Aajkaal: the leading bengali daily newspaper from Kolkata
কলকাতা ১৪ কার্তিক ১৪২১ শুক্রবার ১ নভেম্বর ২০১৪
 প্রথম পাতা   কলকাতা  বাংলা  ভারত  বিদেশ  সম্পাদকীয়  উত্তর সম্পাদকীয়  খেলা  সংস্কৃতি  ঘরোয়া  পর্দা   পুরনো সংস্করন  বইঘর 
চিঠি দিলেও আরাবুলকে ক্ষমা নয়--দীপঙ্কর নন্দী, গৌতম চক্রবর্তী ।। পান্ধই থানার সেই এ এস আই-কে সাসপেন্ড, ও সি-কে সরাতে বলল কোর্ট ।। অর্থতত্ত্ব-কাণ্ডে গ্রেপ্তার বি জে ডি বিধায়ক ।। কলাবিভাগের ৯৭ শতাংশ উপাচার্যকে চান না ।। রাজ্যপালের কাছে সূর্য: বীরভূম পুলিসের ভূমিকা নিয়ে নিরপেক্ষ তদম্ত হোক ।। জাতপাতের রাজনীতির পৃষ্ঠপোষকতা করছে এই রাজ্য সরকার: বিমান বসু ।। মহা ধুমধামে শপথ দেবেন্দ্রর--মান ভাঙিয়ে আনা হল উদ্ধবকে ।। বাংলায় বিনিয়োগ-সম্ভাবনার দরজা খুলে দিলেন অর্থমন্ত্রী--দেবারুণ রায় ।। গঙ্গাসাগরকে ঘিরে পর্যটন বাড়াতে ফিল্মসিটি গড়ার প্রস্তাব ।। যারা অশাম্তি বাধাচ্ছে তাদের বোল্ড আউট করে দিন: মুখ্যমন্ত্রী ।। দাম কমে যাচ্ছে পেট্রল ও ডিজেলের ।। মারা গেলেন অ্যান্ডারসন
খেলা

ফিকরুর শাস্তি কমেনি, হাবাসের ২ ম্যাচ গেল, ভাবনা বদল

খেলোয়াড় হিসেবে বদলেছি, মানুষ একই আছি: পঙ্কজ

বাংলার বিদায়, সৌরভ কোচের রিপোর্ট চাইলেন

শচীন-পুত্র অর্জুন চললেন দক্ষিণ আফ্রিকায়

দুর্বল শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে একদিনের সিরিজ শুরু কাল

রাহুলের সঙ্গে তুলনায় আপ্লুত অন্য রাহুল

কর্তারা পথ বের করবেন, নর্ডি নিশ্চিত

বরুন অ্যারনকে চান সৌরভ

রোহিত নাকি নার্ভাস ছিলেন!

