Aajkaal: the leading bengali daily newspaper from Kolkata
কলকাতা ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২১ মঙ্গলবার ২৫ নভেম্বর ২০১৪
 প্রথম পাতা   কলকাতা  বাংলা  ভারত  বিদেশ  সম্পাদকীয়  উত্তর সম্পাদকীয়  খেলা  আজকাল-ত্রিপুরা   পুরনো সংস্করন  বইঘর 
আগামী বিধানসভায় বি জে পি একটি আসনও পাবে না: মমতা ।। কালো টাকা, বিমা বিরোধী জোটে আজ তৃণমূলও--রাজীব চক্রবর্তী ।। কং-তৃণমূল ছাত্র-সঙঘর্ষে উত্তাল বহরমপুরের কলেজ, জখম ৮ ।। ‘অশনি সংকেত’ দেখে মিথ্যাচার আরও বেড়ে গেছে: বিমান বসু ।। হারানো ৮,০০০ গ্রাম-ঘাঁটিতে আবার ঢুকে পড়ছে সি পি এম ।। কাজ করতে না দেওয়ার চক্রাম্ত চলছে: মুখ্যমন্ত্রী ।। জম্মু-কাশ্মীর ও ঝাড়খণ্ডে আজ প্রথম দফার ভোট ।। গোর্খাল্যান্ড? কমিটি গড়ে দিলেন রাজনাথ ।। যুদ্ধাপরাধী প্রাক্তন আওয়ামি নেতার ফাঁসির হুকুম বাংলাদেশে ।। যাদবপুরে শিক্ষক নিয়োগে বেনিয়ম: স্মারকলিপি জুটার ।। অনশন উঠল প্রেসিডেন্সির ।। তিন-চার দিনেই কলকাতায় শীত আসছে
ভারত

