Aajkaal: the leading bengali daily newspaper from Kolkata
কলকাতা ১১ মাঘ ১৪২১ সোমবার ২৬ জানুয়ারি ২০১৫
 প্রথম পাতা   কলকাতা  বাংলা  ভারত  বিদেশ  সম্পাদকীয়  খেলা  আজকাল-ত্রিপুরা   পুরনো সংস্করন  বইঘর 
বারাক! ডাক দিলেন নমো ।। ধর্মাম্তর, অর্ডিন্যান্সের সমালোচনা প্রণবের ।। পুরভোটে রিগিং হলে প্রতিরোধ হবে: নিরঞ্জন--গৌতম রায় ।। শোভন চ্যাটার্জির শ্যালকের রহস্যজনক মৃত্যু--গৌতম চক্রবর্তী ।। দল অনেক শুনেছে এবার তৃণমূল বলবে--দীপঙ্কর নন্দী ।। বাবুল বললেন, পুলিস নয়, দোষী প্রশাসনই! ।। ছাত্রীর আত্মহত্যা: স্কুল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে প্ররোচনার মামলা রুজু ।। কুলতলিতে মহিলাকে বিবস্ত্র করে গাছে বেঁধে মারধর তৃণমূলি নেতার! ।। ‘পদ্মবিভূষণ’ সম্মান আদবানি, অমিতাভ বচ্চন, দিলীপকুমার... ।। সাধারণতন্ত্র দিবসে বাংলার পদক-সম্মান ।। সাধারণতন্ত্র দিবসে কড়া নিরাপত্তা রাজ্যে ।। মমতার বাড়িতে কীর্তি আজাদ
আজকাল-ত্রিপুরা

পূর্ণ রাজ্য দিবস উদ‍্যাপন সাঙ্গ হল

ভোটার দিবসে বললেন মুখ্য সচিব

উৎসব আর অনুষ্ঠানমালা চলছে

সাধারণতন্ত্র দিবস: দিল্লির রাজপথে শোভাযাত্রায় থাকবে ত্রিপুরার রিপা

শুরু এয়ারপোর্ট সংস্কার

হিমাচল ম্যাচের দলগঠন আজ বাদ পড়তে পারেন সোলাঙ্কি

দুঃস্হ শিশু, মহিলাদের পাশে মাঙ্গলিক, সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা

সাধারণতন্ত্র দিবস ঘিরে কঠোর নিরাপত্তা-ব্যবস্হা

আজ সাধারণতন্ত্র দিবস

জানালেন বিজয় রাঙ্খল

পূর্ণ রাজ্য দিবস উদ‍্যাপন সাঙ্গ হল

সংবিধানের ধর্মনিরপেক্ষতা রক্ষা করতেই হবে: বাদল

Google plus share Facebook share Twitter share LinkedIn share

আজকালের প্রতিবেদন: ভারতীয় সংবিধানের ধর্মনিরপেক্ষতার নীতি নস্যাৎ করার সমস্ত রকম অপপ্রয়াস সচেতন প্রতিরোধে ব্যর্থ করার আহ্বান জানালেন রাজ্যে পূর্ত ও স্বাস্হ্য দপ্তরের মন্ত্রী বাদল চৌধুরি৷‌ সাধারণতন্ত্র দিবসের প্রাক্কালে তাঁর সতর্কবার্তা, আমাদের দেশের শক্তির মূল আধার হচ্ছে গণতন্ত্র এবং ধর্মনিরপেক্ষতা৷‌ কিন্তু রাজনীতির সঙ্গে ধর্মকে মিশিয়ে এ দেশের মানুষের মধ্যে বিভাজন আনার চেষ্টা হচ্ছে৷‌ দেশটাকে খণ্ড খণ্ড করার চেষ্টা হচ্ছে৷‌ জাতি, ধর্ম, বর্ণ, সম্প্রদায় নির্বিশেষে ভারতবাসী ঐক্যবদ্ধভাবে এর মোকাবিলা করবেন, এই বিশ্বাস আমাদের আছে৷‌ রবিবার উমাকাম্ত আকাদেমি প্রাঙ্গণে পাঁচ দিনের পূর্ণ রাজ্য দিবস উদ‍্যাপন কর্মসূচির সমাপ্তি অনুষ্ঠানে বাদল বক্তব্য পেশ করছিলেন৷‌ এই উপলক্ষে এদিন আলোচনাচক্র, পুরস্কার বিতরণ এবং সন্ধেয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আয়োজিত হয়৷‌ বিকেলে সাংস্কৃতিক মঞ্চে অনুষ্ঠিত আলোচনাচক্রের বিষয় ছিল ‘গণতন্ত্র, ধর্মনিরপেক্ষতা, জনগণের ক্ষমতায়ন ও ত্রিপুরা’৷‌ পূর্ত ও স্বাস্হ্য দপ্তরের মন্ত্রী বাদল চৌধুরি, ক্রীড়া ও যুবকল্যাণ বিষয়ক দপ্তরের মন্ত্রী সহিদ চৌধুরি এবং বিশিষ্ট সাংবাদিক সত্যব্রত চক্রবর্তী এই বিষয়ে আলোচনা করেন৷‌ অনুষ্ঠানে আলোচনাকালে পূর্ত ও স্বাস্হ্য দপ্তরের মন্ত্রী দেশের সার্বিক স্বার্থেই গণতন্ত্র সুদৃঢ় করা, ধর্মনিরপেক্ষ নীতিকে শক্তিশালী করা এবং জনগণকে ক্ষমতা দান করার ওপর গুরুত্ব দিয়েছেন৷‌ তিনি জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সকল অংশের মানুষের প্রতি রাজনীতির ঊধের্ব উঠে সংবিধানের ধর্মনিরপেক্ষ নীতিকে শক্তিশালী করার কাজে এগিয়ে আসতে আহ্বান জানান৷‌ পাশাপাশি দেশকে শক্তিশালী করার জন্য আমাদের সংবিধানে আমাদের জন্য যে যে ব্যবস্হা রাখা হয়েছে, তার প্রতি সম্মান জানানোর ওপরও গুরুত্ব আরোপ করেছেন৷‌ তিনি বলেন, আমাদের মূল শক্তি হচ্ছে গণতন্ত্র এবং ধর্মনিরপেক্ষতা৷‌ কিন্তু কিছুদিন যাবৎ দেশের ধর্মনিরপেক্ষ নীতিকে নস্যাৎ করে কিছু শক্তি দেশকে টুকরো টুকরো করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে৷‌ তিনি বলেন, বিভাজন দেশের মানুষের সর্বনাশ ডেকে আনে৷‌ স্বাধীনতার সময় ইংরেজরা বিভাজন সৃষ্টি করে ভারতবর্ষকে দু ভাগে বিভক্ত করে দিয়েছে৷‌ যার পরিণাম আমরা দেখতে পাচ্ছি৷‌ প্রসঙ্গক্রমে তিনি রাজনীতিকে ধর্মের সঙ্গে যুক্ত করার বিরোধিতা করেন৷‌ পূর্তমন্ত্রী বলেন, আমাদের সংবিধানে গণতন্ত্রের প্রতি জোর দেওয়া হয়েছে৷‌ এই ক্ষেত্রে মানুষকে সঙ্গে নিয়ে কাজ করার কথা বলা হয়েছে৷‌ ত্রিপুরায় বামফ্রন্ট সরকার এই নীতিকে সম্মান জানিয়ে কাজ করছে৷‌ পাশাপাশি রাজ্যের পঞ্চায়েত, এ ডি সি-সহ বিভিন্ন স্তরের নির্বাচিত কমিটির হাতে ক্ষমতা দিয়ে কাজ করে যাচ্ছে, যা ক্ষমতায়নেরই অঙ্গ৷‌

