Aajkaal: the leading bengali daily newspaper from Kolkata
কলকাতা ১৪ চৈত্র ১৪২১ রবিবার ২৯ মার্চ ২০১৫
 প্রথম পাতা   কলকাতা  বাংলা  ভারত  সম্পাদকীয়  উত্তর সম্পাদকীয়  নেপথ্য ভাষন  খেলা  রবিবাসর   আজকাল-ত্রিপুরা   পুরনো সংস্করন  বইঘর 
নেপথ্য ভাষন -অশোক দাশগুপ্ত--গোঁফে তেল, ডাহা ফেল ।। দেবজিতের মাইলস্টোন--সুরজিৎ সেনগুপ্ত ।। ক্লার্কের শেষ ওয়ান ডে ।। ইতিহাস গড়ে ফাইনালে ।। হুমকি, হামলা, মারধর, ভয়, মনোনয়ন তুলল বিরোধীরা ।। প্রহসনের ভোট শুরু হয়ে গেল, অভিযোগ সমস্ত বিরোধীর ।। রোজভ্যালির কোর কমিটির সদস্যদের জেরা ।। ভোটের আগেই ৩ পুরসভা তৃণমূলের দখলে ।। যোগেন্দ্র, প্রশাম্তকে তাড়িয়ে ছাড়লেন কেজরিওয়াল ।। বাংলাদেশ থেকে অনুপ্রবেশ: উদ্বেগ জানালেন রাজ্যপাল, সিদ্ধার্থনাথ ।। খাগড়াগড়-কাণ্ডে ঢাকায় ধৃত ১ ।। আরেকটি উপগ্রহ
বাংলা

হুমকি, হামলা, মারধর, ভয়, মনোনয়ন তুলল বিরোধীরা

বার বার তৃণমূলের বাধা এড়িয়ে বিমানের মিছিল ঘুরল কাশীপুরে

ভোটের আগেই ৩ পুরসভা তৃণমূলের দখলে

রানাঘাট-কাণ্ড: দুষ্কৃতীদের প্রকাশিত ছবি দেখে শনাক্ত করল গোপালের স্ত্রী

ওরা পাড়া দখল করছে, আপনারা মানুষের মন দখল করুন: সূর্যকাম্ত

স্ত্রীর দেহ সেপটিক ট্যাঙ্কে, স্বামীকে ধরে মার, পুলিসের গাড়ি ভাঙচুর

রোজভ্যালির কোর কমিটির সদস্যদের জেরা

পুরভোট ভোটদানের সময় বাড়ানোর তৃণমূলের প্রস্তাবের বিরোধীতায় বিরোধীরা

প্রহসনের ভোট শুরু হয়ে গেল, অভিযোগ সমস্ত বিরোধীর

খাগড়াগড়-কাণ্ডে ঢাকায় ধৃত ১

রাজ্যের নীতির ফলে আলুচাষী আত্মঘাতী হচ্ছেন: বি জে পি

ফতোয়া সত্ত্বেও হাওড়ার স্কুলে সালোয়ার-কামিজ পরেই এলেন শিক্ষিকারা

বিধানসভা নির্বাচনের আগে আরও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী-নেতা রাজ্যে কাজ করবেন: সিদ্ধার্থনাথ

বাংলাদেশ থেকে অনুপ্রবেশ: উদ্বেগ জানালেন রাজ্যপাল, সিদ্ধার্থনাথ

শিল্পীদের জন্য হেলথ কার্ড

হুমকি, হামলা, মারধর, ভয়, মনোনয়ন তুলল বিরোধীরা

Google plus share Facebook share Twitter share LinkedIn share

আজকালের প্রতিবেদন: তৃণমূলের হুমকির জেরে বেশিরভাগ পুরসভা থেকে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নিল বিরোধীরা৷‌ শাসকদলের নেতা-কর্মীদের ভয়ে মনোনয়ন প্রত্যাহারের পর্ব চলছিলই৷‌ শনিবার ছিল মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন৷‌ সকাল থেকে বিরোধী দলের প্রার্থীদের বাড়ি হামলা, মারধর, এলাকা ছাড়া করার অভিযোগ ওঠে তৃণমূলের বিরুদ্ধে৷‌ বাঁশবেড়িয়া পুরসভার ১৬ নং ওয়ার্ডের কংগ্রেস প্রার্থী শঙ্কর বিশ্বাসের বাড়িতে হামলা ও ভাঙচুর চালানোর অভিযোগ উঠে৷‌ তৃণমূল-বি জে পি সঙঘর্ষ বাধে বীরভূমের সাঁইথিয়ায়৷‌ শেষমেশ প্রার্থিপদ প্রত্যাহার করে নেয় বিরোধীরা৷‌

