Aajkaal: the leading bengali daily newspaper from Kolkata
কলকাতা ৬ পৌষ ১৪২১ সোমবার ২২ ডিসেম্বর ২০১৪
 প্রথম পাতা   কলকাতা  বাংলা  ভারত  বিদেশ  সম্পাদকীয়  খেলা  আজকাল-ত্রিপুরা   পুরনো সংস্করন  বইঘর 
দাদাকে ঘিরেই যাবতীয় উন্মাদনা--অগ্নি পান্ডে ।। দলের সব সাংসদকে দিল্লি যাওয়ার নির্দেশ মমতার--দীপঙ্কর নন্দী ।। সুদীপ্তকে অলাভজনক কারখানা বেচতে কত টাকায় চুক্তি? শাম্তনুকে জেরা সি বি আইয়ের ।। রাজ্যকে ‘রাহুমুক্ত’ করার ডাক দিলেন সোমনাথ--চন্দ্রনাথ বন্দ্যোপাধ্যায় ।। কং কাহিল, আপ-এ নারাজ, দিল্লি আনবে বি জে পি-কেই ।। আবার ধর্মাম্তর! এবার গুজরাটে ।। পলিটব্যুরোর নিন্দা ।। যাদবপুরের সমাবর্তনে সকলকে সামিল হতে আবেদন পার্থর ।। বিয়ের চাপ, প্রেমিকাকে ডেকে গণধর্ষণ করায় পাষণ্ড পিন্টু! ।। আরও ৪ সন্ত্রাসীকে ফাঁসি দিল পাকিস্তান ।। মদনের মেডিক্যাল বোর্ড আজ ।। সোমেন বিধঁলেন মমতাকে
ভারত

