Aajkaal: the leading bengali daily newspaper from Kolkata
কলকাতা ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২১ শুক্রবার ২৮ নভেম্বর ২০১৪
 প্রথম পাতা   কলকাতা  বাংলা  ভারত  বিদেশ  সম্পাদকীয়  খেলা  আজকাল-ত্রিপুরা   পুরনো সংস্করন  বইঘর 
হিউজের লড়াই শেষ ।। প্রয়াত ইতিহাসবিদ তপন রায়চৌধুরি ।। বাবুলকে কটাক্ষমমতার: অন্ডালে ঝামেলা করছে বাইরের লোক ।। সি বি আই তো জানে আমি বাড়িতে আছি: মদন ।। আজ তৃণমূলের বুদ্ধিজীবীদের মিছিল ।। ৩০ নভেম্বর অনুমতি পেল না বি জে পি ।। ওড়িশায় সিল রোজভ্যালির ২৮০৭ অ্যাকাউন্ট, আটক ২৯৫ কোটি ।। এখন এস এম এসে ঢালাও সদস্য হলেও পরে কঠিন ঝাড়াই-বাছাই ।। উদ্বাস্তুদের নাগরিকত্বের দাবিতে আমরণ অনশন আন্দোলন মতুয়াদের ।। যেমন দল, তেমন সরকার, দিশা নেই কারও: বিমান ।। অবশেষে হাত মেলালেন মোদি-শরিফ ।। অমিত শাহর সভা ঘিরে প্রস্তুতি তুঙ্গে--অভিজিৎ বসাক
বিদেশ

অবশেষে হাত মেলালেন মোদি-শরিফ

অবশেষে হাত মেলালেন মোদি-শরিফ

Google plus share Facebook share Twitter share LinkedIn share



কাঠমান্ডু, ২৭ নভেম্বর (পি টি আই)– নেপালের রাষ্ট্রীয় সভাগৃহে গতকাল নওয়াজ শরিফের বক্তৃতার পালা আসতেই ‘সার্ক’ বিষয়ক একটি পুস্তিকায় মন দিয়েছিলেন নরেন্দ্র মোদি৷‌ শরিফের ভাষণ শেষ হওয়া পর্যম্ত তাতেই নিবিষ্ট রইলেন৷‌ মঞ্চে দু’জন দু’জনকে দেখেও যেন দেখেননি! সার্ক শীর্ষ সম্মেলনের শেষদিনে আজ অবশ্য স্বাভাবিক সৌজন্যবোধটুকু দেখালেন দুই প্রতিবেশী প্রধানমন্ত্রী৷‌ হাতও মেলালেন৷‌ একবার নয়, দু’বার৷‌ কাঠমান্ডুর অদূরে ধূলিখেলের এক রিসর্টে, পরে আরও একবার কাঠমান্ডুতেই৷‌ অল্প কিছু সময়ের জন্য কথা বলতেও দেখা গেল দু’জনকে৷‌ শরিফ ওই সময় মোদিকে বলেন, আলাপ আলোচনার মাধ্যমে দ্বিপাক্ষিক সমস্যা মেটানোয় তিনি আগ্রহী৷‌ সেই খবরের সত্যতা প্রকাশ করেছেন ভারতের বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র সৈয়দ আকবরুদ্দিন৷‌ জানিয়েছেন, কাঠমান্ডুতে আসা ইস্তক এই প্রথম মুখোমুখি হলেন ভারত এবং পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী৷‌ পরে চিত্র সাংবাদিকদের সামনে আবার হাত হাতে মিলিয়ে দাঁড়ান দুই প্রধানমন্ত্রী৷‌ নওয়াজের বাহুতে হাত রাখেন মোদি৷‌ ফুটে ওঠে আম্তরিকতা, উষ্ণতা৷‌ উপস্হিত সবার হাততালিতেও ছড়িয়ে পড়ে খুশি, স্বস্তি৷‌ টুইটারে মুখপাত্র আকবরুদ্দিনের মম্তব্য, ‘এই সেই ছবি, যার জন্য সবাই অপেক্ষা করছিলেন৷‌’ বিদেশসচিব পর্যায়ের বৈঠক ভেস্তে যাওয়ার পর থেকে দু’দেশের সম্পর্কে বিস্তর বরফ জমে উঠেছে৷‌ তা যেন কিছুটা হালকা হল, ওই টুকু সান্নিধ্যেই৷‌ এদিন সমাপ্তি অনুষ্ঠানের পরিবেশ ছিল অনেকটা খোলামেলা৷‌ ধূলিখেলে প্রায় ৩ ঘণ্টা গল্পে মশগুল দেখা গেল ‘সার্ক’ সদস্য দেশের রাষ্ট্রনেতাদের৷‌ অসুস্হতার কারণে সেখানে অবশ্য অনুপস্হিত ছিলেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা৷‌ উপস্হিত ছিলেন বিদেশমন্ত্রীরা৷‌ রীতি অনুযায়ী সার্ক শীর্ষ সম্মেলনের শেষটা এরকমই হয়৷‌ কড়া সরকারি রীতিনীতি থেকে বেরিয়ে হোটেলে বা রিসর্টে মেলামেশার আয়োজন থাকে৷‌ নানা বিষয়ে মতানৈক্য মিটিয়ে নিতেই এই ব্যবস্হা৷‌ গতকাল রদ হয়ে যাওয়া শক্তির আদান-প্রদানে সহযোগিতা সংক্রাম্ত একটি চুক্তি সই করেন ৮টি দেশের প্রধানমন্ত্রী, রাষ্ট্রপতিরা৷‌ বৈঠক শেষে আমন্ত্রিতদের জন্য এলাহি খাওয়াদাওয়ার ব্যবস্হা ছিল৷‌ তবে সবক’টিই নিরামিষ পদ৷‌ সাবেকী নেপালি রান্না ছিল মূল পদ৷‌ আটটি সদস্য দেশের বাছাই করা মিষ্টি দিয়ে মিষ্টি মুখের পর্বে অভিনবত্ব ছিল৷‌ ভারত থেকে ছিল গুজরাটের বাসুন্দি এবং জিলিপি৷‌ বাংলাদেশ থেকে রসবড়ি৷‌ পাকিস্তান, আফগানিস্তানের শাহি টুকরা, বাকলাওয়া ছিল৷‌ ছিল শ্রীলঙ্কার মিষ্টি ওয়াটারলাপ্পান, নেপালের শিকারনি, ভুটানের দেইজি, মালদ্বীপের ফিরনি৷‌ হিমালয় পাহাড়ের গায়ে পর্যটন কেন্দ্র ধূলিখেলে আজ একটি বটগাছের চারা পোঁতেন মোদি৷‌ তাতে জল দেন বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ৷‌ বৌদ্ধগয়া থেকে একটি বোধিবৃক্ষের চারাও এনেছেন মোদি৷‌ ভারত-নেপালের সম্পর্ক সুদৃঢ় করতে লুম্বিনিতে মায়াদেবী মন্দিরের কাছে সেই চারা পোঁতা হবে৷‌ পরবর্তী সার্ক শীর্ষ সম্মেলন হবে ইসলামাবাদে৷‌





kolkata || bangla || bharat || bidesh || editorial || khela || Tripura ||
Error Report || archive || first page

B P-7, Sector-5, Bidhannagar, Kolkata - 700091, Phone: 30110800, Fax: 23675502/5503
Copyright © Aajkaal Publishers Limited

Designed, developed & maintained by   Remote Programmer Private Limited