Aajkaal: the leading bengali daily newspaper from Kolkata
কলকাতা ৬ কার্তিক ১৪২১ শুক্রবার ২৪ অক্টোবার ২০১৪
 প্রথম পাতা   কলকাতা  বাংলা  ভারত  বিদেশ  সম্পাদকীয়  উত্তর সম্পাদকীয়  খেলা   পুরনো সংস্করন  বইঘর 
মোম, আতশের আলোয় মাতোয়ারা রাজ্যে থিমও এবার নায়ক--কাকলি মুখোপাধ্যায় ।। আজ খাগড়াগড়ের ঘটনাস্হলে যাবেন এন আই এ-র ডি জি--চন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায় ।। পুলিস হাসপাতালের সামনেই দেদার ‘ক্যাডবেরি’!--সোমনাথ মণ্ডল ।। টাকার উৎস খুঁজতে জেলা পুলিসেরই সাহায্য নিচ্ছে এন আই এ, ই ডি ।। কলকাতার কাউন্সিলরদের নিয়ে বৈঠক ডাকলেন মমতা--দীপঙ্কর নন্দী ।। তৃণমূল কাউন্সিলরের নেতৃত্বে তথ্যপ্রযুক্তি কর্তাকে মারধর, অফিস ভাঙচুর দুর্গাপুরে ।। শিবসেনা: ১৯৯৫-এর সূত্র বি জে পি: কী করে হবে? ।। শরিফকে গদিচ্যুত করতে জনমত গড়বেন বিলাওল ।। কেশপুরে তৃণমূল নেত্রী খুনে সন্দেহের তীর স্বামীর দিকে ।। জনসংযোগ বাড়াতে রাজ্য মানবাধিকার কমিশন এবার ফেসবুকে ।। সিয়াচেনের হিম-কঠোর উচ্চতায় মোদির দেওয়ালি ।। খুলেও খুলল না জেসপ, হতাশায় ৬৫০ শ্রমিক!
ভারত

সিয়াচেনের হিম-কঠোর উচ্চতায় মোদির দেওয়ালি

কাঁটা সরল?

শিবসেনা: ১৯৯৫-এর সূত্র বি জে পি: কী করে হবে?

সুইস ব্যাঙ্কে ইউ পি এ মন্ত্রীর কালো টাকা?

