সৌগত চক্রবর্তী:
সেদিন সন্ধ্যায় মেয়েদের ব্যান্ড ‘‌রানি’‌র গানে জমজমাট দুর্গাবাড়ি। গণেশ পুজো উপলক্ষ্যে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন। দর্শকাসনে বসে চূর্ণী গাঙ্গুলি, কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়।
মঞ্চে গান গাইছেন অমৃতা চট্টোপাধ্যায়। হাতে গিটার। অমৃতার গিটার বাজানো দেখে বুঝতে অসুবিধে হয় না এই সঙ্গীত-‌যন্ত্রটির সঙ্গে তাঁর যথেষ্ট বোঝাপড়া। তাঁর গানের সঙ্গে লিড গিটার, বেস গিটার আর ড্রামস-‌এ তার বন্ধুরা—শ্রেয়া মজুমদার, অরুণিমা চৌধুরি, স্নেহা ঘোষ।
এমন দারুণ ব্যান্ড শো দেখে কে বলবে এটা সিনেমার শুটিং। হ্যঁা, ঋক বসুর নতুন ছবি ‘‌রানি’‌র শুটিং চলছিল বালিগঞ্জ প্লেসের বিখ্যাত দুর্গাবাড়িতে। মেয়েদের ব্যান্ড ‘‌রানি’‌র নামেই ছবির নাম। আর রানি (‌RANI)‌ ব্যান্ডের নামকরণও হয়েছে চার ব্যান্ড কন্যা শ্রেয়া মজুমদার (‌‌‌RUKMINI)‌‌, ‌অমৃতা চট্টোপাধ্যায় (‌‌‌AMRITA)‌‌, অরুণিমা চৌধুরি (‌‌NEHA)‌‌ ‌আর‌ স্নেহা ঘোষ (‌‌‌INSIA)‌‌-র‌ আদ্যক্ষর নিয়ে। এইগুলো চরিত্রের নাম। আর এই নামকরণ করে দিয়েছেন সিধু-‌জ্যাঠা, ছবিতে যে চরিত্রে অভিনয় করছেন কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়।
মূলত সিনেমা সম্পাদনায় পরিচিত মুখ ঋক বসু। ঋকের সম্পাদনায় মুক্তি পেয়েছে বেশ কিছু উল্লেখযোগ্য ছবি। যার মধ্যে আছে মৈনাক ভৌমিক পরিচালিত ‘‌আমি আর আমার গার্লফ্রেন্ড’‌, ‘‌ফ্যামিলি অ্যালবাম’‌, বা ‘‌কলকাতা কলিং’‌। সম্প্রতি মুক্তি পাওয়া সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের ‘‌ইয়েতি অভিযান’‌-‌এরও সম্পাদনায় ছিলেন ঋক বসু। এছাড়াও বেশ কিছু উল্লেখযোগ্য ছবির প্রোমো তৈরি করেও নজর কেড়েছিলেন ঋক। 
‘‌‌‌দেবী’‌ ছিল ঋকের প্রথম পরিচালিত ছবি। পাওলি অভিনীত এই ছবিতে দেবদাসের মহিলা সংস্করণ ছিল দেবী। দর্শক বা সমালোচকদের প্রশংসাও পায় ঋকের এই নতুন ভাবনার ছবি। এই প্রথম ছবিতেই ঋক বুঝিয়ে দিয়েছিলেন নতুন ভাবনায় ছবি তৈরির দক্ষতা তাঁর আছে। এবার ‘‌দেবী’ থেকে ‘‌রানি’‌-‌তে এলেন ঋক।
কেমন এই ছবি?‌ ঋক জানালেন, ‘‌এটা একটা ব্যান্ডের গল্প। কাজেই গান থাকছেই। তবে শুধু গান এই ছবির মুখ্য বিষয় নয়। আসলে গান এখানে সমসাময়িক পরিস্থিতিতে পরিবর্তনের একটা হাতিয়ার হয়ে উঠেছে। গান এখানে একটা মারাত্মক অস্ত্র যেখানে এই অস্ত্র দিয়েই প্রভাবশালী রাজনীতির মুখোমুখি দাঁড়াবে এই ‘‌রানি’‌ ব্যান্ড।’‌‌