বারাসত থেকে সোহম সেনগুপ্ত জানাচ্ছেন: উত্তর ২৪ পরগনা জেলার ৭টি পুরসভার ১৭ জন বামপ্রার্থীর মনোনয়ন জোর করে প্রত্যাহার করানো হয়েছে৷‌ শনিবার এই অভিযোগ করেন উত্তর ২৪ পরগনা জেলা সি পি এমের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক নেপালদেব ভট্টাচার্য৷‌ তিনি বলেন, শাসক দলের আশ্রিত সমাজবিরোধীরাই প্রশাসনের একাংশকে সঙ্গে নিয়ে এই কাজ করেছে৷‌ সি পি এমের অভিযোগ হালিশহর পুরসভার ৬, ৭, ৮, ১০, ১২, ১৩, ২২ নম্বর ওয়ার্ডে বামপম্হী প্রার্থীদের মনোনয়ন প্রত্যাহার করতে বাধ্য করা হয়েছে৷‌ ভাটপাড়া পুরসভার ৫, ১৩, ১৭, ১৮, ১৯, গারুলিয়া পুরসভার ১৮ নম্বর ওয়ার্ড, নর্থ ব্যারাকপুর পুরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডেও একই কাজ করা হয়েছে৷‌ নিউ ব্যারাকপুর পুরসভার ১৯ নম্বর ওয়ার্ডের বামপ্রার্থীকে হুমকি দিয়ে প্রার্থিপদ প্রত্যাহার করানো হয়েছে৷‌ দমদম পুসসভার ৬ নম্বর ও বনগাঁ পুরসভার ১৭ নম্বর ওয়ার্ডেও একইভাবে বামফ্রন্টের প্রার্থীদের বলপূর্বক প্রার্থিপদ প্রত্যাহার করানো হয়৷‌ পাশাপাশি জেলার বিভিন্ন জায়গায় দেওয়াল লিখন মুছে দেওয়া, প্রচারে বাধা ও সন্ত্রাসের বাতাবরণ তৈরির চেষ্টাও চলছে বলে অভিযোগ সি পি এমের৷‌

বনগাঁ থেকে নিরুপম সাহা: বনগাঁ পুরসভার ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের অন্যান্য দলের প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেওয়ায় এই আসনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী হলেন তৃণমূল প্রার্থী, পুরসভার বর্তমান পুরপ্রধান জ্যোৎস্না আঢ্য৷‌ বিরোধীদের অভিযোগ, তাদের দলের প্রার্থীদের ভয় দেখিয়ে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করতে বাধ্য করা হয়েছে৷‌ ২২ আসন বিশিষ্ট বনগাঁ পুরসভার ১৭ নম্বর ওয়ার্ড থেকে এবারেও প্রার্থী হন বর্তমান তৃণমূল পুরপ্রধান জ্যোৎস্না আঢ্য৷‌ পাশাপাশি বি জে পি-র পক্ষে মীরা দে এবং সি পি আইয়ের পক্ষে টিঙ্কু ঘোষ মনোনয়ন জমা দেন৷‌ কংগ্রেস বা অন্য কোনও দলের পক্ষ থেকে এই ওয়ার্ডে মনোনয়ন জমা পড়েনি৷‌ বি জে পি প্রার্থী মীরা দে এবং সি পি আই প্রার্থী টিঙ্কু ঘোষ দু’জনই শনিবার তাঁদের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেন৷‌ তৃণমূল প্রার্থী, পুরপ্রধান জ্যোৎস্না আঢ্য অবশ্য সব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, হার নিশ্চিত জেনে অন্য দলের প্রার্থীরা মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নিয়েছেন৷‌ এদিকে ব্যারাকপুর মহকুমার ভাটপাড়া পুরসভার ৪ ওয়ার্ডে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী হয়েছে তৃণমূল৷‌