ক্রীড়া ও যুবকল্যাণ বিষয়ক মন্ত্রী সহিদ চৌধুরি বলেন, আজকের যুগে গণতন্ত্র এক অপরিহার্য বিষয়৷‌ ভারত পৃথিবীর মধ্যে বৃহত্তম গণতান্ত্রিক দেশ হলেও সন্ত্রাস, নারী নির্যাতন ও ক্ষুধা, দারিদ্র্য, অশিক্ষা এই গণতন্ত্রের পথে বাধার কারণ৷‌ বিচ্ছিন্নতাবাদ, ধর্মীয় গোঁড়ামি মাথাচাড়া দিচ্ছে৷‌ সবাই মিলে একে প্রতিরোধ করে দেশের মূল আদর্শকে প্রতিষ্ঠা করার ওপরও তিনি গুরুত্ব আরোপ করেন৷‌ তিনি বলেন, দুর্বল, পিছিয়ে-পড়া এবং সংখ্যালঘু অংশের মানুষ কতটুকু ক্ষমতা ভোগ করছে, এর ওপর গণতন্ত্র নির্ভর করে৷‌ অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে সকলকে অম্তর্ভুক্ত করা, সবার জন্য উন্নয়ন, সবার শিক্ষা, স্বাস্হ্য– এই সব বিষয়গুলি ঠিক ঠিকভাবে করতে পারলে গণতন্ত্র ও ক্ষমতায়ন সফল হবে৷‌ বামফ্রন্ট সরকার সুনির্দিষ্ট লক্ষ্য নিয়ে এই কাজ রূপায়ণ করছে এবং এর সুফলও মানুষ ভোগ করছেন বলে তিনি উল্লেখ করেন৷‌ অনুষ্ঠানে বিশিষ্ট সাংবাদিক সত্যব্রত চক্রবর্তী বলেন, দীর্ঘ আত্মপরীক্ষার মধ্য দিয়ে আমরা গণতন্ত্রের এই জায়গায় এসে পৌঁছেছি৷‌ ত্রিপুরায় শক্তিশালী পঞ্চায়েত ব্যবস্হা এখানকার গণতন্ত্রের অন্যতম দৃষ্টাম্ত বলেও তিনি উল্লেখ করেন৷‌ সত্যব্রত বলেন, নির্বাচিত বিভিন্ন সংস্হার মাধ্যমে এখানকার উপজাতিদের অবস্হার উন্নয়ন করা হচ্ছে৷‌ যা দেশের অন্যান্য রাজ্যের তুলনায় উল্লেখ করার মতো৷‌ এখানকার নারীদের ক্ষমতায়নেও ত্রিপুরা সারা দেশের কাছে আদর্শ হতে পারে৷‌

অনুষ্ঠানে মুখ্য সচিব ড. জি কামেশ্বর রাও উপস্হিত ছিলেন৷‌ আলোচনাচক্রের পর ত্রিপুরা পূর্ণ রাজ্য দিবস উদ‍্যাপন উপলক্ষে ৫ দিনের ‘ত্রিপুরার পথ চলা’ শীর্ষক প্রদর্শনীর প্রথম, দ্বিতীয় এবং তৃতীয় স্হানাধিকারী প্রদর্শনী মণ্ডপগুলিকে পুরস্কৃত করা হয়৷‌ প্রথম পুরস্কার পেয়েছে ত্রিপুরা বিদ্যুৎ উন্নয়ন নিগম, দ্বিতীয় উদ্যান দপ্তর এবং তৃতীয় হয়েছে সমাজকল্যাণ ও সমাজশিক্ষা দপ্তর৷‌ সন্ধেয় মঞ্চে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বিভিন্ন সংস্হা এবং বিশিষ্ট শিল্পীরা অনুষ্ঠান পরিবেশন করেন৷‌





kolkata || bangla || bharat || bidesh || editorial || khela || Tripura ||
Error Report || archive || first page

B P-7, Sector-5, Bidhannagar, Kolkata - 700091, Phone: 30110800, Fax: 23675502/5503
Copyright © Aajkaal Publishers Limited

Designed, developed & maintained by   Remote Programmer Private Limited