কং কাহিল, আপ-এ নারাজ, দিল্লি আনবে বি জে পি-কেই

আবার ধর্মাম্তর! এবার গুজরাটে

পলিটব্যুরোর নিন্দা

খুচরো খবর

কং কাহিল, আপ-এ নারাজ, দিল্লি আনবে বি জে পি-কেই

Google plus share Facebook share Twitter share LinkedIn share

দিল্লি, ১৯ ডিসেম্বর (সংবাদ সংস্হা)– অরবিন্দ কেজরিওয়াল সম্পর্কে খুব সদয় নন দিল্লিবাসীরা৷‌ তাই আপ প্রধানকে আরও একবার গদিতে বসাতে নারাজ৷‌ অম্তত তেমনই তথ্য উঠে এসেছে একটি সমীক্ষায়৷‌ ‘ইন্ডিয়া টুডে-সিকেরো’-র যৌথ সমীক্ষা জানাচ্ছে, ৩৯ শতাংশ দিল্লিবাসীর সমর্থনে দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনে ৭০ আসনের ৩৪ থেকে ৪০টি পাবে বি জে পি৷‌ ২৫ থেকে ৩১টি আসন পেয়ে তুলনায় বেশ কিছুটা পিছিয়ে থাকবে কেজরিওয়ালের আপ৷‌ ভোট পেতে পারে ৩৬ শতাংশ৷‌ কংগ্রেসের অবস্হা রীতিমতো শোচনীয় হবে৷‌ ১৬ শতাংশ ভোট পেয়ে জিততে পারে বড়জোর ৩ থেকে ৫টি আসন৷‌ ১৮ থেকে ২৫ বছরের ভোটদাতাদের ৩৬ শতাংশের পছন্দ আপ৷‌ ১৭ শতাংশ পছন্দ করে কংগ্রেসকে৷‌ দিল্লি বিধানসভার শহরতলি ও গ্রামাঞ্চলেও সেই বি জে পি- আপ-এর হাড্ডাহাড্ডি লড়াই৷‌ সেখানে বি জে পি পেতে পারে ৩৪ শতাংশ ভোট, আপ ৩৩ শতাংশ৷‌ ১৬ শতাংশ ভোট পাওয়ার কংগ্রেসেরই ঝুলিতে যাওয়ার ইঙ্গিত আছে৷‌ এইসব এলাকায় উচ্চবিত্ত ও মধ্যবিত্তদের প্রথম পছন্দের দল বি জে পি৷‌ ৪৫ শতাংশ ভোটদাতা তাদেরই চান৷‌ ৩৩ শতাংশ আছেন আপ-এর পক্ষে৷‌ ওই শ্রেণীর ৩৯ শতাংশের আবার পছন্দসই দল আপ৷‌ লোকসভা নির্বাচনের আগে যা ছিল, সেই দুর্নীতিই দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনের প্রধান ইস্যু৷‌ মোদির ৬ মাসে ওই সমস্যার এতটুকুও সুরাহা হয়নি বলে মনে করছেন দিল্লিবাসী৷‌ আর তাই ২১ শতাংশ মানুষ চান আগামী সরকার দুর্নীতি দমনেই প্রথমে মনোযোগ দিক৷‌ অরবিন্দ কেজরিওয়ালের নামের সঙ্গে ‘ভগোড়া’ (পলাতক) তকমা এঁটে দিয়েছেন জনগণ৷‌ তবু অরবিন্দকে চান ৩৫ শতাংশ৷‌ প্রধান কারণ সদর্থক কাজ৷‌ ৬৭ শতাংশ তাদের কাজে সন্তুষ্ট৷‌ ১৯ শতাংশে বি জে পি-র মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী ডা৷‌হর্ষবর্ধন৷‌ সমীক্ষায় একটি প্রশ্ন ছিল মোদি সরকারের সাফল্য নিয়ে৷‌ তাতে ৩৩ শতাংশের মত, সত্যিই ‘অচ্ছে দিন’ এসেছে৷‌ ২২ শতাংশ মোদির কাজে তেমন সন্তুষ্ট নন, খুশি ৭৪ শতাংশ৷‌ কূটনীতিতে মোদিকে একশোয়ে একশো দিচ্ছেন ৬২ শতাংশ৷‌ তাঁদের মত, প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ভারতের ভাবমূর্তি আরও উজ্জ্বল করেছেন প্রধানমন্ত্রী৷‌ ৫৬ শতাংশ বলেছেন, মোদি মনে করছেন মোদি একজন দৃঢ় মনোভাবের নেতা, যিনি সঠিক সময়ে সঠিক সিদ্ধাম্ত নিতে পারেন৷‌ অন্যদিকে ৩৫ শতাংশের ধারণা মোদি আত্মকেন্দ্রিক৷‌ দেশের সমস্যা নিয়ে একেবারেই বিচলিত নন৷‌ মোদির ‘স্বচ্ছ ভারত অভিযান’-কে সত্যিই একটি ভাল প্রয়াস মনে করেন ৪৫ শতাংশ৷‌ বাকিদের ধারণা সবটাই লোকদেখানো৷‌ আর আপ-র প্রসঙ্গে সার্বিক ধারণা হল, দলটা এখনও সরকার চালানোর যোগ্য হয়ে ওঠেনি৷‌ এই ধারণা পোষণ করেন ৫৩ শতাংশ৷‌ তাদের আমলে মাত্র ৪৯ দিনেই দুর্নীতি কমেছিল৷‌ দাবি করে আপ৷‌ একমত ৬০ শতাংশ৷‌ ৫১ শতাংশ আবার সরকার ছেড়ে পালানোর জন্য আপ-কে দুষেছে৷‌ ৫৪ শতাংশ মনে করছেন প্রতিবাদ, বিক্ষোভেই বেশি আগ্রহী অরবিন্দ কেজরিওয়াল৷‌ সবদিক থেকেই কংগ্রেসের পক্ষে দুঃসংবাদ নিয়ে এসেছে সমীক্ষা৷‌ কারণ ৭০ শতাংশ ভোটদাতার বিশ্বাস সবথেকে দুর্নীতিগ্রস্ত দল তারাই৷‌ ৫১ শতাংশ মনে স্বজনপোষণের দল কংগ্রেস৷‌ ৩৭ শতাংশ ওই দলের ভেতরে গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব দেখেন৷‌ মজার কথা হল দিল্লির পরবর্তী সরকার কে গড়বে এই প্রশ্নে ৪২ শতাংশ বি জে পি-র পক্ষে বললেও, ৪৪ শতাংশ বলছেন, বি জে পি-কে সুযোগ দেওয়া ঠিক নয়! ৭০টি বিধানসভা কেন্দ্রের ৪২৭৩ উত্তরদাতা বেশ ধাঁধাতেই ফেলে দিয়েছেন৷‌





kolkata || bangla || bharat || bidesh || editorial || khela || Tripura ||
Error Report || archive || first page

B P-7, Sector-5, Bidhannagar, Kolkata - 700091, Phone: 30110800, Fax: 23675502/5503
Copyright © Aajkaal Publishers Limited

Designed, developed & maintained by   Remote Programmer Private Limited