খুচরো খবর

সিয়াচেনের হিম-কঠোর উচ্চতায় মোদির দেওয়ালি

Google plus share Facebook share Twitter share LinkedIn share

সিয়াচেন ও শ্রীনগর, ২৩ অক্টোবর (সংবাদ সংস্হা)– এবার দীপাবলি একটু অন্যভাবে কাটাবেন৷‌ আগেই ঠিক করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷‌ গতকাল টুইটারে জানিয়েছিলেন জম্মু-কাশ্মীরে বন্যা-দুর্গতদের সঙ্গে দুঃখকষ্ট ভাগ করে নেবেন৷‌ আজ বায়ুসেনার বিশেষ বিমানে কাশ্মীর রওনা দেন প্রধানমন্ত্রী৷‌ তবে শ্রীনগর নয়, তাঁর প্রথম গম্তব্য ছিল সিয়াচেন৷‌ ভয়ঙ্কর প্রতিকূলতার মধ্যে যাঁরা দেশের সীমানায় অতন্দ্র পাহারায় আছেন, তাঁদের পাশে গিয়ে দাঁড়ালেন৷‌ সিয়াচেন হিমবাহে কর্তব্যরত জওয়ানদের সঙ্গে দেখা করে বললেন, প্রধানমন্ত্রী হিসেবে আমার প্রথম দেওয়ালি কাটাতে এসেছি আপনাদের সঙ্গে৷‌ সেনাবাহিনীর প্রশংসায় মোদি মুখর ছিলেন এদিন একের পর এক টুইটারে৷‌ পোস্ট করেছেন ছবিও– মিঠাই ও নানা উপহার সামগ্রী বিনিময়ের৷‌ প্রধানমন্ত্রী লিখেছেন, ‘মারাত্মক ঠান্ডা হোক, বা আকাশছোঁয়া উচ্চতা, কোনও কিছুই আমাদের সেনাকে দমাতে পারে না৷‌ আমাদের গর্ব ওঁরা’৷‌ এখান থেকে রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জিকে দীপাবলির শুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী৷‌ টুইট করেছেন, ‘নিঃসন্দেহে অভিনব বার্তা পেলেন প্রণবদা৷‌ এমন উচ্চতা থেকে নিশ্চয় ওঁকে আগে কেউ শুভেচ্ছা জানাননি’৷‌ ৯ বছর পর সিয়াচেনে কোনও প্রধানমন্ত্রী পা রাখলেন৷‌ ২০০৫-এ সেখানে যান প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং৷‌ এদিন প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গী ছিলেন সেনাপ্রধান দলবীর সিং সুহাগ৷‌ বিমান থেকে নেমে হেলিকপ্টারে যান ১২ হাজার ফুট উচ্চতার সেনা ছাউনিতে৷‌ জওয়ানদের সঙ্গে দেখা করে শুভেচ্ছা-বিনিময় করেন৷‌ বলেন, ‘আপনারা আছেন বলেই দীপাবলি শুভ৷‌ এই দিনটি উদ‍্যাপন করছে সারা দেশ৷‌ কারণ ওরা জানে যে-কোনও পরিস্হিতিতে দেশের জন্য আত্মত্যাগ করতে প্রস্তুত আপনারা৷‌’ আগাম খবর দিয়ে আসেননি কেন? ‘আপনজনের কাছে আসতে কি আগেভাগে খবর দিতে হয়?’ মম্তব্য মোদির৷‌ প্রধানমন্ত্রীর সিয়াচেন সফর পাকিস্তানকে কড়া বার্তা পাঠাল আজ৷‌ ২০১২-য় তুষার ঝড়ে ১৩০ জন পাক সেনার মৃত্যুর পর বারবার সেখান থেকে সেনা টহলদারির দাবি তুলছে পাকিস্তান৷‌ সেনা ছাউনিতে আজ দু’ঘণ্টা কাটান প্রধানমন্ত্রী৷‌ তার পর বন্যাধ্বস্তদের পাশে থাকতে উড়ে যান শ্রীনগরে৷‌ প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর এই নিয়ে চতুর্থবার জম্মু-কাশ্মীর সফর৷‌ তাঁর এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লার টুইট, ‘উৎসবের দিনটিতে নিজের বাড়িতে, পরিজনদের সঙ্গে উদ‍্যাপন করতে পারতেন মোদি৷‌ তা না করে তিনি শ্রীনগরে আসছেন৷‌ এটা অবশ্যই প্রশংসনীয়৷‌’ শ্রীনগর বিমানবন্দরে মোদিকে স্বাগত জানান ওমর, রাজ্যপাল এন এন ভোরা৷‌ বিমানবন্দরেই তাঁদের সঙ্গে বৈঠক করেন মোদি৷‌ বন্যা-বিধ্বস্ত রাজ্যের ত্রাণ নিয়ে কথা হয়৷‌ ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্যে ১ হাজার কোটি অনুদান আগে ঘোষণা করেছিলেন মোদি৷‌ কাশ্মীরকে স্বমহিমায় ফেরাতে ৪৪ হাজার কোটি টাকা প্রয়োজন বলে গতকাল জানিয়েছিলেন ওমর৷‌ দিল্লি উড়ে যাওয়ার আগে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মোদি জানান, বন্যা-পরবর্তী জম্মু ও কাশ্মীরে ত্রাণ ও পুনর্বাসন বাবদ ৭৫০ কোটি টাকা মঞ্জুর করেছেন৷‌ ১৭০ কোটি টাকা দেওয়া হচ্ছে রাজ্যে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ৬টি বড় হাসপাতাল নতুন করে চালু করতে৷‌ পাক সেনার গুলিবর্ষণে সীমাম্তবর্তী গ্রামগুলি কীভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে, ওমরের কাছে তার বিবরণও শোনেন আজ মোদি৷‌ রাজভবনে গিয়ে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, বাণিজ্য মহল ও নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিদের সঙ্গে দেখা করেন৷‌ কথা বলেন বায়ুসেনার শীর্ষ আধিকারিকদের সঙ্গেও৷‌

এদিকে, আজ মোদি কাশ্মীরে পা রাখতেই ফের অস্ত্র সম্বরণ চুক্তি লঙঘন করল পাকিস্তান৷‌ জম্মুর রামগড় ও আরনিয়াতে আজ বি এস এফ-এর ঘাঁটিতে আজ সকালে গুলিবর্ষণ করে পাক সেনা৷‌ তবে কেউ হতাহত হননি৷‌ প্রায় মাস খানেকেরও বেশি সময় ধরে সীমাম্ত সঙঘর্ষে উত্তপ্ত ভারত-পাক সম্পর্ক৷‌ এর জেরে এবার ইদে আটারি সীমাম্তে দু-দেশের সেনারা মিষ্টি-বিনিময় করেননি৷‌ আজ দীপাবলিতেও তারই পুনরাবৃত্তি হল৷‌ মোদির সফরের বিরোধিতা করে আজ জম্মু-কাশ্মীরে বন‍্ধ ডেকেছিল বিচ্ছিন্নতাবাদীরা৷‌ তাতে আংশিক সাড়া মিলেছে৷‌ শ্রীনগরের মূল বাণিজ্যিক কেন্দ্র লালচকের প্রায় সব দোকানপাট৷‌ তবে রাজ্যের অন্য এলাকায় ব্যবসা-বাণিজ্যে ভাটা পড়েনি৷‌ হুরিয়ত কমফারেন্সের নেতা সৈয়দ আলি শাহ গিলানি বলেছেন, কাশ্মীরের ভয়ঙ্কর প্রাকৃতিক দুর্যোগে নীরব দর্শকের ভূমিকায় ছিল ভারত সরকার৷‌ এখন কাটা ঘায়ে নুনের ছিটে দিতে এসেছে৷‌





kolkata || bangla || bharat || bidesh || editorial || post editorial || khela ||
Error Report || archive || first page

B P-7, Sector-5, Bidhannagar, Kolkata - 700091, Phone: 30110800, Fax: 23675502/5503
Copyright © Aajkaal Publishers Limited

Designed, developed & maintained by   Remote Programmer Private Limited