বর্ধমান থেকে বিজয়প্রকাশ দাস: মেমারি পুরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের কংগ্রেস প্রার্থী অপহরণের গুজবে কংগ্রেস সভাপতির বাড়িতে পুলিসি তল্লাশির ঘটনায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ল রাজনৈতিক মহলে৷‌ অভিযোগ, ৭ নম্বর ওয়ার্ডে চেয়ারম্যান স্বপন বিষয়ীকে জেতানোর জন্য মনোনয়নপত্র দাখিলের পর থেকে এই ওয়ার্ডের কংগ্রেস প্রার্থী রামকৃষ্ণ হাজরার ওপর নানাভাবে চাপ সৃষ্টি করে তৃণমূল৷‌ অবশেষে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন শনিবার সকাল থেকে তৃণমূলের পক্ষ থেকে গুজব ছড়ানো হয় রামকৃষ্ণবাবু প্রার্থিপদ তুলে নিতে চাইছেন কিন্তু কংগ্রেস সভাপতি তাঁকে অপহরণ করেছেন৷‌ এর পরই অপহরণের কোনও অভিযোগ ছাড়াই, পুলিস কংগ্রেসের জেলা সভাপতি আভাস ভট্টাচার্যের বাড়ি তন্নতন্ন করে তল্লাশি চালায়৷‌ প্রার্থী রামকৃষ্ণবাবু বলেন, আমিই জানি না আমি কখন অপহরণ হলাম? আর অপহরণ করল কে, আমাদের দলের সভাপতি? কত বড় গুজব ছড়িয়েছে তৃণমূল৷‌ আমি জেলা পুলিসকে লিখিত জানিয়েছি এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা৷‌ এ ব্যাপারে জেলা পুলিস সুপার কুণাল আগরওয়াল জানান, বিষয়টির খোঁজখবর নিয়ে দেখছি৷‌ গুজব ছড়ানোর অভিযোগ নিয়ে তৃণমূল অবশ্য কিছুই জানে না বলে মম্তব্য করেছে৷‌

কাটোয়া থেকে চন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায়: কংগ্রেসের শক্ত ঘাঁটি কাটোয়ায় সন্ত্রাসের থাবা তৃণমূলের৷‌ অভিযোগ, সন্ত্রাস করে, খুনের হুমকি দিয়ে, বলপ্রয়োগ করে শনিবার ১৯ নং ওয়ার্ডের কংগ্রেস প্রার্থী নাজনিমা বেগমের প্রার্থিপদ প্রত্যাহার করিয়েছে তৃণমূল৷‌ এই ওয়ার্ডের তৃণমূল প্রার্থী শহর তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি অমর রাম৷‌ মূল অভিযোগ অমরবাবুরই বিরুদ্ধে৷‌ শুধু তাই নয়, ১৩ নং ওয়ার্ডের কংগ্রেস প্রার্থী রীতা ব্যানার্জির স্বামী মলয় ব্যানার্জিকে মারধর ও তাঁর দোকানে গিয়ে রীতাদেবীর প্রার্থিপদ প্রত্যাহার করতেও হুমকি দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ৷‌ বর্ধমান জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি স্বপন দেবনাথ বলেন, ভিত্তিহীন অভিযোগ৷‌

কাঁথি থেকে যজ্ঞেশ্বর জানা: বিরোধীরা প্রার্থিপদ প্রত্যাহার করে নেওয়ায় মনোনয়ন পর্বেই কাঁথি পুরসভায় দুটো আসনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয় পেল তৃণমূল৷‌ শুক্রবার পুরসভার ১৭নং ওয়ার্ডের তৃণমূল প্রার্থী বিধায়ক দিব্যেন্দু অধিকারীর পর শনিবার বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয় নিশ্চিত করলেন পুরসভার ২১নং ওয়ার্ডের তৃণমূল প্রার্থী ও পুরসভার বিদায়ী পুরপিতা সৌমেন্দু অধিকারী৷‌ শনিবার মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিনে ওয়ার্ডের একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী বাম সমর্থিত নির্দল প্রার্থী শেখ সিরাজউদ্দিন তাঁর মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নেওয়ায় দাদা দিব্যেন্দুর মতো সৌমেন্দুও মনোনয়ন পর্বেই নির্বাচিত হন৷‌ শুক্রবার এই ওয়ার্ডের অন্য এক প্রতিদ্বন্দ্বী বি জে পি-র অরুণ জানা তাঁর প্রার্থিপদ ফিরিয়ে নিয়েছিলেন৷‌ কেউ মনোনয়ন তুলতে না চাওয়ায় এই ওয়ার্ডে প্রার্থী দিতে পারছিল না কংগ্রেস৷‌ ২১নং ওয়ার্ডের নির্দল প্রার্থী শেখ সিরাজউদ্দিনের মতো শনিবার প্রার্থিপদ প্রত্যাহার করে নেন কংগ্রেসের ৬ জন ও বি জে পি-র ৪ জন এবং নির্দল এক প্রার্থী৷‌