রোনাল্ডোর আগে মেসি: কাপেলো

প্রথম জয়ে খুশি জেমস

জিতল ইউনাইটেড স্পোর্টস

গোয়া আজ পিরেসহীন

ইউনিস ২১৩, মিসবা ১০১

বললেই শচীনের দেখা

অলিম্পিকে নেইমার

মিটিয়ে নেওয়ার পরামর্শ রবার্টসের

ক্যাসিয়াসদের লক্ষ্য

মধ্যাঞ্চল এগিয়ে ১১১ রানে

ইস্টবেঙ্গলের চিঠি, আশ্বাস আই এফ এ-র

ডুরান্ডে চার্চিলকে ৩ গোলে হারাল পুনে

ফিকরুর শাস্তি কমেনি, হাবাসের ২ ম্যাচ গেল, ভাবনা বদল

মানতেই হবে, প্রভাব পড়বে না: সৌরভ

Google plus share Facebook share Twitter share LinkedIn share

মুনাল চট্টোপাধ্যায়, অগ্নি পাণ্ডে

কোচ হাবাস ও স্ট্রাইকার ফিকরুর শাস্তি কমানোর আবেদন করেছিল অ্যাটলেটিকো দি কলকাতা৷‌ আংশিক সাড়া দিল ফেডারেশনের শৃঙ্খলারক্ষা কমিটি৷‌ ফিকরুর দু’ম্যাচের নির্বাসনের শাস্তি না কমলেও কোচ হাবাসের নির্বাসনের মেয়াদ চার থেকে কমিয়ে দু’ম্যাচ হয়েছে৷‌ হাবাসের জন্য বিশেষ শর্ত রেখেছে শৃঙ্খলারক্ষা কমিটি৷‌ আগামী দু’মাসের সাসপেন্ডেড সেনটেনস শর্তে হাবাসকে আচরণ সংযত রাখতে হবে৷‌ যদি আবার অখেলোয়াড়োচিত আচরণ করলে নতুন করে নির্বাসনের মুখে পড়তে হবে৷‌ গোয়া এফ সি-র স্টপার গ্রেগরিকে হেড বাটের ঘটনা এতই স্পষ্ট যে, ফিকরুর শাস্তি কমাতে রাজি হয়নি শৃঙ্খলারক্ষা কমিটি৷‌ তবে কোচ হাবাসের সঙ্গে রবার্ট পিরেসের ঝামেলায় এককভাবে কাউকে দোষী মনে না হওয়ায় শর্তসাপেক্ষে হাবাসের শাস্তির মেয়াদ কমিয়েছে৷‌ শৃঙ্খলারক্ষা কমিটির সিদ্ধাম্ত নিয়ে প্রশ্ন করা হলে অ্যাটলেটিকো দি কলকাতার অন্যতম কর্ণধার সৌরভ গাঙ্গুলি বলেছেন, ‘সব কিছু তো আর মনের মতো হয় না৷‌ এই সিদ্ধাম্ত মেনে নিতেই হবে৷‌’ পাশাপাশি কোনও নেতিবাচক ভাবনায় না ডুবে ইতিবাচকই থাকছেন সৌরভ, ‘পরের ম্যাচে আমরা গার্সিয়াকে পাচ্ছি৷‌ এটা অবশ্যই ভাল দিক৷‌’ কিন্তু চেন্নাইনের বিরুদ্ধে ফিকরুর না থাকা...৷‌ কথা শেষের আগেই সৌরভের সংযোজন, ‘ফিকরু না থাকায় কোনও প্রভাব পড়বে না৷‌ এফ সি গোয়ার বিরুদ্ধে তো গার্সিয়াও ছিল না৷‌ কিন্তু আমরা ওদের মাঠেই গোয়াকে হারিয়েছি৷‌’ ফেডারেশনের সিদ্ধাম্তে বেশ হতাশ আরেক কর্ণধার উৎসব পারেখ৷‌ বললেন, ‘হাবাসের শাস্তি কমলেও চেন্নাইন ম্যাচে থাকতে পারবেন না, এমন আভাস আমাদের কাছে আগেই ছিল৷‌ কিন্তু ফিকরুর সাসপেশন উঠে যাবে, এমন আশা করেছিলাম৷‌ তাতে শক্তিশালী প্রতিপক্ষ চেন্নাইন এফ সি-র বিরুদ্ধে পূর্ণ শক্তি নিয়ে লড়তে পারতাম৷‌ ফিকরুর না থাকাটা বড় ধাক্কা৷‌’ পরে অবশ্য এক বিবৃতিতে অ্যাটলেটিকো দি কলকাতা জানিয়েছে, ‘...