আর ‘‌রানি’‌ ব্যান্ডের মুখ্য গায়িকা অমৃতার ভূমিকায় আছেন অমৃতা চট্টোপাধ্যায়। অমৃতা জানালেন, ‘‌এই ছবিতে রানি ব্যান্ডের চার সদস্য উঠে এসেছেন চার রকম সামাজিক, অর্থনৈতিক ও ধর্মীয় প্রেক্ষাপট থেকে। তবে সেই পরিচয়গুলো এদের কাছে গৌণ। বর্তমান সামাজিক ও রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে এরা চায় গান দিয়েই সমস্তরকম অসহিষ্ণুতার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে।’‌ বললেন, ‘‌এখন যে শুটিংটা হল সেখানে প্রথম পারফরম্যান্স করল ‘‌রানি’‌। এই গণেশ পুজো থেকেই এদের যাত্রা হল শুরু। পরবর্তীকালে এক স্টেডিয়ামে হাজার হাজার মানুষের সামনে পারফর্ম করবে রানি। এদের লক্ষ্য নিজেদের গানকে হাতিয়ার করেই সমস্ত বাধার মুখোমুখি দাঁড়ানো এবং এগিয়ে চলা। সেই জার্নিতে তারা সিধু-‌জ্যাঠাকে পাশে পায়।’‌
পরিচালক ঋক বসুর কাজ ও ভাবনা নিয়েও উচ্ছ্বসিত এই অভিনেত্রী। এবং বড় পাওনা চূর্ণীদি ও কমলেশ্বরদার মতো অসাধারণ অ্যাক্টরদের সঙ্গে কাজ করা—অকপট অমৃতা।
এই ছবির সিধু-‌জ্যাঠা তথা কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে ‘‌অন্য বসন্ত’‌ ছবিতে কাজ করেছেন অমৃতা। সেখানে কমলেশ্বর ছিলেন তাঁর বাবা। এখানে জ্যাঠা। কমলেশ্বর বললেন, ‘‌আমার চরিত্রের নামটা একটু অদ্ভুত—সিধু-‌জ্যাঠা। আমি আসলে এই চারটি মেয়ের পাড়াতুতো অভিভাবক। সিধু-‌জ্যাঠার কথাই এই চারজনের অনুপ্রেরণা।’‌ অমৃতার সঙ্গে তো আগে কাজ করেছি। বাকি তিনজনেরও জ্যাঠা হয়ে উঠেছি আমি—হাসতে হাসতে বলেন কমলেশ্বর।
এই ছবিতে চমকে দেওয়ার মতো একটা চরিত্রে অভিনয় করছেন চূর্ণী গাঙ্গুলি। রাজনৈতিক নেত্রী দামিনী গুহরায়ের চরিত্র। এই চরিত্রটা রহস্যময়। এখনই তাই দামিনীকে নিয়ে রহস্য ফাঁস করতে চাননা চূর্ণী বা পরিচালক ঋক। তবে ঋকের পরিচালনা বেশ উপভোগ করছেন জাতীয় পুরস্কার জয়ী পরিচালক চূর্ণী গঙ্গোপাধ্যায়।
‘‌রানি’‌তে আরও দুটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করছেন দেবপ্রসাদ হালদার ও ঋদ্ধিশ চৌধুরি। এই ছবির চিত্রনাট্য লিখেছেন ঋতর্ষি দত্ত। সিনেমাটোগ্রাফার প্রসেনজিৎ চৌধুরি।
 

‘‌রানি’‌র একটি দৃশ্যে অমৃতা ও শ্রেয়া। ছবি:‌ সুপ্রিয় নাগ

জনপ্রিয়
আজকাল ব্লগ

Back To Top