Aajkaal: the leading bengali daily newspaper from Kolkata
কলকাতা ১৩ শ্রাবণ ১৪২১ বুধবার ৩০ জুলাই ২০১৪
 প্রথম পাতা   কলকাতা  বাংলা  ভারত  বিদেশ  সম্পাদকীয়  উত্তর সম্পাদকীয়  খেলা  আজকাল-ত্রিপুরা   পুরনো সংস্করন  বইঘর 
খুশির ইদ ।। রাস্তায় ‘রুপো’! লুটতে হুটোপুটি ।। তাপসের কুৎসিত মম্তব্যের বিরুদ্ধে সরব দলের সাংসদ মুমতাজম ।। কলকাতা পুরভোট: অবাঙালিদের আস্হা তৃণমূলিদের ।। এনসেফেলাইটিসে এবার মৃত্যু নার্সিংহোমে ।। শুভেন্দু-অখিল গোষ্ঠীর সঙঘর্ষে উত্তপ্ত তমলুক ।। অন্ধ্রের চাল বাংলাদেশ ঘুরে ত্রিপুরায়--তাপস দেব, আগরতলা ।। মার্কিনি পড়ুয়ারা এবার পড়বেন কলকাতায়--ওবামা-মনমোহন উদ্যোগের সাফল্য ।। রক্তাক্ত ইদ, খেলার মাঠে ইজরায়েলি বোমা, হত ৯ শিশু ।। বিদেশে ব্যবসা বাড়াতে ফেসবুকে কুমোরটুলি ।। উত্তরে নামী শিল্পীর ঢল ।। কড়া নিরাপত্তা, মুখ্যমন্ত্রী আজ পুরুলিয়ায়
বিদেশ

দিল্লি যাত্রার আগে মোদির মন্ত্র মার্কিন বিদেশ সচিবের মুখে

রক্তাক্ত ইদ, খেলার মাঠে ইজরায়েলি বোমা, হত ৯ শিশু

দিল্লি যাত্রার আগে মোদির মন্ত্র মার্কিন বিদেশ সচিবের মুখে

Google plus share Facebook share Twitter share LinkedIn share



ওয়াশিংটন, ২৯ জুলাই (সংবাদ সংস্হা)– ‘সব কা সাথ, সব কা বিকাশ’৷‌ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির এই স্লোগান খুব মনে ধরেছে মার্কিন বিদেশ সচিব জন কেরির৷‌ দিল্লি সফরের ঠিক আগে তাঁর মম্তব্য, আমাদের বিশ্বাস, ভারতের নতুন সরকারের এই স্লোগানের মধ্যে রয়েছে একটি বড় দিশা৷‌ আমাদের পূর্ণ সমর্থন আছে এতে৷‌ ভারতের অর্থনৈতিক পুনরুজ্জীবনে অনুঘটকের কাজ করতে চায় আমেরিকার বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলি, বলেন কেরি৷‌ সেন্টার ফর আমেরিকান প্রোগ্রেস নামে আমেরিকার একটি প্রতিষ্ঠানে এক আলোচনাসভায় কাল ভাষণ দেন কেরি৷‌ একটি উচ্চপর্যায়ের প্রতিনিধিদল নিয়ে তিনি আসছেন দিল্লিতে৷‌ পরশু দিল্লিতে ভারত-মার্কিন কৌশলগত মতবিনিময় সভার পৌরোহিত্য করবেন কেরি এবং ভারতের বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ৷‌ সেপ্টেম্বরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি যাচ্ছেন আমেরিকা সফরে৷‌ বসবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সঙ্গে৷‌ কেরির এই সফরকে তারও প্রস্তুতি বলে মনে করা হচ্ছে৷‌ এবং কেরি তাঁর সফরের আগে প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছেন দিল্লির নতুন সরকারকে৷‌ দ্বিধাহীন ভাষায় জানিয়েছেন, এই সরকার তথা ভারতের সঙ্গে অংশীদারি গড়ে তোলার জন্য কতটা আগ্রহী আমেরিকা৷‌ গুজরাট দাঙ্গার কারণে এক সময় মোদিকে ভিসা দিতে আপত্তি ছিল আমেরিকার৷‌ কিন্তু সে সব এখন অতীত৷‌ মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে গুজরাটে মোদির কাজের ‘মডেল’-এরও প্রশংসা করেন কেরি৷‌ মোদির কাজের ধরন, নির্বাচনী প্রচার– সে সবের খোঁজখবরও রেখেছেন কেরি৷‌ বলেছেন, ভোটের প্রচারে মোদির শক্তির উৎস ছিল যুব সম্প্রদায়৷‌ তিনি বারবার বলেছেন, ভারত শুধু অন্যতম প্রাচীন সভ্যতাই নয়, পৃথিবীর সব থেকে বড় তরুণ জনতারও দেশ৷‌ তরুণদের স্বাভাবিক বৃত্তিই হচ্ছে আগুনের শিখার মতো জ্বলে ওঠা৷‌ এই বৃত্তিকে লালন করার দায় রয়েছে, বলেছেন মোদি৷‌ এই দায় আমাদেরও৷‌ কেরি এরপর এই যুবশক্তির প্রশিক্ষণ, দক্ষতা বৃদ্ধিতে দু’দেশের সহযোগিতা প্রসারিত করার কথা বলেন৷‌ বলেছেন অবশ্যই বাণিজ্যবৃদ্ধির কথা৷‌ তিনি মনে করেন, ভারত যে সব ক্ষেত্র ধরে এগোতে চাইছে, সবগুলিতেই মার্কিন কোম্পানিগুলি যথেষ্ট এগিয়ে আছে৷‌ নির্মাণ ক্ষেত্রে, পরিকাঠামো, স্বাস্হ্য, তথ্য-প্রযুক্তি– এ সব ক্ষেত্রে দ্রুত উন্নয়নে বড় ভূমিকা নিতে পারে মার্কিন কোম্পানিগুলি৷‌

প্রধানমন্ত্রী পদে শপথ অনুষ্ঠানে মোদি পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফকে আমন্ত্রণ করেছেন৷‌ এই ‘গুরুত্বপূর্ণ’ পদক্ষেপেরও প্রশংসায় মুখর কেরি৷‌ জানান, এই বিষয়ে নওয়াজের সঙ্গে তিনি কথা বলেছেন৷‌ নওয়াজও এই ইতিবাচক পদক্ষেপে উৎসাহিত৷‌ মার্কিন বিদেশ সচিব জানান ভারত-পাক সম্পর্ককে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে সমস্তভাবে সহযোগিতা করতে প্রস্তুত আমেরিকা৷‌


kolkata || bangla || bharat || bidesh || editorial || post editorial || khela ||
Tripura || Error Report || archive || first page

B P-7, Sector-5, Bidhannagar, Kolkata - 700091, Phone: 30110800, Fax: 23675502/5503
Copyright © Aajkaal Publishers Limited

Designed, developed & maintained by   Remote Programmer Private Limited