গত কয়েকদিন ধরে আমরা কোচের পাশেই দাঁড়িয়েছিলাম৷‌ এ আই এফ এফের শৃঙ্খলারক্ষাকারী কমিটির সিদ্ধাম্তে বোঝা যাচ্ছে, আমাদের কোচ হাবাস কখনওই এফ সি গোয়ার রবার্ট পিরেসকে ঘুসি মারেননি৷‌ এ আই এফ এফের সিদ্ধাম্তে আমরা খুশি৷‌ শৃঙ্খলারক্ষাকারী কমিটির ওপর পূর্ণ আস্হা ছিল৷‌ আমরা সন্তুষ্ট ঘটনার সত্য উঞ্জাটন হওয়ায়৷‌’ চেন্নাইন এফ সি-র মাঝমাঠের মূল শক্তি ব্রাজিলীয় এলানো৷‌ ম্যাচ জিততে গেলে তাঁকে আটকানো জরুরি, এটা জানেন অ্যাটলেটিকো দি কলকাতা কোচ হাবাস৷‌ তাই মাঝমাঠে নিজের দলের শক্তি বাড়ানোর পথে হাঁটছেন তিনি৷‌ আগের পাঁচ ম্যাচে ন্যাটোকে ডবল ডিফেন্সিভ স্ক্রিন হিসেবে বোরজার পাশে ব্যবহার করেছেন হাবাস, দলের রক্ষণ জমাট রাখতে৷‌ চেন্নাইন এফ সি-র বিরুদ্ধে জেতার লক্ষ্যে ডবল ডিফেন্সিভ স্ক্রিন রেখে না-ও খেলতে পারেন অ্যাটলেটিকো কোচ৷‌ বরং মাঝমাঠে আক্রমণাত্মক ঝাঁজ আনতে বোরজা, গার্সিয়ার সঙ্গে লোবো, জোফ্রেকে খেলানোর ভাবনা রয়েছে ৷‌ চার ব্যাক কিংশুক, হোসেমি, অর্ণব, বিশ্বজিৎ৷‌ নির্বাসন উঠে যাবে ধরে নিয়ে সকালের অনুশীলনে বলজিতের সঙ্গে ফিকরুকে রেখেই আক্রমণের ছক কষেছিলেন৷‌ অবশ্য ফিকরুকে পাওয়া না গেলে বিকল্প ছক ও ফুটবলারের কথাও ভেবে রেখেছিলেন অ্যাটলেটিকো কোচ৷‌ ন্যাটো ও আর্নল্ডের একজন তখন দলে ঢুকতেন৷‌ সেইমতো অনুশীলন সেরেও রাখেন এদিন৷‌ শেষ পর্যম্ত ফিকরুর শাস্তি কমেনি৷‌ তাই হাবাসের ভাবনায় বদল৷‌ চেন্নাইন ম্যাচে আর্নল, পোডানির মধ্যে একজনের খেলার সম্ভাবনাই বেশি৷‌ অবশ্য হার বাঁচাতে গেলে বলজিতের সঙ্গে জোফ্রে ও গার্সিয়াকে একটু সামনে রেখে বোরজার পাশে ন্যাটোকে রেখেই চলতে পারেন হাবাস৷‌ অন্য দিকে আর এক সমস্যার মুখে অ্যাটলেটিকো৷‌ তৃতীয় গোলকিপার হিসেবে দেবজিৎ মজুমদারকে নেওয়ার সিদ্ধাম্ত নিয়েছিল তারা৷‌ কিন্তু দেবজিৎ শুক্রবার অনুশীলনে আসেননি৷‌ ম্যানেজার রজত ঘোষদস্তিদার জানিয়েছেন, দেবজিৎকে ছাড়েনি মোহনবাগান৷‌ রজতের কথায়, ‘ভুটানে একটি টুর্নামেন্টে খেলতে যাবে মোহনবাগান৷‌ তাই ওকে ছাড়েনি৷‌ কথা বলে সমস্যা মেটানোর চেষ্টা করছি৷‌ না হলে বিকল্প ভাবতে হবে৷‌’





kolkata || bangla || bharat || bidesh || editorial || post editorial || khela ||
sangskriti || ghoroa || tv/cinema || Error Report || archive || first page

B P-7, Sector-5, Bidhannagar, Kolkata - 700091, Phone: 30110800, Fax: 23675502/5503
Copyright © Aajkaal Publishers Limited

Designed, developed & maintained by   Remote Programmer Private Limited