতা এক মিনি ভারত--শিখর কর্মকার ।। কুণাল তৃণমূলের সঙ্গে দরদাম করছেন: রাহুল ।। গরম দিয়ে শুরু হল পুজো, শেষের দিকে হালকা বৃষ্টি
বাংলা

কুণালের জবানবন্দী নেওয়ার অনুমতি আদালতের

বিয়ে বাড়ি যাওয়া আর রাতে ডেলো-বৈঠক এক নয়: বিমান

ভাঙন ঠেকাতে বিধায়কদের নিয়ে বৈঠক ডাকল কংগ্রেস

ওঁরা একা নন, পাশে দেব

বোলপুর: পুলিসকে নিগ্রহের ঘটনায় আগাম জামিন খারিজ তৃণমূল নেতার

বিশ্ববঙ্গ শিল্প সম্মেলনে ৪ দেশকে চায় রাজ্য

গরম দিয়ে শুরু হল পুজো, শেষের দিকে হালকা বৃষ্টি

কুণাল তৃণমূলের সঙ্গে দরদাম করছেন: রাহুল

বিশ্বভারতীর নিগৃহীত ছাত্রীর বাবাকে এক লাখ টাকা দিল রাজ্য

পাড়ুই-কাণ্ড: সি বি আই তদম্তের ওপর স্হগিতাদেশের মেয়াদ বৃদ্ধি

এরিকের বোনকে চাকরি দিল রাজ্য

প্রতারণার অভিযোগে ধৃত কার্শিয়াঙের এ ডি এম

রাজ্যপালের শুভেচ্ছা

কুণালের জবানবন্দী নেওয়ার অনুমতি আদালতের

ই ডি দপ্তরে কথা বললেন সৃঞ্জয়

Google plus share Facebook share Twitter share LinkedIn share

আজকালের প্রতিবেদন: কুণাল ঘোষের জবানবন্দী নেওয়ার অনুমতি দিল আদালত৷‌ সুদীপ্ত সেন আদালতে আর্জি জানালেন সাংবাদিকদের মুখোমুখি হওয়ার৷‌ বললেন, সেখানে তিনি যা বলবেন তা ভিডিও রেকর্ড করলে সারদা-কাণ্ড নিয়ে অনেক তথ্য বেরিয়ে আসবে৷‌ সোমবার ব্যাঙ্কশাল কোর্টে সি বি আই বিশেষ আদালতের বিচারক অরবিন্দ মিশ্রর এজলাসে দেবযানী, সুদীপ্ত ও কুণালকে আনা হয়৷‌ সুদীপ্ত সেন আদালতে নিজেই জামিনের আবেদন করেন৷‌ এদিন ফের ই ডি দপ্তরে যান তৃণমূল সাংসদ সৃঞ্জয় বসু৷‌ এর আগেও তিনি ই ডি আধিকারিকদের সঙ্গে কথা বলেছিলেন৷‌ কাঠগড়ায় সুদীপ্ত বলেন, আদালত এস এস কে এমে তাঁর চিকিৎসার নির্দেশ দেওয়ায় কৃতজ্ঞ৷‌ ভাল চিকিৎসা হয়েছে৷‌ বলেন, চিরদিনই চুপচাপ থাকি, আছি৷‌ আমার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের বিচার চলছে৷‌ ৯টা মামলা একত্র করে শুনানিও চলছে৷‌ ৬৪ দিন অতিক্রাম্ত হয়েছে৷‌ আমাকে জামিন দিন৷‌ ২জি স্পেকট্রাম কেলেঙ্কারিতেও তো অভিযুক্তের জামিন হয়েছে৷‌ তাহলে আমার জামিন পেতে অসুবিধা কোথায়? বলেন, সি বি আই তদম্ত করছে৷‌ সি আর পি সি মতে একই বিষয়ে একাধিক সংস্হা তদম্ত করতেই পারে৷‌ কিন্তু সি বি আইয়ের কেউ তো আদালতে থাকছেন না৷‌ তারা একই অভিযোগে একটা মামলার তদম্ত করছে৷‌ আবার আরেকটা আদালতে একই অভিযোগে বিচার চলছে৷‌ এটা কী করে সম্ভব? ৮৮৬ কোটি টাকা তছরুপ করেছি বলে সি বি আই অভিযোগ এনেছে৷‌ কিন্তু তার কোনও হদিস এখনও তো পায়নি৷‌ আমার সংস্হাকে বাঁচানোর জন্য জীবনপণ করে চেষ্টা করেছি৷‌ আজ আমি আদালতে হাজির হয়েছি, আগামীকালও হয়ত হব৷‌ কিন্তু মহাকাল তো আছে৷‌ আমাকে বিভিন্ন রাজ্যে তদম্তের জন্য নিয়ে যাচ্ছে৷‌ যেতে হবে৷‌ তবে আমি যাতে মিডিয়ার সঙ্গে কথা বলতে পারি তার নির্দেশ দিন৷‌ সেই কথাগুলো ভিডিও করলে অনেক তথ্য বেরিয়ে আসবে৷‌ তদম্তে কাজে লাগবে৷‌ জামিনের আবেদনে কুণাল তাঁর বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের বিরোধিতা করে আদালতে বলেন, ‘সারদা গোষ্ঠীর যেসব মামলা আনা হচ্ছে, তার সঙ্গে আমি জড়িত নই৷‌ সেখানকার শেয়ারহোল্ডারও নই৷‌ কোনও অ্যাকাউন্টে সই করার অধিকার আমার ছিল না৷‌ আমি চাকরি করেছি৷‌ সুদীপ্ত সেন আমার মালিক৷‌ আমি মাইনে নিয়েছি, কর দিয়েছি৷‌ এই সংস্হা সম্পর্কে আগে থেকে কোনও ধারণা ছিল না৷‌ আমি শুধুমাত্র মিডিয়াম্যান ছিলাম৷‌ ৩০০ দিনের বেশি জেলে আছি৷‌ ২৩ নভেম্বর, ২০১৩ আমি জেলে গেছি৷‌ সিট সব কাগজপত্র সি বি আই-কে দিয়েছে কি না, তা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করে কুণাল বলেন, আমাকে গ্রেপ্তারের পর একটা মোটা ফাইল তাদের দিয়েছিলাম৷‌ জানি না সেটা সি বি আই-কে দেওয়া হয়েছে কি না৷‌ একই বিষয়ে দু’জায়গায় মামলা? এটা কী করে হয়?’ বলেন, বলা হচ্ছে আমি প্রভাবশালী লোক৷‌ প্রমাণ লোপাটের চেষ্টা করতে পারি৷‌ কিন্তু রাজ্য পুলিসের কাছে আমি ১১ বার গেছি৷‌ এস এফ আই ও-র কাছে দু’বার গেছি৷‌ সি বি আইয়ের তদম্তকারী অফিসারের সঙ্গে কথা বলতে চাই৷‌ আপনি নির্দেশ দিন৷‌ বলতে বলতে কাঠগড়ায় দাঁড়িয়ে কুণাল কেঁদে ফেলেন৷‌ বলেন, আমাকে চোর, ডাকাত বানানো হচ্ছে! আমি বিচার চাই৷‌ সুদীপ্ত সেনের একটা ফোনে সহকর্মীদের মাইনে দেওয়ার জন্য ৫০ লক্ষ টাকা দিয়েছিলাম৷‌ আর আজ আমি চোর হয়ে গেলাম! যে কোনও শর্তে আমায় জামিন দিন৷‌ আমাকে তো আই ও জেরা করতেও আসে না৷‌ যদি প্রভাবশালী হই, বড় কাজের নেশায় প্রভাবশালী হয়েছি৷‌ এখন বিপদে পড়ে গেছি৷‌ কিছু রাজনৈতিক খবর পাচ্ছি, যাতে সি বি আই তদম্ত প্রভাবিত হচ্ছে৷‌ চারপাশের ঘটনায় ভয় হচ্ছে৷‌ গোপন জবানবন্দী দিলে বেঁচে থাকি বা মরে যাই, বক্তব্যটা আপনার কাছে রেকর্ড হয়ে থাকবে৷‌ প্রমাণ করতে পারব আমি চোর নই! আমার বক্তব্য আপনার কাছে নিরাপদ থাকবে৷‌ বলেন, যাঁরা সারদার কাছ থেকে পুরো সুবিধা নিয়েছে, তাঁরা পুজো উদ্বোধন করে বেড়াচ্ছেন, আর আমি জেলে বসে ঢাকের আওয়াজ শুনছি৷‌ দেবযানীও জামিন চান৷‌ সি বি আইয়ের পক্ষে আইনজীবী অরুণকুমার ভগৎ বলেন, তছরুপ হওয়া টাকা উদ্ধারে এঁদের ফের জেল হেফাজতে নিতে চাই৷‌ এরপর কুণাল বলেন, সি বি আইয়ের কাছে আমার ৯২ পাতার নোট দেওয়া আছে৷‌ বিচারক অরবিন্দ মিশ্র তিনজনকেই ২১ অক্টোবর পর্যম্ত জেল হেফাজতে রাখা নির্দেশ দেন৷‌ বলেন, সি বি আই কুণালের জবানবন্দী নিতে পারে৷‌ সোমবার সকাল সাড়ে ৯টা নাগাদ সৃঞ্জয় বসু ই ডি দপ্তরে যান৷‌ কয়েকটি বিষয়ে তিনি ই ডি আধিকারিকদের সঙ্গে কথা বলেন৷‌ সারদা গোষ্ঠীর সঙ্গে চুক্তি সংক্রাম্ত কিছু বিষয় নিয়েই ই ডি কিছু তথ্য জানতে চায়৷‌


kolkata || bangla || bharat || bidesh || editorial || post editorial || khela ||
Tripura || Error Report || archive || first page

B P-7, Sector-5, Bidhannagar, Kolkata - 700091, Phone: 30110800, Fax: 23675502/5503
Copyright © Aajkaal Publishers Limited

Designed, developed & maintained by   Remote Programmer Private Limited