Aajkaal: the leading bengali daily newspaper from Kolkata
কলকাতা ১৫ মাঘ ১৪২১ শুক্রবার ৩০ জানুয়ারি ২০১৫
 প্রথম পাতা   কলকাতা  বাংলা  ভারত  সম্পাদকীয়  খেলা  আজকাল-ত্রিপুরা   পুরনো সংস্করন  বইঘর 
আজ সি বি আই-তে যাচ্ছেন মুকুল--দীপঙ্কর নন্দী ।। ডিম থেকে মাছ যে-কোনও ছোট শিল্পই স্বাগত: মমতা ।। ডি জে চালিয়ে চটুল নাচ, প্রতিবাদ করে আক্রাম্ত আবৃত্তিকার পার্থ ঘোষ, গৌরী ঘোষ ।। কলম্বাসের পদসঞ্চার পাইনো উপজাতিকে উপড়ে ফেলেছিল ।। দিল্লিতে ত্রিপক্ষ বৈঠকে ৬ দফা দাবি মোর্চার ।। এগোচ্ছে আপ? মোদি-শাহ শেষ সপ্তাহে ঝড় তুলতে চান ।। ইভটিজিং: মার খেয়ে কোমায় গেলেন যুবক ।। গডসেকে নিয়ে মেতেছে কিছু পাগল: আর এস এস ।। উত্তরবঙ্গে ১০০ বিঘা জমির খোঁজ দিলেন সুদীপ্ত সেন--সোমনাথ মণ্ডল ।। ওয়াইফাই সিটি হচ্ছে কলকাতা: মেয়র ।। প্রয়াত সুভাষ ঘিসিং ।। যাদবপুরে জয় কলরবের
আজকাল-ত্রিপুরা

