Aajkaal: the leading bengali daily newspaper from Kolkata
কলকাতা ৬ আশ্বিন ১৪২১ মঙ্গলবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৪
 প্রথম পাতা   কলকাতা  বাংলা  ভারত  বিদেশ  সম্পাদকীয়  উত্তর সম্পাদকীয়  খেলা  আজকাল-ত্রিপুরা   পুরনো সংস্করন  বইঘর 
যাদবপুর: ছাত্র-ছাত্রীদের সঙ্গে আলোচনায় বসতে চাইছেন উপাচার্য ।। চিটফান্ড কেলেঙ্কারিতে গ্রেপ্তার ওড়িশার প্রাক্তন অ্যাডভোকেট জেনারেল ।। সারদা, যাদবপুর, ‌ট্যাক্সি নিয়ে ফ্রন্টের মহামিছিল ।। মুখ্যমন্ত্রীর আশ্বাসে খুশি নির্যাতিতার বাবা ।। বি জে পি-র সব আসনে লড়ার হুমকি শিবসেনাকে ।। বুধবার লাল গ্রহের কক্ষপথে পা রাখতে চলেছে মঙ্গলযান ।। পুজোর আগেই তাপস পাল, পাড়ুই ও কার্টুন-কাণ্ডের রায় ।। রাজ্যপালের ওপর আস্হা প্রকাশ করল তৃণমূল ছাত্র পরিষদ ।। ঘাটালে পুলিস-দুষ্কৃতী সঙঘর্ষে মৃত ১ পুলিসকর্মী, আহত ২ ।। আজ শুরু সি পি এম রাজ্য কমিটির ২ দিনের বৈঠক ।। আজ মহালয়া ।। ডানলপ খুলছে ২৫ সেপ্টেম্বর
ভারত

কং-এন সি পি ফয়সালা আজ?

উপস্হিত থাকবেন প্রধানমন্ত্রী

ধাক্কা খেলেন রঞ্জিত সিন‍্হা

চিটফান্ড কেলেঙ্কারিতে গ্রেপ্তার ওড়িশার প্রাক্তন অ্যাডভোকেট জেনারেল

কং-এন সি পি ফয়সালা আজ?