কালো টাকা, বিমা বিরোধী জোটে আজ তৃণমূলও

জম্মু-কাশ্মীর ও ঝাড়খণ্ডে আজ প্রথম দফার ভোট

সংস্কার-উচ্চাশী মোদিকে ইউ পি এ আমলের বিল নিয়েও চিম্তায় রাখছে কং

মুরলী দেওরার জীবনাবসান

স্মৃতি রাষ্ট্রপতি হবেন! আশ্বাস গনতকারের

ওড়িশায় সি বি আই: চিটফান্ডের টাকা নেতা, বিধায়কদের ঘরেই

এ কেমন নিরাপত্তা? প্রশ্ন যশোদাবেনের

তৃণমূলকে ঠেস বাবুলের

খুচরো খবর

কালো টাকা, বিমা বিরোধী জোটে আজ তৃণমূলও

Google plus share Facebook share Twitter share LinkedIn share

রাজীব চক্রবর্তী: দিল্লি, ২৪ নভেম্বর– এবার রাজ্যসভায় গুরুত্বপূর্ণ বিল পাস করাতে বেশ বেগ পেতে হবে এন ডি এ সরকারকে৷‌ ভোগাবে বিমা বিল, শ্রম আইন সংশোধনী বিল ও জমি বিলের মতো বিলগুলি৷‌ বাম বা ‘জনতা পরিবার’-এর দলগুলি তো আছেই, বিশেষভাবে তৎপর এবার তৃণমূল কংগ্রেসও৷‌ বিমা এবং শ্রম আইন সংশোধনী বিলের ক্ষেত্রে বামেদের পাশে পাওয়ার আশা করছে তৃণমূল৷‌ বিমায় বেসরকারি লগ্নি এবং শ্রম আইনে ন্যূনতম শ্রমিকের সংখ্যা ২০ জন থেকে বাড়িয়ে ৪০ জন করার প্রস্তাব আনতে চলেছে সরকার৷‌ অনেক আগেই বামেরা এই দুটি বিলের বিরোধিতা করার কথা জানিয়েছে৷‌ অধিবেশনের শুরুতেই কালো টাকা ইস্যুতে সংসদে সরকারকে কোণঠাসা করতে উদ্যোগী হল তৃণমূল৷‌ তৃণমূলের সঙ্গে যোগ দিয়েছে জে ডি (ইউ) ও সমাজবাদী পার্টি৷‌ আজ রাজ্যসভার চেয়ারম্যান হামিদ আনসারির কাছে তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন এবং জে ডি (ইউ) সাংসদ কে সি ত্যাগী নোটিস দিয়েছেন, আগামীকাল প্রশ্নোত্তরপর্ব বাতিল করে যেন কালো টাকা নিয়ে আলোচনা হয়৷‌ সমাজবাদী পার্টি ওই নোটিসে নিজেদের যুক্ত করেছে৷‌ আগামীকাল লোকসভাতেও কালো টাকা নিয়ে সরব হবেন তৃণমূল সাংসদরা৷‌ স্পিকার সভা মুলতুবি রাখলে সংসদ-চত্বরে ধর্নায় বসবেন তৃণমূল সাংসদরা৷‌ সেক্ষেত্রে কালো টাকা ছাড়াও যুক্ত হবে সারদা-কাণ্ডে সি বি আই-কে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে কাজে লাগানো এবং বর্ধমান বিস্ফোরণ-কাণ্ডে ‘অহেতুক’ তৃণমূলের নাম জড়ানোর মতো বিষয়গুলি৷‌ আজ রাজ্যসভার ‘বিজনেস অ্যাডভাইসরি কমিটি’র বৈঠকে সরকার চলতি সপ্তাহেই শ্রম আইন সংশোধনী বিল পাস করানোর প্রবল ইচ্ছা প্রকাশ করেছে৷‌ বিমায় বেসরকারি বিনিয়োগের হার বাড়ানো সংক্রাম্ত বিলটি নিয়েও চিম্তিত সরকার৷‌ এই বিলটি এখন রাজ্যসভার সিলে’ কমিটির হাতে৷‌ অতি দ্রুত সিলে’ কমিটির বৈঠক সেরে নিতে মরিয়া সরকার৷‌ এখানেই কৌশলগতভাবে বাদ সাধতে চাইছে তৃণমূল, জে ডি (ইউ)-সহ বিরোধী দলগুলো৷‌ নানা ইস্যুতে সিলে’ কমিটির বৈঠক পিছিয়ে দেওয়ার কৌশল নেওয়া হয়েছে বলে তৃণমূল সূত্রের খবর৷‌ সব মিলিয়ে কাল রাজ্যসভায় হই-হট্টগোলের সম্ভাবনা৷‌ মঙ্গলবারই রাজ্যসভার বিমা বিল সংক্রাম্ত সিলে’ কমিটিতে বি জে পি-র জগৎপ্রকাশ নাড্ডা ও মুখতার আব্বাস নাকভিদের (দু’জনেই মন্ত্রী হওয়ায়) পরিবর্তে নতুন দু’জন সদস্যের মনোনয়ন ও অম্তর্ভুক্তির উদ্দেশ্যে প্রস্তাব আনার কথা আছে৷‌ বৃহস্পতিবার সিলে’ কমিটির বৈঠক হওয়ার কথা৷‌ তার আগেই নতুন সদস্যদের অম্তর্ভুক্তি চাইছে সরকার৷‌ বর্তমানে ১৫ সদস্যের এই কমিটির চেয়ারম্যান রয়েছেন বি জে পি-র চন্দন মিত্র৷‌ বাকি ১৪ জনের মধ্যে রয়েছেন বি জে পি-র ২ জন, কংগ্রেস ৩ এবং একজন করে সদস্য রয়েছেন সি পি এম, তৃণমূল, জে ডি (ইউ), এ আই এ ডি এম কে, এস পি, বি এস পি, বি জে ডি, শিরোমণি অকালি দল ও নির্দলের৷‌ তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন এদিন বলেন, বিমা বিলের তীব্র বিরোধিতা করব৷‌ মোদি সরকার কালো টাকা বিদেশ থেকে ফিরিয়ে আনার কথা বলে ভোটে জিতেছে৷‌ অথচ সরকারের ছ’মাস হয়ে গেলেও কালো টাকা উদ্ধারের নামগন্ধ পাওয়া গেল না৷‌ এ নিয়ে আলোচনা চাই৷‌ ডেরেক বলেন, শ্রম আইনে সংশোধনের নামে সরকার জনবিরোধী ও শ্রমিক-বিরোধী আইন আনতে চাইছে৷‌ একই কথা জানিয়েছেন, জে ডি (ইউ) সাংসদ কে সি ত্যাগী৷‌ তিনি বলেন, কালো টাকা উদ্ধারের গল্প শুনিয়ে ক্ষমতায় এসে এখন মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছে সরকার৷‌ ওদিকে, অরুণ জেটলির পর বেঙ্কাইয়া নাইডুও সরব হলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে৷‌ জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালকে আর এস এসের সমব্যথী আখ্যা দেওয়ায় এদিন তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জির কড়া সমালোচনা করলেন সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী বেঙ্কাইয়া৷‌ তিনি বলেন, সম্পূর্ণ মিথ্যা অভিযোগ৷‌ একজন ন্যায়পরায়ণ আধিকারিক হিসেবেই দোভালকে সবাই চেনেন৷‌ তিনি (মমতা) কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে অপরাধীদেরই সাহায্য করছেন৷‌ মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি বর্ধমান বিস্ফোরণ-কাণ্ডকে বি জে পি-র মস্তিষ্কপ্রসূত বলে অভিযোগ তোলার পর গতকাল তার তীব্র নিন্দা করেন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি৷‌ জেটলি বলেন, মমতার এই ধরনের মম্তব্য দেশদ্রোহীদের অনুপ্রাণিত করবে৷‌ এর প্রতিক্রিয়ায় তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন বলেছিলেন, বর্ধমান বিস্ফোরণে তৃণমূল কোনওভাবেই জড়িত নয়৷‌ বি জে পি রাজনৈতিক স্বার্থে এই বিষয়টিকে জাতীয় ইস্যু করে তুলতে চাইছে৷‌ এন আই এ আসলে আর এস এসের সমব্যথী, এ কথা সবাই জানেন৷‌ লক্ষণীয়, এই বিবাদে কংগ্রেসের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের প্রশ্রয় মমতা ব্যানার্জির দিকেই৷‌ কংগ্রেসের লোকসভার নেতা মল্লিকার্জুন খাড়গে বলেছেন, মমতা ব্যানার্জি যে অভিযোগ তুলেছেন তার নিশ্চয় কোনও কারণ আছে৷‌ বিনা কারণে তিনি এই ধরনের অভিযোগ করবেন কেন৷‌





kolkata || bangla || bharat || bidesh || editorial || post editorial || khela ||
Tripura || Error Report || archive || first page

B P-7, Sector-5, Bidhannagar, Kolkata - 700091, Phone: 30110800, Fax: 23675502/5503
Copyright © Aajkaal Publishers Limited

Designed, developed & maintained by   Remote Programmer Private Limited