৪ শহরে গরিবদের জন্য ২০২৭টি ঘর: মানিক দে

রনজি: চোট-আঘাত, অশাম্তি রাজ্য দলের শিবিরে

সদর স্কুল ক্রিকেটের ক্রীড়াসূচি ঘোষিত

২৫তম শিল্প-বাণিজ্য মেলা শুরু

গোমতী জেলা সম্মেলনের প্রস্তুতি তুঙ্গে: ব্যস্ত সি পি এম নেতা-কর্মীরা

৭ ফেব্রুয়ারি মানিকের সমাবেশ

কচ্ছপ ও মাছ প্রজনন বাড়াতে একগুচ্ছ ব্যবস্হা

এক সময় ছিলেন চিটফান্ড কর্মী ও কং নেতা

সি পি এমের ৫০ বছর

হস্ততাঁত বস্ত্র মেলা শুরু সোনামুড়ায়

রিমনের শতরানে জিতল ইউঃ ফ্রেন্ডস

সুদীপেরা দিল্লিমুখী: বি জে পি-তে যোগদানের জল্পনা অস্বীকার

দাপট বিনয়, বাচ্চুর সংহতি জয় মৌচাকের

কমলপুরে শুরু সবজি, ফুল প্রদর্শনী, মেলা

রাজ্য ভলিবল: জার্সি স্পনসর পেল

উদয়পুর পুলিস কোর্টের মালখানা থেকে অস্ত্র চুরি: ২ জনের কারাদণ্ড বহাল

৪ শহরে গরিবদের জন্য ২০২৭টি ঘর: মানিক দে

Google plus share Facebook share Twitter share LinkedIn share

আজকালের প্রতিবেদন: অমরপুর, সাব্রুম, কুমারঘাট, খোয়াই– এই চার শহরে গরিবদের জন্য ২,০২৭টি আবাসঘর তৈরি হবে৷‌ ঘরের সঙ্গে থাকবে পানীয় জল, রান্নাঘর, শৌচালয়, পয়ঃপ্রণালী, আবর্জনা ফেলার জায়গা, ড্রেন, স্ট্রিট লাইট৷‌ পরিবারপিছু বরাদ্দ ৪ লাখ ৫৪ হাজার টাকা৷‌ ১০০ কোটি টাকার প্রকল্প ৫ শহরের জন্য৷‌ রাজীব আবাস যোজনায় এই বাবদ কেন্দ্রীয় সরকার অমরপুর, সাব্রুম, কুমারঘাট ও খোয়াই– এই চার শহরের জন্য প্রথম পর্যায়ে ২৯ কোটি ৯৭ লাখ টাকার মঞ্জুরি দিয়েছে৷‌ বৃহস্পতিবার মহাকরণে নগরোন্নয়ন মন্ত্রী মানিক দে এই খবর জানিয়ে বলেন, প্রতি ঘর বাবদ ৩ লাখ ৩৯ হাজার টাকা, শৌচালয় সংস্কার বাবদ ২৯ হাজার টাকা এবং পরিকাঠামোগত ওই সব সুযোগসুবিধা সম্প্রসারণে পরিবারপিছু আরও ৮৬ হাজার টাকা করে বরাদ্দ৷‌ সব মিলিয়ে পরিবারপিছু ৪ লাখ ৫৪ হাজার টাকা বরাদ্দ৷‌ এর মধ্যে অমরপুরে হবে ৫৯৮টি ঘর, সঙ্গে ৯৬টি শৌচালয় সংস্কার হবে৷‌ সাব্রুমে হবে ৩৩১টি আবাসঘর, সঙ্গে ৭২টি শৌচালয়৷‌ কুমারঘাটে ৫০৭টি ঘর, সঙ্গে ১১১টি শৌচালয়৷‌ এবং খোয়াইয়ে হবে ৫৯১টি ঘর, সঙ্গে ৬৯৯টি শৌচালয় সংস্কার৷‌ যাঁদের নিজস্ব জমি আছে, অথচ থাকার ভাল ঘর নেই, তাঁদের জন্যই এই যোজনা৷‌ অনেক পরিবারের ঘর থাকলেও ভাল শৌচালয় নেই৷‌ তাঁদেরও শৌচালয় সংস্কার করে দেওয়া হবে৷‌ নগরোন্নয়ন মন্ত্রী বলেন, প্রায় ১০০ কোটি টাকার প্রকল্প৷‌ ঠিকঠাক হিসেবে ৯৮ কোটি ৭৯ লাখ টাকা৷‌ এর মধ্যে কেন্দ্রীয় সরকার দেবে ৮০ শতাংশ, অর্থাৎ ৭৭.৯২ কোটি৷‌ ১০ শতাংশ ওই সব শহরের নগর পঞ্চায়েত বা পুর পরিষদের পক্ষ থেকে মেটাতে হবে৷‌ অবশিষ্ট ১০ শতাংশ টাকা পরিবারগুলির পক্ষ থেকে দিতে হবে৷‌ তিনি বলেন, এত দিন কোনও প্রকল্পের ৯০ শতাংশ টাকা কেন্দ্রীয় সরকারকে এবং ১০ শতাংশ উত্তর-পূর্বাঞ্চলের রাজ্যগুলিকে মেটাতে হত৷‌ কিন্তু কেন্দ্রীয় সরকার নতুন নিয়ম করে দিয়েছে, কেন্দ্রীয় সরকার প্রকল্পের ৮০ শতাংশ টাকা দেবে৷‌ এদিকে, শহরি বিকাশ মন্ত্রক, ন্যাশনাল আরবান লাইভলিহুড মিশন প্রকল্পে, বিশ্রামগঞ্জ বাদে রাজ্যের ৭ জেলা সদরের স্বসহায়ক গোষ্ঠীর কমিউনিটি ঘর ইত্যাদি নির্মাণের জন্য রাজ্যকে ৯ কোটি ৪৬ লাখ ২৪ হাজার টাকা দিয়েছে৷‌ নগরোন্নয়ন মন্ত্রী আরও জানান, আগরতলা শহরের রাধানগর ও জয়নগর বস্তিবাসীদের জন্য বেসিক সার্ভিস ফর আরবান পুওর (বি এস ইউ পি) প্রকল্পে তৈরি ফ্ল্যাটবাড়ি বণ্টনের কাজ শিগগিরই শেষ করতে পুর নিগমকে বলা হয়েছে৷‌ ১৯২টি করে ফ্ল্যাট৷‌ কাটাখালের পাড়ে এবং রাধানগর বস্তি এলাকায় যাঁরা বসবাস করছেন, তাঁদের মধ্যে এই ফ্ল্যাট বিতরণ করা হবে৷‌ এ ছাড়া হাওড়া নদীর পাড়ে যাঁরা বসবাস করছেন, সেই বস্তিবাসীদের জয়নগরে ফ্ল্যাট দেওয়া হবে৷‌ এর পর নদীর পাড়ে উন্মুক্ত জায়গা সংস্কার করা হবে৷‌ সেখানে আর কাউকে বসতে দেওয়া হবে না৷‌ কাটাখালের পাড়ে এখন যেখানে পরিবহণ ভবন রয়েছে, তার পাশ দিয়ে নতুন সেতু করা হবে৷‌ সেতুর জন্য নদীর পাড়ে যাঁদের ঘরবাড়ি ছেড়ে দিতে হবে, তাঁদেরও রাধানগর ফ্ল্যাটে ঘর দেওয়া হবে৷‌ নগরোন্নয়ন মন্ত্রী বলেন, আগরতলার ডিমসাগরের পাড় বাঁধানোর পর এলাকাবাসীর তরফে দাবি তোলা হয়, তাঁদের বাড়ির পয়ঃপ্রণালীর বর্জ্য জল বেরোনোর পথ নেই, নর্দমা তৈরি করে দেওয়া হোক৷‌ নগরোন্নয়ন দপ্তর সেই দাবি মেনে নর্দমা করে দিচ্ছে৷‌ পূর্ত দপ্তর সেই নর্দমা তৈরি করছে৷‌ এ ছাড়া ডিমসাগরের অন্য পাড়ও বাঁধানোর কাজ চলছে৷‌ তিনি বলেন, আদালতের নির্দেশে কুমারীটিলা জলাশয়ের ধারে জবরদখলকারীদের উচ্ছেদ করা হয়েছে৷‌ যাঁরা আর্থিকভাবে দুর্বল, তাঁদের বিবেকানন্দ আবাসনে বা অন্যত্র ঘর দেওয়ার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে৷‌ এখানেও লেকের পাড় বাঁধানোর পরিকল্পনা রয়েছে নগরোন্নয়ন দপ্তরের, বলেন তিনি৷‌ শহরে জলাশয় ভরাটের ব্যাপারে আবারও সতর্ক করে দিয়েছেন নগরোন্নয়ন মন্ত্রী৷‌





kolkata || bangla || bharat || editorial || khela || Tripura || Error Report || archive || first page

B P-7, Sector-5, Bidhannagar, Kolkata - 700091, Phone: 30110800, Fax: 23675502/5503
Copyright © Aajkaal Publishers Limited

Designed, developed & maintained by   Remote Programmer Private Limited