বি জে পি-র সব আসনে লড়ার হুমকি শিবসেনাকে

Google plus share Facebook share Twitter share LinkedIn share

মুম্বই ও দিল্লি, ২২ সেপ্টেম্বর (সংবাদ সংস্হা)– মনোনয়ন পেশের সময় আছে আর পাঁচ দিন৷‌ এই সময় খাদের ধারে দাঁড়িয়ে মহারাষ্ট্রের দুই জোটকে খুঁজতে হচ্ছে ফয়সালার সূত্র৷‌ কিন্তু ছবি এখনও ধোঁয়াটে৷‌ কংগ্রেস-এন সি পি-র শাসক জোট থেকে যদি বা এক চিলতে আশার কথা শোনা গেছে, বিরোধী শিবসেনা-বি জে পি জোটে হাওয়া গরম৷‌ এন সি পি নেতা প্রফুল প্যাটেল জানিয়েছেন, আগামী কাল কংগ্রেস নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠক থেকে ইতিবাচক কিছু বেরিয়ে আসতে পারে৷‌ অন্য দিকে শিবসেনা-বি জে পি জোটের সামনে ছিল এবার ১৫ বছর পর ক্ষমতায় ফেরার হাতছানি৷‌ কিন্তু সেনা-কর্তা উদ্ধব ঠাকরের দেওয়া ‘শেষ’ প্রস্তাব বি জে পি-র কাছে একেবারেই গ্রহণযোগ্য নয়৷‌ নতুন করে শিবসেনাকে প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে, ১৩০ আসন দেওয়া হোক৷‌ জানিয়েছেন রাজ্য বি জে পি-র ভারপ্রাপ্ত নেতা রাজীবপ্রতাপ রুডি৷‌ তাঁর গলায় আজ হুমকির সুর, আমরা জোট চাই, কিন্তু নিতাম্তই বাধ্য করা হলে আমরা রাজ্যের ২৮৮ আসনেই লড়ব৷‌ বি জে পি-র একটি সূত্রের খবর, গোটা ২০-৩০ আসন বাদে বাকি সব আসনের জন্য প্রার্থী ঠিক করে ফেলা হয়েছে৷‌ কাল রাতে দিল্লিতে দলের কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিটির দীর্ঘ তিন ঘণ্টার বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং সভাপতি অমিত শাহ সবার বক্তব্য শুনেছেন, আলাদা করে নিজেদের মধ্যেও কথা বলেছেন৷‌ অমিত শাহ ফোন করেছেন উদ্ধবকে৷‌ ১৩০ আসন চেয়ে বলেছেন, শিবসেনার কখনও না-জেতা সবচেয়ে খারাপ ৫টি আসনও নিতে রাজি আছে বি জে পি৷‌ একটি সংবাদ সংস্হা বলছে, শিবসেনা ১২৬ পর্যম্ত ছাড়তে রাজি আছে৷‌ এ খবরের অবশ্য সমর্থন মেলেনি৷‌ মহারাষ্ট্রের নির্বাচনী দায়িত্বে থাকা বি জে পি নেতা ওম মাথুর আজ মুম্বইয়ে ফিরে আরেকবার চেষ্টা করছেন উদ্ধবের সঙ্গে আপসে আসার৷‌ দু’পক্ষের ‘দূতদের’ মধ্যে কথাবার্তা চলছে৷‌ রাজ্য বি জে পি-র অনেক নেতাই নাকি বলছেন, মোদি এবং শাহ সঙ্কেত দিলে দল একাই ঝাঁপিয়েপড়রে৷‌ উল্টোদিকে শাসক জোট কংগ্রেস-এন সি পি শিবিরেও সঙ্কট৷‌ কংগ্রেসের কাছ থেকে তেমন সাড়া না পেয়ে এন সি পি-র কোর কমিটি আজ মুম্বইয়ে বৈঠকে বসে৷‌ জানা গেছে, এই বৈঠকের মাঝেই মুখ্যমন্ত্রী পৃথ্বীরাজ চৌহানের ফোন এসেছিল৷‌ তিনি নাকি কাল এন সি পি নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠকে বসতে চেয়েছেন৷‌ এন সি পি নেতা প্রফুল প্যাটেল পরে টুইট করেন, কংগ্রেস নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠকে কাল ইতিবাচক কিছু বেরিয়ে আসতে পারে৷‌ কংগ্রেসের সমান আসন চায় এবার এন সি পি৷‌ অর্থাৎ ১৪৪ আসন৷‌ ততটা না ছাড়লেও কংগ্রেস আগের বারের চেয়ে বেশি আসন দিতে প্রস্তুত৷‌ ২০০৪-এ এন সি পি-কে দেওয়া হয়েছিল ১২৪ আসন, ২০০৯-এ ১১৪ আসন৷‌ পৃথ্বীরাজ বলেন, এন সি পি-র কাছ থেকে নেওয়া ১০টি আসন ফিরিয়ে দেওয়া যেতে পারে৷‌ কিন্তু প্রফুল প্যাটেল বলছেন, এতে হবে না৷‌ ১২৪ তো আগে ছিলই৷‌ এর অতিরিক্ত আসনগুলি নিয়েই কথা হবে৷‌ পৃথ্বীরাজের প্রচ্ছন্ন হুমকি, আমরা জোটে আগ্রহী, তবে সব পথই খোলা আছে আমাদের সামনে৷‌ কংগ্রেসের কেন্দ্রীয় নির্বাচনী কমিটি দিল্লিতে বসেছিল আজ প্রার্থী-তালিকা নিয়ে৷‌ কমিটির দায়িত্বে থাকা সাধারণ সম্পাদক মধুসূদন মিস্ত্রি বলেন, আমরা সব আসন নিয়েই কথা বলেছি৷‌ মানে জোট ভাঙছে ধরে নিয়ে ২৮৮ আসনের জন্যই প্রস্তুতি নিয়ে রাখছে কংগ্রেস? মধুসূদন জোট নিয়ে কথা বলতে রাজি হননি৷‌ বলেন, এটা আলাদা ব্যাপার৷‌ জোট নিয়ে সোনিয়া গান্ধী আলাদা করে শলাপরামর্শ করেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী পৃথ্বীরাজ চৌহান, প্রদেশ সভাপতি মানিকরাও ঠাকরে, রাজ্যের দায়িত্বে থাকা সাধারণ সম্পাদক মোহন প্রকাশের সঙ্গে৷‌ পৃথ্বীরাজ জানান, জোট ধরে রাখার জন্য নানা স্তরে কথাবার্তা চলছে৷‌ কংগ্রেস মুখপাত্র অভিষেক সিংভির মম্তব্য, মহারাষ্ট্র বিধানসভার ভোটে এবার চতুর্মুখী লড়াই হবে, এরকম ভাবার কারণ নেই৷‌ বড়জোর ত্রিমুখী লড়াই হতে পারে৷‌ কারণ আমাদের জোট থাকছে৷‌


kolkata || bangla || bharat || bidesh || editorial || post editorial || khela ||
Tripura || Error Report || archive || first page

B P-7, Sector-5, Bidhannagar, Kolkata - 700091, Phone: 30110800, Fax: 23675502/5503
Copyright © Aajkaal Publishers Limited

Designed, developed & maintained by   Remote Programmer Private Limited