Aajkaal: the leading bengali daily newspaper from Kolkata
কলকাতা ৩ আশ্বিন ১৪২১ শনিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৪
 প্রথম পাতা   কলকাতা  বাংলা  ভারত  বিদেশ  সম্পাদকীয়  উত্তর সম্পাদকীয়  খেলা  সংস্কৃতি  ঘরোয়া  পর্দা  আজকাল-ত্রিপুরা   পুরনো সংস্করন  বইঘর 
যাদবপুর অচল--গৌতম চক্রবর্তী ।। ‌ট্যাক্সি উধাও, বাস-মিনিবাসও কম--আজ চালকদের ‘লালবাজার চলো’ ।। মধ্যমগ্রাম গণধর্ষণ--৫ অভিযুক্তের ২০ বছরের কারাদণ্ড ।। শ্রমিক-অসম্তোষ, বন্ধই হয়ে গেল গ্লস্টার জুট মিল--প্রিয়দর্শী বন্দ্যোপাধ্যায় ।। আগামী বছরের মধ্যে সব কাজ শেষ করতে নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর ।। আগামী দিনে কংগ্রেসের ভাল দিন দেখছেন নেতারা ।। ভারত-চীন যৌথ বিবৃতিতে গুরুত্ব পেল সীমাম্ত-শাম্তি ।। ওড়িশা, বাংলায় ডবল এজেন্টের হদিস ।। তৃণমূলের আশঙ্কা, ভবিষ্যতে কংগ্রেসি ভোট যাবে বি জে পি-তে ।। বামফ্রন্টের ২২শের মিছিলে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘটনাও ‘ইস্যু’ হবে ।। স্বাধীনতা নয়! রায় স্কটল্যান্ডের ।। শুভেন্দু আর রবীন এক নয়: সূর্য
সংস্কৃতি

মানুষ ভূতের ভবিষ্যৎ

নাটকের বন্ধু

তিন কবির গানে

দামিনী হে

কবিতা থেকে গান ‘অচেনা হাতে’

মুখ দেখা যায় বিজ্ঞাপনে

বোধ ও অনুভবে অলৌকিক ছবিরা ঘুরে বেড়ায়

মানুষ ভূতের ভবিষ্যৎ

Google plus share Facebook share Twitter share LinkedIn share

মানুষ এবং ভূত৷‌ বর্তমান ও অতীত৷‌ ভবিষ্যতে কী হবে তাঁদের? সেই নিয়েই নাটক ‘ভাইরাস ন্দ্ব ভূত’৷‌