সাঁইথিয়া থেকে অনুপম বন্দ্যোপাধ্যায়: দেওয়াল লিখন ঘিরে তৃণমূল-বি জে পি সঙঘর্ষে উত্তপ্ত হল সাঁইথিয়া৷‌ সঙঘর্ষে জখম এক তৃণমূল কর্মী সাঁইথিয়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন৷‌ সাঁইথিয়ার ১৫ নম্বর ওয়ার্ডের নেতাজি পল্লিতে শুক্রবার রাত ৯টা নাগাদ দু’পক্ষে সঙঘর্ষ হয়৷‌ আসন্ন পুর নির্বাচনে এই ওয়ার্ডের বি জে পি প্রার্থী সঞ্জয় মুখার্জি-সহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে এই ঘটনায় সাঁইথিয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন সঙঘর্ষে জখম তৃণমূল কর্মী আর্যসারথি মুখার্জি৷‌ তাঁর অভিযোগ, ১৫ নম্বর ওয়ার্ডে তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে চিহ্নিত করে রাখা দেওয়ালে বি জে পি প্রার্থীর প্রচার-লিখন মুছে ফেলতে বললে স্হানীয় বি জে পি প্রার্থী সঞ্জয় মুখার্জি-সহ কয়েকজন দলীয় কর্মী তাঁকে লাঠি, ভোজালি নিয়ে মারধর করে, মেরে মাথা ফাটিয়ে দেয়৷‌ অন্য দিকে বি জে পি প্রার্থী সঞ্জয় মুখার্জির অভিযোগ, তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে তাঁকে কয়েক দিন ধরেই প্রার্থিপদ প্রত্যাহার করে নেওয়ার জন্য নানাভাবে চাপ দেওয়া হচ্ছে! তাঁকে আর্থিক টোপও দেওয়া হয়েছে বলে বি জে পি প্রার্থীর অভিযোগ৷‌ নাম প্রত্যাহারে তিনি রাজি না হওয়ার জন্যই তাঁকে ফাঁসাতে পরিকল্পিতভাবে তাঁর বিরুদ্ধে মারধরের মিথ্যা অভিযোগ আনা হয়েছে বলে স্হানীয় বি জে পি নেতা কাশীনাথ মণ্ডলের অভিযোগ৷‌

হুগলি থেকে নীলরতন কুণ্ডু: বাঁশবেড়িয়া পুরসভার ১৬ নং ওয়ার্ডের কংগ্রেস প্রার্থী শঙ্কর বিশ্বাসের বাড়িতে হামলা ও ভাঙচুর চালানোর অভিযোগ উঠল৷‌ অভিযোগের তীর তৃণমূলের দিকে, বিষয়টি থানায় জানিয়ে অভিযোগ দায়ের করেছেন প্রার্থী৷‌ পুলিস ঘটনার তদম্ত শুরু করেছে৷‌ শঙ্করের অভিযোগ, শুক্রবার রাত ২টো ৪০ মিনিট নাগাদ ৪টে মোটরবাইকে করে ১০-১২ জন দুষ্কৃতী তাঁর বাড়ির সামনে এসে নাম ধরে ডাকে ও অশ্লীল গালিগালাজ করে৷‌ তাদের মুখে কালো কাপড় বাঁধা ছিল৷‌ তারা দরজা-জানলায় ইট-পাটকেল ছোঁড়ে৷‌ ভেঙে যায় জানলার কাচ৷‌ প্রার্থিপদ তুলে নিতে তারা হুমকি দেয় বলেও অভিযোগ৷‌ তার আগে রাত সাড়ে ১০টা নাগাদ তাঁর মোবাইলে ফোন করে প্রার্থিপদ প্রত্যাহারের জন্য হুমকি দেওয়া হয় বলেও অভিযোগ৷‌ এই নম্বরটি-সহ গোটা বিষয়টি রাতেই মগরা থানায় জানানো হলে পুলিস রাতেই ঘটনাস্হলে পৌঁছে ঘটনার তদম্ত শুরু করে৷‌





kolkata || bangla || bharat || editorial || post editorial || nepathya bhasan || khela ||
sunday || Tripura || Error Report || archive || first page

B P-7, Sector-5, Bidhannagar, Kolkata - 700091, Phone: 30110800, Fax: 23675502/5503
Copyright © Aajkaal Publishers Limited

Designed, developed & maintained by   Remote Programmer Private Limited