নাটক: ভাইরাস ন্দ্ব ভূত

রচনা: দেবকুমার ঘোষ

পরিচালনা: চন্দন দাস

প্রযোজনা: শৌভনিক

কৌস্তুভ রায়: এক ভৌতিক ভাইরাস, ভূত-এর সৃষ্টি৷‌ কাজ করে মানুষের ব্রেনে৷‌ অবশ্য ভাইরাসের প্রভাবে মনের অসুস্হ ভাবনা দূর হয়ে সুস্হ ভাবনা আসে৷‌ অন্যের প্রতি কোনও খারাপ চিম্তা আসে না৷‌ বরং একদিন যার প্রতি ঈর্ষা ছিল, ভাইরাসের প্রভাবে তার জন্যেই মনে আসে সহযোগিতা, সহানুভূতির ভাবনা৷‌ তাহলে এই ভৌতিক ভাইরাসকে কী বলা উচিত? অ্যান্টি ভাইরাস? সে যা ইচ্ছে বলা যেতে পারে৷‌ মোদ্দা বিষয়টা হল, এটা একটা ভাল ভাইরাস৷‌ যা ক্ষতি করে না৷‌ ভাল করে৷‌ কীভাবে ভাল কাজটা করে? আর কী-ই বা সেই ভাল কাজ, যা মানুষ সাধারণ অবস্হায় করতে পারে না ভাইরাসের প্রভাবে করে? সেটা নিয়েই তো জমজমাটি নাটক ‘ভাইরাস ন্দ্ব ভূত’৷‌ দেবকুমার ঘোষের লেখা৷‌ সম্পাদনা ও পরিচালনা করেছেন চন্দন দাস৷‌ ‘শৌভনিক’ নাট্যদলের নতুন প্রযোজনা এই ‘ভাইরাস ন্দ্ব ভূত’৷‌ নাটকটি যখন ভৌতিক ভাইরাস নিয়ে, সেই সম্পর্কে সব কথা বলে দিলে নাটকের মজাটাই মাটি৷‌ তবে সূত্র দেওয়া যেতেই পারে৷‌ কেন্দ্রে রয়েছেন রাঘবেন্দ্রনারায়ণ চৌধুরি ও তাঁর পরিবার৷‌ এককালের জমিদার বংশ৷‌ আজ অবশ্য সেই রামও নেই অযোধ্যাও নেই৷‌ তবে মেজাজটা আছে৷‌ প্রোমোটিংয়ের থাবায় এখন বাস্তুচ্যুত হওয়ার অবস্হা৷‌ বাস্তুচ্যুত হওয়ার সম্ভাবনা এই বাড়ির অন্য বাসিন্দাদেরও৷‌ তাঁদের অবশ্য কারও মানব শরীর নেই৷‌ তাঁরা রাঘবেন্দ্রর পূর্বপুরুষ কিংবা সদ্য মৃতা স্ত্রীর ভূত৷‌ অর্থাৎ বলা যায় মানুষ ও ভূতের সমস্যা একসঙ্গে৷‌ আর তার ফল-ই হল ‘ভাইরাস ন্দ্ব ভূত’৷‌ গা ছমছমে নয়, কেমন একটা ভাললাগার, সহানুভূতি তৈরি হওয়ার নাটক ‘ভাইরাস ন্দ্ব ভূত’৷‌ এই অবস্হা তৈরি হওয়ার জন্যে যাবতীয় কৃতিত্ব প্রাপ্য নাট্যকার, পরিচালকের সঙ্গে অভিনেতা-অভিনেত্রীদেরও৷‌ ‘তেজেন্দ্রনায়ারণ’-এর চরিত্রের অভিনেতা স্বয়ং পরিচালক চন্দন দাশ৷‌ ইংরেজ আমলের জমিদার হিসেবে বেশ ভাল লাগে তাঁকে৷‌ পাশাপাশি ভাল লাগে দেবেশ মুখোপাধ্যায়, স্বপন চক্রবর্তী, তানিয়া বন্দ্যোপাধ্যায়, অনির্বাণ পারিয়া, নীনা চক্রবর্তী, নীলাভ চট্টোপাধ্যায়কেও৷‌ উল্লেখযোগ্য স্বপন রায়, কৃষ্ণেন্দু গোস্বামী, অদিতি ভট্টাচার্য, সুতপা চক্রবর্তী, দেবব্রত মজুমদার, কণিষ্ক, গোপাল মুখোপাধ্যায়, চিন্ময় মুখোপাধ্যায়৷‌ নীল কৌশিকের মঞ্চ পরিকল্পনা নাটকোপযোগী এবং দেখতে বেশ ভাল লাগে৷‌ আলোক পরিকল্পনা বাবলু সরকারের৷‌ নাটক সহায়ক সঙ্গীত ভাবনা দেবপ্রতিম দাশগুপ্তর৷‌ ভাল লাগে৷‌ নেপথ্য কন্ঠ সুরেলি রায়, দেবপ্রতিম দাশগুপ্ত ও স্বপ্নজা দাশগুপ্তর৷‌ সপরিবারে ভাইরাস-অ্যান্টি ভাইরাসের চ!রে ‘ভূত ন্দ্ব ভাইরাস’ দেখতে ভালই লাগবে৷‌


kolkata || bangla || bharat || bidesh || editorial || post editorial || khela ||
sangskriti || ghoroa || tv/cinema || Tripura || Error Report || archive || first page

B P-7, Sector-5, Bidhannagar, Kolkata - 700091, Phone: 30110800, Fax: 23675502/5503
Copyright © Aajkaal Publishers Limited

Designed, developed & maintained by   Remote Programmer Private Limited